সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   হাইমচরে শীতকালীন সবজির বাম্পার ফলন, দামে অসন্তুষ্ট কৃষক : সবজি ক্ষেতে সবুজ হাসি থাকলেও কৃষকের মুখ ম্লান
  •   অশুভ শক্তি শক্তিশালী হলেও জয়ি হতে পারবে না : শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০

ফরিদগঞ্জে তিন সন্তানের জননীর আত্মহত্যা
ফরিদগঞ্জ ব্যুরো ॥

একের পর এক অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটে চলছে ফরিদগঞ্জ উপজেলায়। ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ ফারজানা বেগম (৪০) নামে তিন সন্তানের এক জননী নিজের গলায় ফাঁস দিয়ে নিজেই মৃত্যুকে বেছে নিলেন। যদিও তার পরিবারের কেউ কারণ জানেন না। গতকাল ১৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে থানা পুলিশ ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ পাইকপাড়া উত্তর ইউনিয়নের শাশিয়ালী গ্রামের ঢালী বাড়ির স্বামীর ঘর থেকে উদ্ধার করে দুপুরে পোস্টমর্টেমের জন্যে চাঁদপুর প্রেরণ করে।

এ নিয়ে গত তিনদিনে ৪টি লাশ উদ্ধার করলো পুলিশ। এর মধ্যে ৩টি লাশ ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ এবং অপরটি চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ। চাঁদপুর সদরে গলায় ফাঁস দেয়া গৃহবধূর বাড়িও ফরিদগঞ্জে।

জানা গেছে, ফরিদগঞ্জ উপজেলার পাইকপাড়া উত্তর ইউনিয়নের শাশিয়ালী গ্রামের সৌদি প্রবাসী আঃ মমিনের সাথে সুবিদপুর পশ্চিম ইউনিয়নের শোল্লা গ্রামের এরশাদ উল্যার মেয়ে ফারজানার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে তিন সন্তান রয়েছে। স্বামী আঃ মমিন দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরব থাকেন। গতকাল শুক্রবার সকালে ওই বাড়ির লোকজন ফারজানার লাশ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে থানা পুলিশের কাছে সংবাদ দেয়। ধারণা করা হচ্ছে ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে ফারজানা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

গৃহবধূর ভাই বিল্লাল পাটওয়ারী জানান, তার বোন সুখে-শান্তিতেই সংসার করছিল। কেনো সে আত্মহত্যা করলো বুঝতে পারছি না।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ নাছির জানান, সংবাদ পেয়ে শুক্রবার সকালে লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেমের জন্যে দুপুরে চাঁদপুর পাঠানো হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়