চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২ জুলাই ২০১৯, ১৮ আষাঢ় ১৪২৬, ২৮ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৭-সূরা হাদীদ


২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


২৭। অতঃপর আমি তাহাদের পশ্চাতে অনুগামী করিয়াছিলাম আমার রাসূলগণকে এবং অনুগামী করিয়াছিলাম মারইয়াম তনয় ঈসাকে, আর তাহাকে দিয়াছিলাম ইঞ্জীল এবং তাহার অনুসারীদের অন্তরে দিয়াছিলাম করুণা ও দয়া। আর সন্নাসবাদ-ইহা তো উহারা নিজেরাই আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য প্রত্যাবর্তন করিয়াছিল। আমি উহাদের ইহার বিধান দেই নাই; অথচ ইহাও উহারা যথাযথভাবে পালন করে নাই। উহাদের মধ্যে যাহারা ঈমান আনিয়াছিল, উহাদিগকে আমি দিয়াছিলাম পুরস্কার এবং উহাদের অধিকাংশই সত্যত্যাগী।


 


 


assets/data_files/web

অপ্রয়োজনে প্রকৃতি কিছুই সৃষ্টি করে না। -শংকর।


 


 


কবর এবং গোসলখানা ব্যতীত সমগ্র দুনিয়াই নামাজের স্থান।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
দলের খেলাগুলোতে প্রবাসী দর্শকদের উপস্থিতি থাকে বেশি
-------------------------------অ্যাডঃ সেলিম আকবর
০২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বিশ্বকাপে আমাদের দেশের যে ক'টি খেলা হয়েছে প্রত্যেকটি খেলাই আমি দেখার চেষ্টা করেছি। সামনের খেলাগুলো ঠিকমতো না দেখতে পারলেও দলটি সেমি-ফাইনালে যাবে বলে বিশ্বাস করি। আমি আশাবাদী যে বাংলাদেশ দল ফাইনালও খেলতে পারে। দলের ব্যাটস্ম্যান ও বোলারদের মধ্যে রয়েছে অনেক সমম্বয়। আর এই সমন্বয়ের কারণে প্রতিটি ম্যাচেই দেখা গেছে যে খেলোয়াড়দের মধ্যে অনেক আন্তরিকতা। এছাড়া বিশ্বকাপের যে ক'টি ম্যাচ হয়েছে এর মধ্যে বাংলাদেশ দলটির খেলোয়াড়দের মাঝে নৈতিক মনোভাব ছিলো অনেক বেশি। এ কথাগুলো বললেন চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যকরী কমিটির সদস্য ও বিষ্ণুদী ক্লাবের সাবেক সভাপতি এবং চাঁদপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডঃ সেলিম আকবর।



তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ দল এখন বিশ্বকাপের মিশনে দেশের বাইরে রয়েছে। দেশের খেলাগুলো যখনই বিশ্বের যে কোনো মাঠে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সেখানেই দেখা যাচ্ছে প্রবাসী দর্শকদের উপচেপড়া ভিড়। মাঠে বসে প্রবাসী দর্শকরা নিজ দেশের খেলোয়াড়দের উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। এতে করে খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস বেড়ে গেছে এবং মনোবল তৈরিতে সহায়তা করছে। বাংলাদেশ দল বিশ্বকাপে যে ক'টি ম্যাচ খেলেছে, প্রত্যেকটি খেলাতেই ছিলো তাদের ভালো ধারাবাহিকতা। অধিনায়ক মাশরাফির বুদ্ধিদীপ্ত এবং সঠিক পরিচালনার কারণে আমাদের খেলোয়াড়রা ভালোভাবে খেলছে।



দেশসেরা ও বিশ্বসেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান বিশ্বকাপে হাজারের উপর রান করেছেন। তিনি ২য় বাংলাদেশী হিসেবে এই রান করেছেন। বাংলাদেশ যে ৩টি খেলায় জয়ী হয়েছে এই ৩টি খেলাতেই ছিলো সাকিব আল হাসানের অনবদ্য রান এবং বোলিং। চলমান বিশ্বকাপে সাকিবের খেলা দেখে সকল ক্রীড়ামোদী দর্শক ও ক্রীড়াবোদ্ধারা অনেক খুশি।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪১০১৮৭
পুরোন সংখ্যা