চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩  |   ৩৩ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   হাজীগঞ্জের শিশু আরাফ হত্যায় তিন আসামীর মৃত্যুদণ্ড
  •   কল্যাণপুর ইউপির জেলে চাল আত্মসাৎ, দুই গুদাম সিলগালা
  •   মা আর স্ত্রীকে বুঝিয়ে দেয়া হলো দুই ভাইয়ের লাশ
  •   বাকিলা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভিম ধ্বসে ৩ ছাত্রী গুরুতর আহত
  •   আশিকাটিতে খাটের নিচে গৃহবধূর লাশ ॥ স্বামী পলাতক

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০

বড়স্টেশন মাছঘাট নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা ॥ আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা

বড়স্টেশন মাছঘাট নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা ॥ আতঙ্কে ব্যবসায়ীরা
মিজানুর রহমান ॥

চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধ এলাকার ঐতিহ্যবাহী চাঁদপুর বড়স্টেশন মাছঘাট নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে মাছঘাটের বেশ কিছু ব্লক দেবে যাওয়ায় আতঙ্কে রয়েছেন মৎস্য ব্যবসায়ী, আড়তদার ও জেলেসহ সংশ্লিষ্টরা। ১২ সেপ্টেম্বর রোববার দুপুরে বড়স্টেশন মাছঘাটে গেলে ব্লক দেবে যেতে দেখা যায়।

বড়স্টেশন মাছঘাটের বেশ কয়েকজন আড়তদার ও ইলিশ বিক্রেতারা জানান, চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধের এই মাছঘাটটির চারপাশ দিয়ে মেঘনা-ডাকাতিয়া নদীর প্রবল ঘূর্ণিস্রোত প্রবাহিত হচ্ছে। এখানে নদীর ব্যাপক গভীরতা। বাঁধে বিছানো সিসি ব্লক আস্তে আস্তে নদীতে দেবে যাচ্ছে। এতে করে পুরো মাছঘাট এলাকা নদীতে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা করছেন তারা। আতঙ্কগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের জিজ্ঞাসা, ঘাটটা নদীতে বিলীন হলে কোথায় যাবেন তারা?

এ পরিস্থিতিতে শুধু মাছঘাট নয়, পাশের বিআইডব্লিউটিসির রকেটঘাট অফিস, নদী বন্দরের পুরানো টার্মিনাল ভবনের অবশিষ্ট অংশ এবং রেলস্টেশনও নদী ভাংগনের মুখে পড়বে।

চাঁদপুর মৎস্য বণিক সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুল বারী জমাদার মানিক বলেন, ওপেন নিলামে ইলিশ বিক্রি হয় বলে এই মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রটি সবার কাছে বেশি জনপ্রিয়। দক্ষিণাঞ্চলের সব ঘাট থেকে রেল, সড়ক ও নদী পথে এই বড়স্টেশন ঘাটে মাছ আসে বলে এটাকে দক্ষিণাঞ্চলের সবচেয়ে বড় মাছঘাট বলা হয়। লোকাল মার্কেট, সিলেট এবং উত্তর বঙ্গে এখানকার ইলিশ বেশি যাচ্ছে। প্রতিদিন ৫শ’ থেকে ৬শ’ মণ ইলিশ এখন ঘাটে আমদানি হচ্ছে। কিন্তু ইলিশ ল্যান্ডিং সেন্টার এই মাছ ঘাটটি নদীতে বিলীন হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। বেশ কিছু ব্লক দেবে গেছে। এই মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রটি নদীভাঙ্গনের ঝুঁকি থেকে রক্ষা করতে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

চাঁদপুর মৎস্য বণিক সমবায় সমিতির পরিচালক আব্দুল খালেক বেপারী বলেন, মেঘনা নদীর পানি প্রবল বেগে প্রবাহিত হওয়ায় পদ্মা-মেঘনা-ডাকাতিয়ার মিলনস্থলে সৃষ্ট হচ্ছে ঘূর্ণিপাক। যার কারণে মাছঘাট এলাকায় আবারো ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে হুমকির মুখে রয়েছে ঐতিহ্যবাহী ইলিশ মাছঘাটটি। এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড চাঁদপুর পওর বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম রেফাত জামিলকে এ বিষয়ে অবহিত করা হলে তিনি জানান, আমরা দ্রুতই বড়স্টেশন মাছঘাট এলাকার ব্লক দেবে যাওয়া স্থান পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবো। ততক্ষণ পর্যন্ত সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ করছি।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়