চাঁদপুর, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪  |   ২১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   তুরস্ক ও সিরিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে প্রাণহানি ১ হাজার ৬'শ ছাড়িয়েছে, জরুরী অবস্থা জারি
  •   জুনের মধ্যে সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণ
  •   ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে হজের নিবন্ধন শুরু
  •   জুয়ার নিরাপদ আস্তানায় হানা নেই কেন?
  •   নিখোঁজের ৪ দিন পর ফরিদগঞ্জে মাদক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার ॥ আটক ২

প্রকাশ : ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০

মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনে মোঃ মিজানুর রহমানের  প্রস্তাবনা
স্টাফ রিপোর্টার ॥

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুর-২ আসনে নৌকা মার্কার জয় সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিজানুর রহমান নেতৃবৃন্দের কাছে প্রস্তাবনা রেখেছেন। তিনি আগামী সংসদ নির্বাচন পরবর্তী ২ মাস পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের একটি আহ্বায়ক কমিটির রূপরেখা তৈরি করেছেন। যা উপজেলার সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ও তৃণমূলের সমন্বয়ে গঠনের প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

কমিটির আহ্বায়ক থাকবেন উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি অ্যাডঃ রুহুল আমিন। যুগ্ম-আহ্বায়ক থাকবেন বর্তমান ও সাবেক তিন উপজেলা চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী প্রফেসর ড. শামসুল আলম ও বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাডঃ নূরুল আমিন রুহুল মনোনীত ১ জন করে ৩ জন।

কমিটিতে মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, প্রফেসর ড. শামসুল আলম ও নূরুল আমিন রুহুল এমপি সদস্য থাকবেন। এছাড়া সদস্য থাকবে বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে ৮/৯ জন, তরুণ প্রজন্মের যে কয়জন উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ পদে আগ্রহী আছে তাদের মধ্যে ৩/৪ জন।

আহ্বায়ক কমিটির আরো সদস্য থাকবেন বর্তমান উপজেলা কমিটির অন্যান্য পদের ত্যাগী নেতা, তাদের থেকে ৫/৬ জন। বিগত নির্বাচনে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী যারা উপজেলা আওয়ামী লীগে থাকতে আগ্রহী এবং সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বর্তমান যুবলীগের ৪/৫ জন। এছাড়া বেশকিছু আওয়ামী পরিবারের সদস্য আছেন, যারা সুপরিচিত। যেমন : ইসফাক আহসান ও খোকা পাটোয়ারীসহ এমন আরও ৫/৬ জনকে সদস্য করা যায়। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সর্বোচ্চ সংখ্যায় কমিটি করলে ভালো হবে।

উল্লেখ্য, ৭ জন আহ্বায়ক ও যুগ্ম-আহ্বায়কদের সংখ্যাগরিষ্ঠ সিদ্ধান্তে সর্বপ্রকার সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করার ক্ষমতা উল্লেখ থাকতে হবে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়