চাঁদপুর, রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪  |   ২৩ °সে
আজকের পত্রিকা জাতীয়আন্তর্জাতিকরাজনীতিখেলাধুলাবিনোদনঅর্থনীতি শিক্ষা স্বাস্থ্য সারাদেশ ফিচার সম্পাদকীয়
ব্রেকিং নিউজ
  •   ফরিদগঞ্জে কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশন মেধাবৃত্তি পরীক্ষা
  •   হাইমচরে রাতভর পাহারা দিয়েও রক্ষা হয়নি চরের মাটি
  •   বড়স্টেশন মেঘনায়  ট্রলারের ধাক্কায় নিঁখোজ জেলের লাশ পাঁচদিন পর উদ্ধার
  •   মতলব উত্তরে মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় আহত তানভীরও চলে গেলো না ফেরার দেশে
  •   কাল হেলিকপ্টারে মতলব উত্তরে আসছেন ড. এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী

প্রকাশ : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৫৫

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারের বিভিন্ন প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ

মুহাম্মদ আরিফ বিল্লাহ
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারের বিভিন্ন প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ২০২২ উপলক্ষে চাঁদপুর  জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার জেলার বিভিন্ন স্তরের স্কুল কলেজ ও মাদরাসার শিক্ষার্থীদের নিয়ে চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়েছে।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর সকাল ১১ টায় জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার মিলনায়তনে এ পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। চাঁদপুর জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারের লাইব্রেরিয়ান রাফিয়া সুলতানা এর সভাপ্রধানে এবং সহকারী লাইব্রেরিয়ান উম্মে রায়হানা ফেরদৌস এর সঞ্চালনায় অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. মাহবুবুর রহমান । তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বই পড়ার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে জানার সুযোগ রয়েছে।  বই এমন এক বন্ধু যে কখনো ঠকায় না। নিঃস্বঙ্গ জীবনে আশার প্রদীপ জ্বালিয়ে জীবনকে আলোকিত করে বই।  তিনি আরও বলেন, চাঁদপুর জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগার আলোকিত মানুষ তৈরিতে সহায়তা আসছে।  পরে বিভিন্ন গ্রুপে বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন অতিথি বৃন্দ।

চাঁদপুর জেলা সরকারি গণগ্রন্থাগারের লাইব্রেরিয়ান রাফিয়া সুলতানা জানান, এর আগে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের নিয়ে চিত্রাঙ্কনে দু'টি এবং রচনায় চারটি গ্রুপে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। প্রতিযোগিতায় প্রতিটি গ্রুপ থেকে তিন জন করে প্রথম দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান নির্ধারণ করে মোট আঠারো জন প্রতিযোগীকে পুরস্কৃত করা হয়। এছাড়া গণগ্রন্থাগারের উদ্যোগে একটি উম্মুক্ত  রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। সেখানে যারা বিজয়ী হয়েছেন এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাদেরকেও পুরস্কৃত করা হয়।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আগত শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকগণ এ ধরনের অনুষ্ঠানে আসতে পেরে নিজেদের ভালো লাগার অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়