চাঁদপুর, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ২১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   ফরিদগঞ্জে কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন মেধাবৃত্তি পরীক্ষা
  •   হাইমচরে রাতভর পাহারা দিয়েও রক্ষা হয়নি চরের মাটি
  •   বড়স্টেশন মেঘনায়  ট্রলারের ধাক্কায় নিঁখোজ জেলের লাশ পাঁচদিন পর উদ্ধার
  •   মতলব উত্তরে মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় আহত তানভীরও চলে গেলো না ফেরার দেশে
  •   কাল হেলিকপ্টারে মতলব উত্তরে আসছেন ড. এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী

প্রকাশ : ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০০:০০

নিষ্প্রাণ পূজা মণ্ডপ
বিমল চৌধুরী ॥

ব্যাপক আয়োজনে, উৎসবমুখর পরিবেশে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পাঁচদিনব্যাপী বৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান শুরু হলেও পূজা মণ্ডপগুলো ছিলো অনেকটাই নিষ্প্রাণ। ধূপ, ধুনুচি, পঞ্চপ্রদীপ আর ঢাকের বাজনার তালে তালে গত ১ অক্টোবর শনিবার স্বায়ংকালে অধিষ্ঠিত হন দেবী দুর্গা। এদিন সন্ধ্যা রাতে বোধনের ঘট স্থাপনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় দুর্গা পূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা। পঞ্জিকার সূচি অনুযায়ী গত শুক্রবার রাত ৯টা ১০ মিনিট থেকে ষষ্ঠি শুরু হয়ে গত ১ অক্টোবর শনিবার রাত ৯টা ৭ মিনিট পর্যন্ত তা স্থায়ী হয়। এ সময়ের মধ্যেই ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশে ধর্মীয় নিয়মানুযায়ী দেবীর বোধন অনুষ্ঠিত হয়। অবসান হয় দীর্ঘ এক বছরের অপেক্ষার প্রহর। শুরু হয় দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা। গতকাল ২ অক্টোবর রোববার ছিল মহাসপ্তমী পূজা। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়েই সপ্তমী পূজা সম্পন্ন হয়েছে। করোনাকালীন সময় ব্যতীত অন্যান্য বছর সপ্তমী পূজার সকালে যেভাবে পূজা মণ্ডপে ভিড় পরিলক্ষিত হতো, এ বছর তা তেমন করে চোখে পড়েনি। তেমনভাবে শোনা যায়নি সাউন্ড বা ইকোর বড় ধরনের শব্দ। নিরবে নিঃশব্দে সপ্তমী পূজার আয়োজন করেছেন পূজারীগণ। মহাসপ্তমীর সকালে যেমন ফাঁকা ছিল পূজা মণ্ডপ, তেমনি অনেকটা দর্শনার্থী ফাঁকা ছিল সন্ধ্যাকালীন পূজা মণ্ডপে। কোথাও কোথাও এ সময় দেখা গেছে বৃষ্টি। বৃষ্টি মাথায় নিয়ে কেউ কেউ পূজা মণ্ডপে এলেও উৎসবের আমেজ ছিল অনেকটা ম্লান। অনেকটা নিষ্প্রাণ আনন্দের মধ্যে দিয়েই কেটেছে পূজার দ্বিতীয় দিন অর্থাৎ মহাসপ্তমী পূজা। এদিন সকালে কম সংখ্যক ভক্তের উপস্থিতিতে নিজেরাই অঞ্জলি প্রদান করেছেন দেবী চরণে। কামনা করেছেন নিজেদের সুখণ্ডশান্তিসহ দেশ ও জাতির কল্যাণ।

আজ মহাষ্টমী পূজা। পাঁচ দিনব্যাপী এ পূজার আজ ও কালকের দিন পূজারী ও দর্শনার্থীদের কাছে খুবই আনন্দের দিন বলে দীর্ঘদিন যাবত পরিচিতি পেয়ে আসছে। আজ সকালে মহাআনন্দের মধ্য দিয়ে ছোট-বড় সকলে দেবী দুর্গার চরণে অঞ্জলি প্রদান করবেন ভক্তিভরে। এ দিন মণ্ডপে মণ্ডপে শোনা যাবে চণ্ডীপাঠ। চণ্ডীপাঠ আর ভক্তদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠবে ছোট বড় সকল পূজা মণ্ডপ।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়