চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮, ২৮ রমজান ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
আমার প্রিয় শিক্ষক
শাহিন আলম
১১ মে, ২০২১ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শিক্ষাজীবনের শুরু থেকে অর্থাৎ সেই প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করে কলেজ পর্যন্ত অসাধারণ কিছু শিক্ষক পেয়েছি। তাদের ছাত্র হতে পেরে আমি গর্বিত। তবে যদি সবচেয়ে প্রিয় শিক্ষক সম্পর্কে বলতে হয় তাহলে একজন শিক্ষকের কথাই আমি বলবো। যিনি আমার এই ক্ষুদ্র জীবনের চলার পথে সবচেয়ে বেশি প্রেরণা ও উৎসাহ জুগিয়েছেন। আমার সেই প্রিয় শিক্ষকের নাম কামরুল ইসলাম।



 



২০০৮ সাল। চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ি। সেই বছরের মাঝামাঝি সময়ে বাবা বাসায় একজন শিক্ষক নেন আমার জন্যে। শিক্ষক প্রথম দিন আসলেন, আমি নম্র্রতার সঙ্গে তার কাছে পড়া শুরু করি। নতুন শিক্ষকের যে দিকটি আমার সবচেয়ে ভালো লাগতে শুরু হলো তা হলো গল্পের ছলে পড়ানোর কায়দাটা। তাছাড়া তার হাতের লেখার প্রেমে পড়ে যাই। কী দুর্দান্ত তার লেখার ধরণ।



 



২০০৯ সালে প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় আইলা আঘাত আনে দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষের উপর। কিছু দিন পর আমার সমাপনী পরীক্ষা। নিজের গ্রামটাকে দেখে মনে হতো ছোট্ট একটি সমুদ্র। রাতে ঘুমাতে হতো ভাসমান খাটের উপর। সেই সময়ে রাস্তা ঘাটের কোনো অস্তিত্ব ছিলো না কেথাও।



 



কোথাও হাঁটু আবার কোথাও গলা পর্যন্ত পানি সাঁতরে স্যার চলে আসতেন আমাদের বাসায় আমাকে পড়াতে। কখনও পুরো কাপড় ভিজে যেতো আবার কখনও আধভেজা হয়ে চলে আসতেন বাসায়।



 



বিদ্যুৎবিহীন গ্রামে হারিকেনের আলোয় পড়তে হতো আমাকে। কোনো কোনো দিন পড়াতে পড়াতে অনেক রাত হয়ে যেতো। তিনি টর্চলাইট জ্বালিয়ে বাড়ি ফিরতেন।



 



এভাবে সংগ্রাম করে তিনি পড়িয়েছেন। কোনোদিন বিরক্তির ছাপ আমি তার মুখে দেখিনি। তার কাছে কত বার দুষ্টামির জন্যে পিটানি খেয়েছি তা মনে নেই। পরক্ষণে কাছে ডেকে নিয়ে ভালোবাসা দিয়ে বুঝিয়েছেন। সবসময় কাছে টেনে নিয়েছে সব সমস্যার কথা শুনেছেন এবং তার সমাধান করে দিয়েছেন।



 



কষ্টের দামও আমি দিয়েছিলাম বৃত্তি পেয়ে। তারপর ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা একটু স্বাভাবিক হতে স্যার আমাকে তার বাসায় নিয়ে আমাকে পড়াতে চাইলেন, বাবাও রাজি হলেন। বাসায় তার সন্তানের মতো আমাকে পড়াতে লাগলেন। সেখানেই আমার থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থাও হলো। তিনি ছিলেন আমার দ্বিতীয় অভিভাবক।



 



অন্য কোনো শিক্ষকের পড়ানোর কৌশল আমার ভালো লাগতো না। একমাত্র কামরুল ইসলাম স্যার যার কাছে যে কোনো বিষয় নিয়ে গিয়ে না বুঝে ফিরে আসিনি। তিনি আমার প্রিয় শিক্ষক কামরুল ইসলাম। আমি তার দীর্ঘজীবন কামনা করি।



 



 



 


হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

 


২-সূরা বাকারা


২৮৬ আয়াত, ৪০ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৪৫। তোমরা ধৈর্য ও সালাতের মাধ্যমে সাহায্য প্রার্থনা কর এবং ইহা বিনীতগণ ব্যতীত আর সকলের নিকট নিশ্চিতভাবে কঠিন।


 


 


 


 


 


চারিত্রিক সরলতা গূঢ় চিন্তাধারায় স্বাভাবিক বিকাশ। _হেজলিট।


 


 


 


নিশ্চয় খোদা তার বিশ্বাসী বান্দাকে তওবা দ্বারা পরীক্ষা করতে ভালোবাসেন।


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৭,৫১,৬৫৯ ১৬,৮০,১৩,৪১৫
সুস্থ ৭,৩২,৮১০ ১৪,৯৩,৫৬,৭৪৮
মৃত্যু ১২,৪৪১ ৩৪,৮৮,২৩৭
দেশ ২০০ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬০৮০৮৭
পুরোন সংখ্যা