চাঁদপুর, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯, ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ২৯ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   জামিনে মুক্ত জেলা যুবদল নেতা সালাউদ্দিন
  •   কারাগার থেকে মুক্তি স্বপন মাহমুদের
  •   চেয়ারম্যান পদে ওসমান পাটওয়ারীর মোবাইল, জাকির প্রধানিয়ার আনারস
  •   স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদন্ড
  •   মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল্লাহ হত্যার ঘটনায় খুনি শনাক্ত

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০২২, ১৯:৩৯

ভারতে মহানবী (সাঃ)-এর শানে কটুক্তির প্রতিবাদে হাইমচরে বিক্ষোভ

ভারতে মহানবী (সাঃ)-এর শানে কটুক্তির প্রতিবাদে হাইমচরে বিক্ষোভ
মোঃ সাজ্জাদ হোসেন রনি

সাম্প্রতিক ভারতে মহানবী (সাঃ) ও হযরত আয়েশা সিদ্দিকা (রাঃ) এর শানে কটুক্তির মাধ্যমে চরম অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে হাইমচরে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিবাদ মিছিলে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হিসেবে ফাঁসি চেয়ে শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয় উপজেলার প্রাণকেন্দ্র।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) সকালে হাইমচর উপজেলা সদর আলগী বাজারস্থ সরকারি হাসপাতাল চত্বর থেকে এ বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা ও থানা মোড়ে এসে প্রতিবাদ সমাবেশে রূপ ন্যায়। হাইমচর উপজেলা ওলামা মাশায়েখ এর পক্ষে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গন্ডামারা এ বি এস ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুর রহমান হামিদী, আলগী বাজার আলিম সিনিয়র মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা জিল্লুর রহমান ফারুকী, আলগী বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব মাওলানা আলমগীর হোসাইন, সরকারি হাসপাতাল জামে মসজিদের খতীব মাওলানা মোঃ জুলফিকার হাসান মুরাদ, ইমদাদুল উলুম কওমি মাদরাসার পরিচালক মুফতি শফিকুল ইসলাম, জনতা বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ আবু বকর সিদ্দিক প্রমূখ।

বক্তারা বলেন- ভারতের কট্টর হিন্দুত্ববাদী রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সাবেক মুখপাত্র নুপুর শর্মা টেলিভিশন শোতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করেছে। সেই সাথে দলটির নয়াদিল্লি শাখার গণমাধ্যম প্রধান নবীন জিন্দালও নুপুর শর্মার মন্তব্যের সমর্থনে টুইট করেছে। বিশ্ব নবীর শানে কটুক্তি ও বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ভারতকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।

তারা বলেন, এই ধরনের ‘ইসলামভীতিপূর্ণ’ মন্তব্যের বিরুদ্ধে যদি শাস্তিমূলক পদক্ষেপ না নেওয়া হয়, তাহলে তা মানবাধিকার রক্ষায় গুরুতর বিপদ তৈরি এবং অত্যধিক কুসংস্কারসহ প্রান্তিকতার দিকে নিয়ে যেতে পারে। যা সহিংসতা ও ঘৃণার চক্র তৈরি করবে। তাই বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল এই হাইমচর থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। কটুক্তিকারী দুজনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হিসেবে ফাঁসির দাবী করছি।

তারা বলেন, অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি যদি না দেওয়া হয়। তবে বিশ্বের মুসলিম দেশগুলো ভারতকে ঘৃণার সাথে বয়কট করবে। ভারতের সকল পণ্য বয়কট করবে। মুসলিম দেশগুলো থেকে ভারতীয় নাগরিকদের তাড়িয়ে দেওয়া হবে। সর্বোচ্চ কর্মসূচি ঘোষণার মাধ্যমে ভারত অভিমুখে লংমার্চ করা হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন হাইমচর সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক কামরুল ইসলাম, কাটাখালী আলিম মাদরাসা অধ্যক্ষ মাওলানা শরীফ হোসাইন, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ফারুকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সাহেদ হোসেন দিপুসহ বরেণ্য ওলামা মাশায়েখ, আয়িম্মায়ে মাসাজিদ, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ ও সর্বস্তরের ঈমানদার তৌহিদী জনতা।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়