চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯, ২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   ড্রেজার ধ্বংস করাসহ মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা
  •   শাহরাস্তিতে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন
  •   ফরিদগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ছাত্রলীগের আয়োজনে বর্ণাঢ্য র‌্যালী
  •   হাজীগঞ্জ পৌরসভা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত
  •   ভুয়া দুদক কর্মকর্তা সেজে চাঁদা দাবি

প্রকাশ : ২১ আগস্ট ২০২২, ০০:০০

মসজিদের মাইকে ডাকাত আসছে ঘোষণা

রাতের ফরিদগঞ্জে গুজবের ফানুস ॥ ব্যাপক পুলিশি টহল

রাতের ফরিদগঞ্জে গুজবের ফানুস ॥ ব্যাপক পুলিশি টহল
ফরিদগঞ্জ ব্যুরো ॥

রাতের আঁধারে ফরিদগঞ্জে বিভিন্ন গ্রামের মসজিদের মাইকে ডাকাত পড়ছে বলে ঘোষণা দিয়ে গুজব ছড়ানো হয়েছে। এ নিয়ে রাতভর আতঙ্কিত ছিলো ওইসব গ্রামের মানুষ। তবে কোনো এলাকাতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। ১৯ আগস্ট শুক্রবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়ন থেকে এই গুজবের শুরু হয় বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে পুলিশ।

জানা গেছে, ১৯ আগস্ট শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত উপজেলার রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়ন, ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন, চরদুঃখিয়া পূর্ব ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ডাকাতের খবর মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিতে শুনেছেন। অনেকে সেটা বিশ্বাস করে মধ্যরাতে স্বজনদের ফোন দিয়ে সতর্ক করেন। কেউ কেউ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ বিষয়ে পোস্ট দেন।

সাহেবগঞ্জ গ্রামের সরকারি অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হোসেন বলেন, হঠাৎ রাত সাড়ে ১২টার দিকে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেয়া হয়, এলাকায় ডাকাত ঢুকেছে, সবাই যেনো সতর্ক থাকি। তাই আমরা ঘুম থেকে উঠে এলাকার মানুষজন একত্রিত হয়ে ডাকাত ধরার প্রস্তুতি নিয়েছি। পরে শুনি এটা নেহাৎ একটা গুজব।

চর বড়ালী গ্রামের ইকবাল হোসেন বলেন, রাত ১টার দিকে এলাকার মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেয়া হয় ডাকাত ঢুকেছে। আমরা ভয়ে সারারাত আতঙ্কিত অবস্থায় থাকি।

উপজেলার রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ শরীফ খান বলেন, আমি মুঠোফোনে খবর পাই ডাকাত ঢুকেছে, পরে থানার ওসিসহ একদল পুলিশের সহায়তা নিয়ে ফরিদগঞ্জ-রায়পুর উপজেলার বর্ডার এলাকায় পাহারার ব্যবস্থা করেছি।

ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শহীদ হোসেন জানান, প্রতিদিনের ন্যায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় পুলিশের টহল দল ছিলো শক্ত অবস্থানে। ডাকাত দলের প্রবেশের ঘোষণা বিভিন্ন মসজিদ থেকে দেয়া হয়েছে। তবে আমরা যতটুকু খবর পেয়েছি, কোথাও কোনো ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি। যেহেতু অনেকেই মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়েছে, তাই সকলের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব নয়। আমরা তাদেরকে গুজবের ব্যাপারে সচেতন হতে পরামর্শ দিচ্ছি। পাশাপাশি গুজবের উৎস নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছি। সুনির্দিষ্ট কাউকে পেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, কেউ আতঙ্কিত হবেন না, পুলিশ মাঠে আছে। আপনারা চোখণ্ডকান খোলা রাখবেন। আমরা দিনরাত ২৪ ঘণ্টা আপনাদের সেবায় নিয়োজিত আছি। কোথাও কোনো ঘটনা ঘটলে সঙ্গে সঙ্গে আমাদের জানাবেন। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ দিয়ে মানুষের পাশে আছি।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়