চাঁদপুর, বুধবার ২ অক্টোবর ২০১৯, ১৭ আশ্বনি ১৪২৬, ২ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৬ সূরা-ওয়াকি 'আঃ


৯৬ আয়াত, ৩ রুকু', মক্কী


 


৪১। আর বাম দিকের দল, কত হতভাগ্য বাম দিকের দল!


৪২। উহারা থাকিবে অত্যুষ্ণ বায়ু ও উত্তপ্ত পানিতে,


৪৩। কৃষ্ণবর্ণ ধূম্রের ছায়ায়,


৪৪। যাহা শীতল নয়, আরামদায়কও নয়।


 


 


মহৎ কারণে যার মৃত্যু ঘটে সে অপরাজেয়। -বার্জিল।


 


 


 


 


সদর দরজা দিয়ে যে বেহেশ্তে যেতে চায়, সে তার পিতামাতাকে সন্তুষ্ট করুক।


 


 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুর সোনালী অতীত ফুটবল একাডেমীতে চলছে উদীয়মান খেলোয়াড়দের অনুশীলন
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম
০২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে চাঁদপুর সোনালী অতীত ফুটবল একাডেমীতে নিয়মিত অনুশীলন চলছে উদীয়মান ছেলে ও প্রমীলাদের ফুটবল অনুশীলন।



চাঁদপুর আউটার স্টেডিয়াম মাঠে প্রতিদিন দুপুর ২টার পর থেকেই এ অনুশীলনে বিভিন্ন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। একাডেমীর পক্ষ থেকে অনুশীলনে আসা প্রমীলা ফুটবলারদেরকে খেলার সকল সরঞ্জামাদিসহ বিভিন্ন কাজেও সহযোগিতা করা হয়ে থাকে বলে জানা গেছে। এ ক্লাবটি মূলত সাবেক ফুটবলারদের নিয়ে গড়া ক্লাব। এ ক্লাবের দু'সদস্য ও সাবেক জাতীয় দলের ফুটবলার আনোয়ার হোসেন মানিক ও জাহাঙ্গীর গাজী নিয়মিত অনুশীলনে আসা শিক্ষার্থীদেরকে বিনা পারিশ্রমিকে কোচিং করে থাকেন। আর অনুশীলনে আসা এ সমস্ত খেলোয়াড়দের খেলা সহ বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে থাকেন ক্লাবের সভাপতি ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য সাবেক ফুটবলার মনোয়ার হোসেন চৌধুরী।



চাঁদপুর সোনালী অতীত ফুটবল একাডেমীর অনুশীলন চলাকালে রোববার বিকেলে আউটার স্টেডিয়াম মাঠে খেলোয়াড়দের অনুশীলনে ব্যাস্ত ছিলেন দু কোচ আনোয়ার হোসেন মানিক ও জাহাঙ্গীর গাজী। বালক ও বালিকাদের দুগ্রুপে অনুশীলনে ছিলেন প্রমীলা ফুটবলারদের মধ্যে আফরোজা ১, আফরোজা-২, পিংকি, আলিফা, ইতি, রিতু, মাফিয়া, রাবিয়া, শারমিন, মিম (১), মিম (২)। বালক গ্রুপে ছিলেন সুমন, মাইনুল, বিল্লাল, সোহেল, ইশবাল, সাইফ, ইমন, সোহেল-২, ইমাম, শান্ত দর্জি, রাকিব, নাইম ও কাউসার।



অনুশীলনে অংশ নেয়া ফুটবলারদের মধ্যে মুনিয়া ও সোহেলের সাথে আলাপকালে তারা জানায়, আমরা স্কুল ছুটি হলেই সোনালী অতীত ফুটবল একাডেমীতে চলে আসি ফুটবল খেলার জন্য। আমরা এখানে আসার কারণেই এবার চাঁদপুর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সদর উপজেলা বালিকা দলের হয়ে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবলে সদর উপজেলা দলের হয়ে খেলার সুযোগ পেয়েছি। এছাড়া আমরা সোনালী অতীত একাডেমীর হয়ে বিভিন্ন সময়ে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে বিভিন্ন দলের সাথে প্রীতি ম্যাচে অংশগ্রহণ করতে হয়। এখানকার কর্মকর্তা ও স্যারেরা আমাদের পড়াশোনাসহ খেলাধুলার ব্যাপারে অনেক সহযোগিতা করে থাকেন। আমাদের অভিভাবকদেরকেও একাডেমীর পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হয়ে থাকে।



চাঁদপুর সোনালী অতীত ক্লাবের সভাপতি ও একাডেমীর কর্ণধার মনোয়ার হোসেন চৌধুরীর সাথে মাঠে অনুশীলন চলাকালে এক আলাপচারিতায় তুলে বলেন, আমাদের এ একাডেমীর মূল লক্ষ্যই হচ্ছে জেলা পর্যায়ে ভালো মানের খেলোয়াড় সৃষ্টি করা । আমরা এ একাডেমীতে যারা জড়িত রয়েছি প্রত্যেকই আগে বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে খেলাধুলা করতাম। আমরা অনেকদিন ধরে বিভিন্ন স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে কোচ মানিক ও জাহাঙ্গীরের তত্ত্বাবধানে অনুশীলন শুরু করেছি। আমরা প্রমীলা ফুটবলারদের খেলার ড্রেস সহ বিভিন্ন সরঞ্জামাদি দিয়েছি। অনেক দিন তারা অনুশীলন করার কারণে তাদের খেলার অনেক পরিবর্তনও হয়েছে। এ ক্লাবটির মাধ্যমে খেলাধুলাসহ বিভিন্ন সামাজিক কর্মকা- করা হয়। আমরা আমাদের এ একাডেমী থেকে অসহায় খেলোয়াড়দেরও সহযোগিতা করে থাকি।



চাঁদপুর আউটার স্টেডিয়ামে রোববার বিকেলে হাঁটতে আসা কয়েকজন অভিভাবকের সাথে আলাপকালে তারা জানায়, বৃষ্টি হলে আউটার স্টেডিয়ামে হাঁটা কিংবা কোনো খেলোয়াড়কে খেলতে দেখা যায় না। কিন্তু সবসময়ই আউটার স্টেডিয়াম মাঠে দেখা যায় ক্রিকেটাররা ও সোনালী অতীত ফুটবল একাডেমীর খেলোয়াড়রা অনুশীলন করছে। আমাদের এলাকার বিভিন্ন স্কুল পড়ুয়া অনেক শিক্ষার্থীই চাঁদপুর সোনালী অতীত ফুটবল একাডেমীতে অনুশীলনে করতে দেখা যায়।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৩১৮৪৭৬
পুরোন সংখ্যা