বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২  |   ২৮ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   ড্রেজার ধ্বংস করাসহ মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা
  •   শাহরাস্তিতে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন
  •   ফরিদগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ছাত্রলীগের আয়োজনে বর্ণাঢ্য র‌্যালী
  •   হাজীগঞ্জ পৌরসভা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত
  •   ভুয়া দুদক কর্মকর্তা সেজে চাঁদা দাবি

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০০:০০

চাঁদপুরে ২শ’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন

চাঁদপুরে ২শ’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট ॥

চাঁদপুরের সাত উপজেলায় ২শ’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। এ ছাড়া স্থাপিত হয়েছে আরো ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১০টি ডিজিটাল ক্লাসরুম।

প্রতিটি ল্যাবে কমপক্ষে ১৭টি ল্যাপটপ, ১টি এলইডি স্মার্ট টিভি, ওয়েব ক্যামেরা, প্রিন্টার, ল্যান কানেকশন সেটিং মাল্টিপ্লাগ, রাউটার, ব্যাগ, স্ক্যানারসহ ২৩টি আইসিটি সরঞ্জাম ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক আসবাবপত্র সরবরাহ করা হয়েছে। চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের আইসিটি বিভাগ সূত্রে ১৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার প্রাথমিকভাবে এ তথ্য জানা গেছে ।

সংশ্লিষ্ঠ প্রতিষ্ঠানের আইসিটি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষক দ্বারা সাপ্তাহিক শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার বা ল্যাপটপ প্রশিক্ষণ প্রদান করার নির্দেশনা রয়েছে । জেলা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাগণ শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাবের কার্যক্রম তদারকি করছেন বলে জানা গেছে। তবে এসব ল্যাব পরিচালনা করার ক্ষেত্রে আইসিটিতে দক্ষ ও প্রশিক্ষিত শিক্ষক প্রয়োজন বলে কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান প্রধানদের অভিমত ।

বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার নির্বাচনী অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ শিক্ষার সকল স্তরে আইসিটি শিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করার প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেছেন। আইসিটিতে অগ্রসর বা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ এবং প্রধানমন্ত্রীর জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা তৈরি ও দেশকে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিণত করার জন্যে প্রাথমিক স্তর হতেই আইসিটি শিক্ষা অন্তর্ভুক্তকরণের বিষয়টি বাস্তবসম্মত ও যুগান্তকারী একটি ধারণা ও পদক্ষেপ।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ ও আইসিটি শিক্ষা সম্প্রসারণ এবং দক্ষ জনশক্তি গড়ার প্রত্যয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্ব ও নির্দেশনায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ বিভিন্ন প্রকল্প সফলভাবে বাস্তবায়ন করে চলেছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের অধীন ‘সারাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ও ভাষা প্রশিক্ষণ ল্যাব স্থাপন’ প্রকল্পের মাধ্যমে জানুয়ারি, ২০১৫ জুন হতে ২০১৯ পর্যন্ত দেশের ৬৪টি জেলায় প্রশিক্ষণ ল্যাবসহ মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও মাদ্রাসা বা তদূর্ধ্ব পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৪ হাজার ১টি শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন, সৌদি আরবে অবস্থিত বাংলাদেশি কমিউনিটি বিদ্যালয়সমূহে ১৫টি শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় চাঁদপুরে প্রায় ২শ’ মতো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। এ সকল ল্যাব স্থাপনের ফলে চাঁদপুরের শিক্ষা এবং আইসিটি ক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন সাধিত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে ।

প্রাথমিক, মাধ্যমিক, মাদ্রাসা এবং তদূর্ধ্ব পর্যায়ের ছাত্র-ছাত্রীরা শিক্ষায় আইসিটি ব্যবহার এবং আইসিটি শিক্ষায় নিজেদের সম্পৃক্ত করার সুযোগ পাচ্ছে এই ল্যাবের মাধ্যমে। সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক এবং ছাত্র-ছাত্রীরা ছাড়াও এ সব ল্যাবে সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ও কর্মকাণ্ড সফলভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব। এ সুফল ইতোমধ্যেই শিক্ষার্থীগণ পেতে শুরু করেছে।

সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয় (পাইলট) পর্যায়ে ১৬০টি শেখ রাসেল ডিজিটাল ক্লাসরুম স্থাপিত হয়েছে। এ সকল ডিজিটাল ল্যাব তথ্য-প্রযুক্তি শিক্ষা সম্প্রসারণ এবং নতুন প্রজন্মকে আইটি পারদর্শী দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ার ক্ষেত্রে সারাদেশে ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি করেছে বলে জানা গেছে। শিক্ষার উন্নয়ন, আইসিটির বিস্তার, দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়ন, স্থানীয় পর্যায়ে আইসিটি ক্লাব স্থাপন ইত্যাদির নিমিত্ত পর্যায়ক্রমে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা সংশ্লিষ্ট অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা জরুরি।

শিক্ষাক্ষেত্রে সারা বিশ্বের উন্নত দেশসমূহ তাদের সকল পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে নিত্যনতুন প্রযুক্তি ব্যবহার শুরু করছে। গতানুগতিক শ্রেণিকক্ষের ধারণা থেকে বের হয়ে এসে এখন প্রবর্তিত হয়েছে স্মার্ট ক্লাসরুমের ধারণা। শিক্ষা ক্ষেত্রে উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে আমাদের দেশেও প্রয়োজনীয় হার্ডওয়্যার, ডিজিটাল কনটেন্ট, সফটওয়্যার, লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ইত্যাদি সম্বলিত স্মার্ট ক্লাসরুমের প্রবর্তনের মাধ্যমে স্কুল অব ফিউচার স্থাপন করা দরকার।

দ্বিতীয় পর্বে নতুন করে পাঁচ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করার জন্য প্রকল্প হাতে নিয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ। এর আগে চতুর্থ শিল্পবিপ্লব বাস্তবায়নে সারাদেশে আট হাজার ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাব’ গড়ে তোলা হয়েছে। আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, রোবটিকস, ব্লকচেইন, বিগ ডাটার মতো নতুন নতুন প্রযুক্তি পৃথিবীকে দ্রুত বদলে দেবে। ডিজিটাল ল্যাব তরুণ প্রজন্মকে প্রোগ্রামিং শেখার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সরকারের তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ এসব তথ্য জানিয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়