শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮  |   ১৬ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   শিক্ষক রফিকুল ইসলামের দাফন সম্পন্ন
  •   কচুয়ায় সর্জন পদ্ধতিতে সবজি চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা
  •   বাগাদী চৌরাস্তায় আইল্যান্ড না থাকায় ঘটছে দুর্ঘটনা
  •   জমি অধিগ্রহণে আমার পরিবারের কোনো আর্থিক সম্পর্ক নেই : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশ : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০

লকডাউন আতঙ্কে মানুষ ॥ হাসপাতালে ভর্তি ১৫
মিজানুর রহমান ॥

করোনার সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে বৃহস্পতিবার থেকে চাঁদপুরসহ দেশজুড়ে শুরু হয়েছে ১১ দফার বিধিনিষেধ। গণপরিবহনে অর্ধেক যাত্রী বহনসহ বিধিনিষেধে নিষিদ্ধ করা হয়েছে উন্মুক্ত স্থানে সব ধরনের সভা-সমাবেশ। কিন্তু বিধিনিষেধই পরবর্তীতে লকডাউনে রূপ নিতে পারে এই আতঙ্কে আছে মানুষ।

স্বাস্থ্যবিধি মানতে সর্বোচ্চ সচেতনতার উপর জোর দেয়া হলেও চাঁদপুর শহরে পথে পথে দেখা গেছে মাস্ক ছাড়াই মানুষজনকে চলাচল করতে। আরোপিত বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে পাড়া কিংবা মহল্লা, হাসপাতাল, গণপরিবহন, রেস্তোঁরা, বিপণিবিতান ও মূল সড়কসহ কোথাও যেনো নেই স্বাস্থ্যবিধির বালাই। মুখে মাস্ক ব্যবহার না করে হরহামেশা ঘোরাঘুরি করছে মানুষ।

এ ক্ষেত্রে মোবাইল কোর্টের তদারকি এখন পর্যন্ত চোখে পড়েনি। জেল-জরিমানার কথা বলা হলেও বিধিনিষেধের দ্বিতীয় দিন শুক্রবার সতর্ক করার কার্যক্রমও চেখে পড়েনি।

করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের মুখে দেশ। আক্রান্ত রোগী সংখ্যা বাড়ছে। একই সঙ্গে নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের দাপটে বাড়ছে উৎকণ্ঠা।

গতকাল শুক্রবার চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে গিয়ে জানা যায়, একজন করোনা পজিটিভ ও ১৪ জন উপসর্গ নিয়ে মোট ১৫ জন ভর্তি রোগীর চিকিৎসা চলছে।

শুক্রবার বিকেল ৪টার পর মিলন চক্রবর্তী (৫৫) নামে আরো একজন রোগী করোনার উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হয়েছেন। ক্রমান্বয়ে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। সংক্রমণ মোকাবেলায় নতুন করে ১১ দফা বিধিনিষেধ আরোপ করা হলেও চাঁদপুরের দৃশ্যপট পাল্টায়নি।

এদিকে বিধিনিষিধের পর পরই লকডাউন আসতে পারে এই ভয়ে আছে মানুষজন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়