সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২০ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   হুমকির মুখে ১৪ নং ওয়ার্ডের পরিবেশ
  •   চাঁদপুরে মাদকবিরোধী অভিযানে ইয়াবাসহ ১ জন আটক
  •   উপজেলা প্রেসক্লাব হাইমচবের নির্বাচন তফসিল ঘোষণা
  •   ইতালি সরকার ৮০ হাজার শ্রমিক নেবে
  •   মোস্তাক হায়দার চৌধুরীর জানাজা সোমবার বাদ জোহর

প্রকাশ : ০৩ অক্টোবর ২০২১, ১৮:২১

মতলবে মেঘনায় মধ্যরাত থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা নিষেধ

মাহবুব আলম লাভলু
মতলবে মেঘনায় মধ্যরাত থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা নিষেধ

চাঁদপুরের মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ উপজেলার মেঘনা নদীতে মধ্যরাত থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা ও বিক্রি নিষিদ্ধ। মা ইলিশের প্রজনন নিরাপদ রাখার লক্ষ্যে আগামীকাল ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ ধরা বন্ধ থাকবে। জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, নৌপুলিশ, কোস্টগার্ড, উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদফতর সম্মিলিতভাবে কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে।

ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে সরকার এ বছর ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম ৪ অক্টোবর হতে ২৫ অক্টোবর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত মোট ২২ দিন নির্ধারণ করেছে। এ সময়কাল সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার।

ইতিমধ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার গাজী শরিফুল হাসানের সভাপতিত্বে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান ২০২১ সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির প্রস্তুতিমূলক সভা করেছে। সভায় ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করা হয়েছে। একই সাথে জেলে পল্লীসহ অন্যান্য জায়গায় এ সংক্রান্ত সচেতনতা বৃদ্ধিকল্পে মাইকিং এবং প্রচার প্রচারণার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

অপর দিকে মেঘনার পশ্চিমপাড় মতলবের চরসমূহ এবং নদীর খালপাড় এলাকায় নিষিদ্ধ সময় ইলিশ শিকার করা হয় বলে স্থানিয়রা জানিয়েছে।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মনোয়ারা বেগম জানান, মতলব উত্তর উপজেলায় নিবন্ধিত ৮ হাজার ২ শত ১৭ জেলে রয়েছে। এ ২২ দিনের জন্য প্রত্যেক জেলে ২০ কেজি করে চাউল পাবে। এ বিষয়ে প্রচার প্রচারনা চালানো হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার গাজী শরিফুল হাসান বলেন, জাতীয় স্বার্থ যারা ধ্বংস করতে চাইবে, তাদের বিষয়ে কোনো ধরনের বিবেচনা বা অনুকম্পা দেখানোর সুযোগ নেই। এক্ষেত্রে কঠিন থেকে কঠিনতর পদক্ষেপ নিতে আমরা কুণ্ঠাবোধ করব না। দেশের মৎস্যসম্পদ রক্ষায় যত কঠিন হওয়া লাগে, তত কঠিন হতে হবে। কাউকে এ বিষয়ে ছাড় দেয়ার অবকাশ নেই।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়