চাঁদপুর, বুধবার ২ অক্টোবর ২০১৯, ১৭ আশ্বনি ১৪২৬, ২ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৬ সূরা-ওয়াকি 'আঃ


৯৬ আয়াত, ৩ রুকু', মক্কী


 


৪১। আর বাম দিকের দল, কত হতভাগ্য বাম দিকের দল!


৪২। উহারা থাকিবে অত্যুষ্ণ বায়ু ও উত্তপ্ত পানিতে,


৪৩। কৃষ্ণবর্ণ ধূম্রের ছায়ায়,


৪৪। যাহা শীতল নয়, আরামদায়কও নয়।


 


 


মহৎ কারণে যার মৃত্যু ঘটে সে অপরাজেয়। -বার্জিল।


 


 


 


 


সদর দরজা দিয়ে যে বেহেশ্তে যেতে চায়, সে তার পিতামাতাকে সন্তুষ্ট করুক।


 


 


ফটো গ্যালারি
এটা কি আউটার স্টেডিয়ামের বাস্কেটবল মাঠ!
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম
০২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর আউটার স্টেডিয়ামের পাশেই অরুণ নন্দী সুইমিং পুল লাগোয়া চাঁদপুর বাস্কেটবল মাঠ। এ মাঠটিতে একসময় সাবেক একজন বাস্কেটবল খেলোয়াড়ের নামে ফলকও উন্মোচন করা হয়েছিলো। কিন্তু সেই ফলক আর বেশিদিন দেখা যায়নি। এক সময় জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মচারীগণই ফলকটি নিয়ে যাওয়ার কথা শোনা গেছে। এ মাঠটি সংস্কারের জন্যে গত কয়েক বছর আগে মাঠের কাজও করা হয়েছিলো। কিন্তু মাঠের কাজের মান খারাপ হওয়ায় সংস্কারের কয়েকদিন পরেই মাঠের বিভিন্ন স্থানে গর্তের চিহ্ন দেখা গেছে। অনেক স্থানেই মাঠের প্লাস্টার উঠে গেছে। মাঝে মাঝে চাঁদপুর বাস্কেটবল একাডেমীর আয়োজনে টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হলেও আবার বাস্কেটবল খেলা অনেক দিন বন্ধ থাকে। এক সময় চাঁদপুরের ক্রীড়াঙ্গনে বাস্কেটবলের প্রচলন ছিলো খুব বেশি। কিন্তু গত কয়ে কবছর ধরে জেলা ক্রীড়া সংস্থা কর্তৃপক্ষ যেনো এ বাস্কেটবল মাঠের ব্যাপারে অনেক উদাসীন হয়ে পড়েছে। মাঠটিতে বর্তমানে দেখা যায় মাঝে মাঝে কেউ পেঁয়াজ, রসুন ও আদা বিছিয়ে রাখছেন। আবার এই মাঠটিতে সাইকেল প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন স্কুল মাদ্রাসার ছাত্রদের ক্রিকেট খেলা সহ ফুটবল খেলতে দেখা যায়। এ দৃশ্য ক্রীড়া সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তা দেখেও কিছু বলছেন না। এভাবেই জেলা ক্রীড়া সংস্থা কর্তৃপক্ষ যদি আউটার স্টেডিয়াম সংলগ্ন বাস্কেটবল মাঠটির দিকে খেয়াল না রাখে তাহলে এটি একসময় ব্যবহার অনুপযোগী ও পরিত্যক্ত হয়ে যাবে।



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৩২৬৯৪৩
পুরোন সংখ্যা