সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২১ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   হুমকির মুখে ১৪ নং ওয়ার্ডের পরিবেশ
  •   চাঁদপুরে মাদকবিরোধী অভিযানে ইয়াবাসহ ১ জন আটক
  •   উপজেলা প্রেসক্লাব হাইমচবের নির্বাচন তফসিল ঘোষণা
  •   ইতালি সরকার ৮০ হাজার শ্রমিক নেবে
  •   মোস্তাক হায়দার চৌধুরীর জানাজা সোমবার বাদ জোহর

প্রকাশ : ২০ নভেম্বর ২০২১, ০৩:৫০

পূর্ণ লকডাউনে যাচ্ছে অস্ট্রিয়া

অনলাইন ডেস্ক
পূর্ণ লকডাউনে যাচ্ছে অস্ট্রিয়া

করোনা আক্রান্ত রেকর্ড সংখ্যক বাড়ায় আগামী সোমবার থেকে ফের দেশজুড়ে লকডাউনে যাচ্ছে ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়া। দেশটির চ্যান্সেলর এ্যালেক্সান্ডার শ্যালেনবার্গ শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে সর্বোচ্চ ২০ দিনের জন্য এই লকডাউন জারির ঘোষণা দেন। অস্ট্রিয়ায় টিকা না নেয়া প্রায় ২০ লাখেরও বেশি মানুষের জন্য দেশটিতে ইতোমধ্যে লকডাউন জারি রয়েছে। শুক্রবার সবার জন্য লকডাউনের ঘোষণা দিয়ে চ্যান্সেলর বলেছেন, দশদিন পর এই সিদ্ধান্ত পর্যালোচনা করা হবে। বিশ্বব্যাপী করোনা আক্রান্ত ২৫ কোটি ৬৬ লাখ ৬৭ হাজার ৪৯৭ জন। মৃত্যু ৫১ লাখ ৫১ হাজার ৭৮৭ জন। সুস্থ হয়েছে ২৩ কোটি ১৮ লাখ ৩ হাজার ২০৬ জন। খবর বিবিসি ও ওয়ার্ল্ডোমিটারসের।

পশ্চিম অস্ট্রিয়ায় দেশের নয়টি প্রদেশের গবর্নরের সঙ্গে বৈঠকের পর চ্যান্সেলর এ্যালেক্সান্ডার শ্যালেনবার্গ বলেন, ‘আমরা পঞ্চম ঢেউ চাই না।’ তিনি জানান, আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে অস্ট্রিয়ায় করোনার টিকা নেয়া বাধ্যতামূলক করা হবে।

করোনার উৎস উহানের সি ফুড মার্কেট ॥ কোন গবেষণাগার থেকে নয়, বরং উহানের সি ফুড মার্কেট থেকেই ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী রোগ করোনার জন্য দায়ী সার্স গ্রুপের ভাইরাস সার্স-কোভ-২। যুক্তরাষ্ট্রে সাম্প্রতিক এক গবেষণা প্রতিবেদনে এই তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। করোনার উৎস সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব এ্যারিজোনার বাস্তুসংস্থান ও জৈব বিবর্তন বিভাগের প্রধান মাইকেল ওরোবে সম্প্রতি একটি গবেষণা করেছেন। বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের বিজ্ঞানভিত্তিক সাময়িকী সায়েন্সে ছাপা হয়েছে সেই গবেষণা প্রতিবেদন। করোনার উৎসস্থল চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান শহর। তবে এই শহরের কোন অঞ্চলে প্রথম এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী দেখা গেছে- তা নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত মহামারী ও জনস্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞরা। চীনের সরকার যদিও দৃঢ়ভাবে বলেছে, সি ফুড মার্কেট থেকেই ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস এবং মানবদেহে এই ভাইরাসটির সংক্রমণ ঘটেছে বাদুড়-প্যাঙ্গোলিন বা এই জাতীয় কোন বন্যপ্রাণীর দেহ থেকে। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে উহানে সর্বপ্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃতুর ঘটনাটিও ঘটে উহানে। তবে সি ফুড মার্কেটই প্রথম করোনাভাইরাস দেখা গেছে কিনা তা নিয়ে ঘোরতর সন্দেহে আছেন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের বিজ্ঞানীদের। তারা বলছেন, ২০১৯ সালের ১৬ ডিসেম্বর প্রথম উহানে করোনা রোগী শনাক্ত হয়। যিনি প্রথম শনাক্ত হয়েছিলেন, তিনি ছিলেন উহানের ভাইরাস ও জীবাণু বিষয়ক গবেষণাগারের হিসাবরক্ষক।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়