শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮  |   ১৭ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   শিক্ষক রফিকুল ইসলামের দাফন সম্পন্ন
  •   কচুয়ায় সর্জন পদ্ধতিতে সবজি চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা
  •   বাগাদী চৌরাস্তায় আইল্যান্ড না থাকায় ঘটছে দুর্ঘটনা
  •   জমি অধিগ্রহণে আমার পরিবারের কোনো আর্থিক সম্পর্ক নেই : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশ : ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮:২১

হুমকির মুখে ১৪ নং ওয়ার্ডের পরিবেশ

হাছান খান মিসু
হুমকির মুখে ১৪ নং ওয়ার্ডের পরিবেশ

চাঁদপুর পৌরসভার ১৪নং ওয়ার্ড পৌরসভার বর্ধিত অংশের একটি ওয়ার্ড। পৌরসভা আওতাভুক্ত হওয়ার পর থেকে এই ওয়ার্ডে তেমন কোনো উন্নয়ন সাধিত হয়নি।

সম্প্রতি এই ওয়ার্ডের পরিবেশ মারাত্মক হুমকির মুখে পড়ছে। চাঁদপুর পৌরসভার বর্ধিত এ ওয়ার্ডটিতে জেলা পুলিশ লাইন, জেলা পরিষদ, জেলা কারাগার, বিসিক শিল্প নগরী সহ অসংখ্য জনগুরুত্বপূর্ণ সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যার ফলে এই এলাকায় জনবসতি ও জনসমাগম সবসময় লেগেই থাকে।

ঘনবসতিপূর্ণ এই এলাকায় পরিবেশগত উন্নয়ন না হওয়ার কারণে এই এলাকায় পরিবেশ মারাত্মক হুমকির মুখে পড়ছে। সম্প্রীতি পৌরসভার দুটি ভ্যান দিয়ে দাসদী এলাকার কিছু অংশের গৃহস্থালির বজ্র অপসারণ করা হলেও বজ্র নিষ্কাশনের নির্দিষ্ট কোন স্থান না থাকায় যত্রতত্র রাস্তার পাশে ফেলার কারণে পরিবেশ মারাত্মক হুমকির মুখে পড়ছে। যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা ফেলার কারণে সেখান থেকে মশা মাছির উপদ্রব বাড়ছে ও দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। গৃহস্থালির বজ্র দুটি ভ্যান দিয়ে চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে খালের মধ্যে ফেলার কারণেও পানি প্রবাহের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়াও বাবুরহাট বাজারের বজ্র ফেলার কোন নির্দিষ্ট স্থান না থাকার কারনে ফেলা হচ্ছে স্বর্গীয় রমেশ চন্দ্র দে বাড়ীর মন্দিরের রাস্তা পাশে ফেলা হচ্ছে। ফলে হিন্দু ধর্মাবলম্বীগন মন্দিরে যাতায়াতের সময় মারাত্মক দুর্ঘন্ধের সম্মুখিন হচ্ছেন।

এদিকে এ ওয়ার্ডে অবস্থিত জনগুরুত্বপূর্ণ বাবুরহাট বাজারে গরু জবাই নির্দিষ্ট স্থান থাকলেও সে স্থানে গরু জবাই না করে বাজারের মধ্যে মাংস ও মাছ বাজার অংশে গরু জবাই এর ফলে বাজারের অভ্যন্তরীণ পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। বাজারের মধ্যে গরু জবাই এর ফলে জবাইকৃত পশুর বজ্র ড্রেনের মধ্যে জমা হওয়ার কারণে বাজারের মধ্যে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে যে বাজারের ব্যবসায়ীরাই নিজস্ব প্রতিষ্ঠানে দুর্গন্ধের কারণে তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারছেন না। বিষয়টি নিয়ে বাবুরহাট বাজারের ব্যবসায়ীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

সম্প্রিতি চাঁদপুর পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল পৌরসভার বর্জ্য নিষ্কাশন ব্যবস্থায় আধুনিকায়ন করবেন বলে সকলকে অবগত করেছেন। এ বৃহৎ কার্যক্রমের পূর্বে পৌর ১৪ নং ওয়ার্ডে একটি নির্দিষ্ট বর্জ্য নিষ্কাশন ব্যবস্থা ও এখান থেকে পৌরসভার গাড়ি দিয়ে নিয়মিত বজ্র অপসারণ করার জোর দাবী জানিয়েছেন এই এলাকায় বসবাসকারী জনসাধারণ।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়