চাঁদপুর, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ৪ রজব ১৪৪৪  |   ২৬ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   বাবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের আয়োজনে সরস্বতী পুজা উদযাপন
  •   চাঁদপুর শহরে বেড়েই চলছে কিশোর গ্যাংয়ের উৎপাত
  •   চাঁদপুর জেলা আইনজীবী সমিতিতে বিএনপি প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয়
  •   চাঁদপুর সেন্ট্রাল ইনার হুইল ক্লাবের গৌরবের যুগপূর্তি অনুষ্ঠান
  •   হয়রানির আরেক নাম প্রি-পেইড বিদ্যুৎ মিটার

প্রকাশ : ১৭ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০

কচুয়ায় যুবকের মরদেহ উদ্ধার
মেহেদী হাসান ॥

কচুয়া উপজেলার করইশ গ্রামে মিন্টু দেবনাথ (২৪) নামের এক যুবকের মরদেহ নিজ গৃহ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের গলায় একটি গামছা পেঁচানো ছিলো। বুধবার দুপুরে পৌরসভাধীন করইশ গ্রামের মিন্টু দেবনাথের নিজ গৃহ থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মিন্টু দেবনাথ তপন দেবনাথের দ্বিতীয় ছেলে।

নিহত মিন্টু দেবনাথের বড় ভাই পিন্টু দেবনাথ জানান, আমি ও আমার ছোট ভাই মিন্টু দেবনাথ বাড়ির পাশে একসাথে ব্যাডমিন্টন খেলে রাত ১১টার দিকে বাড়ি চলে আসি। আমার ভাই মিন্টু তার নিজ গৃহে ঘুমিয়ে পড়ে। পরের দিন বুধবার সকাল ৮টার দিকে আমার বাবা তপন দেবনাথ মিন্টুর ঘরে গিয়ে টিভি দেখার উদ্দেশ্যে দরজায় কড়া নাড়ে। কিন্তু দরজা না খোলায় তিনি ঘরের জানালা দিয়ে উঁকি দিয়ে দেখেন গলায় গামছা পেঁচানো অবস্থায় ঘরের মেঝেতে মিন্টুর লাশ পড়ে আছে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার গলায় একটি গামছা পেঁচানো ছিলো। সে একজন স্বর্ণ-শিল্প ব্যবসায়ী। কচুয়া বাজারে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্যে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর রহস্যটি পরিষ্কার হবে। রিপোর্ট প্রাপ্তি সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে। এ ঘটনায় কচুয়া থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এদিকে মিন্টু আত্মহত্যা করেছেন নাকি তাকে হত্যা করা হয়েছে এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন উঠেছে। এলাকাবাসী দাবি, পুলিশের সঠিক তদন্তের মাধ্যমে বিষয়টি পরিষ্কার হবে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়