চাঁদপুর, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   নদীতে যৌথ অভিযান হবে এবং যথাযথ শক্তভাবে হবে : জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান
  •   শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকের সুস্থতা কামনায় মসজিদে দোয়া
  •   হাসপাতাল হলো ময়লার ভাগাড়
  •   মায়ের বুকে শিশুর মৃত্যু?
  •   পানিতে ডুবে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রের মৃত্যু

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০২২, ২২:২৩

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান
অনলাইন ডেস্ক

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী মহীয়সী নারী বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের ধারাবাহিক ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক প্রেরণার উৎস বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২ তম জন্মবার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করেছে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ।এ উপলক্ষে ৮ আগস্ট সোমবার বিকাল ৪ টায় চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয় চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

এতে সভাপতির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ। বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু নাঈম পাটোয়ারী দুলাল।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জহিরুল ইসলামের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আহছান উল্লাহ আখন্দ, দপ্তর সম্পাদক শাহ আলম মিয়া, সদস্য অ্যাডঃ বদিউজ্জামান কিরণ, পৌর আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়াসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

বক্তারা বলেন,ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে নিজ জীবনে লালন ও ধারণ করে তার সন্তানদেরকেও একই আদর্শে গড়ে তোলেন। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও একই শিক্ষা, আদর্শ ও চেতনাকে অবলম্বন করে বাংলাদেশকে আজ বিশ্বের বিস্ময়, উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলেছেন।

তারা বলেন,বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব দেশের স্বাধীনতা ও উন্নয়নের জন্য তাঁর সারাটি জীবন উৎসর্গ করে গেছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর পাশাপাশি বঙ্গমাতাও দেশের স্বাধীনতার স্বপ্ন, ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখেছিলেন। তিনি শুধু বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণীই ছিলেন না, ছিলেন সহযোদ্ধা ও কর্মপ্রেরণাদাত্রী।

পরে জাতির পিতা, বঙ্গমাতা এবং ‘৭৫ এর ১৫ আগষ্টের শহিদদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে অনুষ্ঠিত বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের সকল সকল স্তরের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়