চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১১ জুন ২০১৯, ২৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ৭ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, কিংবদন্তীতুল্য সমাজসেবক আলহাজ্ব ডাঃ এম এ গফুর আর বেঁচে নেই। আজ ভোর ৪টায় ঢাকার শমরিতা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন।বাদ জুমা পৌর ঈদগাহে জানাজা শেষে বাসস্ট্যান্ড গোর-এ-গরিবা কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫১-সূরা যারিয়াত


৬০ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৩৯। তখন সে ক্ষমতার দম্ভে মুখ ফিরাইয়া লইলো এবং বলিলো, 'এই ব্যক্তি হয় এক জাদুকর, না হয় এক উন্মাদ।'


৪০। সুতরাং আমি তাহাকে ও তাহার দলবলকে শাস্তি দিলাম এবং উহাদের সমুদ্রে নিক্ষেপ করিলাম, সে তো ছিলো তিরস্কারযোগ্য।


 


 


 


assets/data_files/web

যাকে মান্য করা যায় তার কাছে নত হও। -টেনিসন।


 


 


সেই ব্যক্তি শ্রেষ্ঠ মর্যাদার অধিকারী যে স্বল্পাহারে সন্তুষ্ট থাকে, অল্প হাসে এবং লজ্জাস্থান ঢাকিবার উপযোগী বস্ত্রে পরিতুষ্ট।


 


 


ফটো গ্যালারি
বাংলাদেশকে টিকে থাকতে হলে জিততে হবে ৪টি ম্যাচ
ক্রীড়াকণ্ঠ প্রতিবেদক
১১ জুন, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বাংলাদেশ দল যদি সেমি-ফাইনালে খেলতে হয় এবং শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে হয় তাহলে তাদেরকে ৪টি ম্যাচে জয়ী হতে হবে। প্রতিটি দেশের জনগণের প্রত্যাশার মাত্রা যখন বেশি থাকে, তখন প্রাপ্তি নিয়ে আলোচনা, পর্যালোচনা ও সমালোচনাও বেশি হয়। বাংলাদেশ বিশ্বকাপে এসেছে আকাশছোঁয়া প্রত্যাশা নিয়ে। দল, ম্যানেজমেন্ট, শুভানুধ্যায়ী তথা গোটা জাতি তাকিয়ে রয়েছে মাশরাফি, সাকিব, তামিম, মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহর দিকে।



বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছে দুর্দান্ত। ওভালে শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকাকে উড়িয়ে দিয়েছে মাশরাফির দল। একই মাঠে পরের ম্যাচে জিততে না পারলেও, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ২৪৪ রানের মাঝারি পুঁজি নিয়েও লড়াই করেছে দুর্দান্ত। সে ম্যাচে হার মানলেও লড়াই হয়েছে সমানে সমান। বাংলাদেশ দলের তৃতীয় ম্যাচটি ছিল কার্ডিফে। যেটিকে ধরা হয় টাইগারদের ভেন্যু হিসেবে। কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনে ২০০৫ সালে মোহাম্মদ আশরাফুলের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়া এবং ২০১৭ সালে সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সেঞ্চুরিতে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর সুখস্মৃতি ছিল বাংলাদেশের। এ দুটি স্মরণীয় সাফল্য সঙ্গে থাকলেও শনিবার আর সফলতা ধরা দেয়নি টাইগারদের। বিশ্বকাপের স্বাগতিক ও অন্যতম ফেবারিট ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে পারদর্শিতা দেখাতে না পারায় মিলেছে ১০৬ রানের বড় পরাজয়।



বাংলাদেশ দলের এ পারফরম্যান্সে ভক্ত-সমর্থকরা খানিকটা হতাশ। আশা ভঙ্গের বেদনা গ্রাস না করলেও আশাহত অনেকেই। তবে ইংল্যান্ডের খেলোয়াড় জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, জোফ্রা আর্চারদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে ইংলিশদের বিপক্ষে বাংলাদেশের পারফরম্যান্সকে খুব বেশি খারাপ বলা যাবে না। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বোলিংটা হয়নি প্রত্যাশামাফিক। এছাড়া দুর্বল ফিল্ডিংয়ের কারণে হয়েছে বেশ কিছু রান। পরে ব্যাটিংয়ে নেমে সাকিব আল হাসানের সেঞ্চুরি ও মুশফিকুর রহীমের খানিক ঝলকানি ব্যতীত আর কেউই তেমন কিছু করতে না পারায় পরাজয়ের ব্যবধানটা হয়েছে বড়।



নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে খুব কাছে গিয়ে হারা এবং ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বড় পরাজয়ের পর ভক্ত-সমর্থকরা হয়ে পড়েছেন আশাহত। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ সেমি-ফাইনালে খেলার লক্ষ্যের ব্যাপারেও জেগেছে সংশয়। আগেই বলে রাখা ভালো, এখনই শেষ হয়ে যায়নি সবকিছু। গাণিতিক সমীকরণ কিংবা বাস্তব প্রেক্ষাপটে, এখনও শেষ চারে থাকার বেশ ভালো সম্ভাবনা রয়েছে মাশরাফি বাহিনীর। তবে সেক্ষেত্রে আগামী যে ছয়টি ম্যাচ রয়েছে তার মধ্যে অন্তত ৪টিতে জেতার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে। এখন দেখার বিষয় হলো, বাংলাদেশের পরের ছয় ম্যাচের প্রতিপক্ষ হলো শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া, আফগানিস্তত্মন, ভারত ও পাকিস্তান। এ ছয় ম্যাচের মধ্যে কোন্ চার দলকে হারাবে বাংলাদেশ? কোন্ চার দলকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়ে এগুবে বাংলাদেশ?



ক্রিকেট অনিশ্চয়তার খেলা। যার শেষ বলে কোনো কথা নেই। এমনকি বলে কয়ে কিছু করা যায় না। অনেক সময় পচা শামুকে পা কাটে আবার প্রায়ই রাঘববোয়ালরাও হার মানে। ফলে বাংলাদেশ কোনো দলকে বলে কয়ে হারাবে তা আগেভাগে ভাবা সম্ভব নয়। তবে আপাতদৃষ্টিতে আফগানিস্তান, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ এ চারটি দলকেই হয়তো বাংলাদেশ তাদের সম্ভাব্য লক্ষ্যবস্তু হিসেবে ঠিক করে সামনে এগুবে। কারণ ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া অনেক বেশি শক্তিশালী। তাদের হারানোও হবে বেশ কঠিন। কাজেই ধরে নেয়া যাক, বাংলাদেশের এখন সেমিতে খেলার মিশন হলো আজ মঙ্গলবার লঙ্কাবধের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়। এতে অবশ্য রয়েছে খানিক দুঃসংবাদ। ইংল্যান্ডের আবহাওয়ায় বৃষ্টির কোনো ধরাবাধা নিয়ম নেই। হুটহাট নেমে যায় ঝুম বৃষ্টি। ফলে প্রকৃতি বাধা দিলে কাজ হয়ে পড়বে কঠিন। যদি ম্যাচগুলো খেলতে পারে, এখনো সেমি-ফাইনালের লক্ষ্যপূরণ সম্ভব বাংলাদেশের।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৪১৫০০
পুরোন সংখ্যা