চাঁদপুর, বুধবার ৩ জুলাই ২০১৯, ১৯ আষাঢ় ১৪২৬, ২৯ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৩-সূরা নাজম


৬২ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২৪। মানুষ যাহা চায় তাহাই কি সে পায় ?


২৫। বস্তুত ইহকাল ও পরকাল আল্লাহরই।


২৬। আকাশে কত ফিরিশতা রহিয়াছে ; উহাদের সুপারিশ কিছুমাত্র ফলপ্রসূ হইবে না, তবে আল্লাহর অনুমতির পর; যাহার জন্য ইচ্ছা করেন ও যাহার প্রতি তিনি সন্তুষ্ট।


 


 


 


assets/data_files/web

মনের যাতনা দেহের যাতনার চেয়ে বেশি। -উইলিয়াম হ্যাজলিট।


 


যদি মানুষের ধৈর্য থাকে তবে সে অবশ্য সৌভাগ্যশালী হয়।


 


ফটো গ্যালারি
জেলা গভর্নরের বক্তব্য
০৩ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


রোটারী একটি আন্তর্জাতিক সেবাধর্মী সংগঠন। এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা করেন আমেরিকার শিকাগো নগরীতে বসবাসকারী সাঁইত্রিশ বছর বয়সী একজন আইনজীবী ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দের ২৩ ফেব্রুয়ারি। ইতোমধ্যে সংগঠনটি ১১৪ বছর অতিক্রম করেছে। সারাবিশ্বের প্রায় ২০০টি রাষ্ট্র ও ভৌগোলিক এলাকায় রোটারী ক্লাবসমূহ ছড়িয়ে আছে।



রোটারী কার্যক্রম পরিচালিত হয় শান্তিময় বিশ্ব গঠনের লক্ষ্যে। রোটারিয়ানগণ মনে করে যেখানে ক্ষুধা, দারিদ্র্য, অশিক্ষা, কুশিক্ষা, অভাব-অনটন, স্বাস্থ্যহীনতা বিদ্যমান সেখানে শান্তির কথা চিন্তা করা বৃথা। তাই বিশ্বজুড়ে রোটারী কাজ করছে দারিদ্র্য বিমোচনে, স্বাস্থ্য উন্নয়নে, পোলিওমুক্ত বিশ্ব গঠনসহ শান্তির অন্বেষণে।



যাঁদের বিত্তের সঙ্গে চিত্তের সংমিশ্রণ রয়েছে তারাই রোটারীর কর্মকা-ে সম্পৃক্ত হয়ে সমাজ উন্নয়নে কাজ করছেন। রোটারিয়ানরা কাজ করছেন বিশ্বভ্রাতৃত্বের বন্ধনে সকল মানুষকে একত্রিত করে সমাজ থেকে সকল অনাচার দূর করতে। কিন্তু ভালো কাজ করতে হলে অর্থের প্রয়োজন। সেই অর্থের যোগান দিতে রোটারী ১৯১৭ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠা করেছে 'রোটারী ফাউন্ডেশন'। রোটারিয়ান ও তাদের বন্ধুদের অনুদানে এটি বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম বেসরকারি তহবিল। রোটারী আন্তর্জাতিকের সমাজ উন্নয়নমূলক নানাবিধ কর্মকা- এ ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে পরিচালিত হচ্ছে।



পোলিও একটি প্রতিরোধযোগ্য মারাত্মক ব্যাধি। এ ব্যাধি নির্মূলে রোটারী বিগত ৩৬ বছর যাবৎ কাজ করছে এবং অচিরেই এ ব্যাধি বিশ্ব থেকে নির্মূল হবে বলে আমাদের বিশ্বাস। রোটারীর পোলিও নির্মূল কর্মসূচির সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনাইটেড স্টেট সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন, ইউনিসেফ, মিলিন্ডা এন্ড গেটস ফাউন্ডেশন এবং বিশ্বের সকল রাষ্ট্রের সরকার। ইতোমধ্যে শুধুমাত্র রোটারী ফাউন্ডেশন এ কাজে ১.৩ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করেছে। বিশ্বের আপামর জনগণের সঙ্গে বিশ্বের ১২ লাখ রোটারিয়ান অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন পোলিওমুক্ত সেই সুন্দর পৃথিবী।



বন্ধুরা, প্রতি বছর ১ জুলাই থেকে বিশ্বজুড়ে রোটারী ক্লাবের সকল পর্যায়ের নেতৃত্বের পরিবর্তন ঘটে। এটা চিরাচরিত প্রথা। আমাদের আন্তর্জাতিক ডিস্ট্রিক্টও এর ব্যতিক্রম নয়। আমরা নতুন অঙ্গীকার নিয়ে শুরু করছি নতুন রোটারীবর্ষ। আন্তর্জাতিক জেলা-৩২৮২-এর গভর্নর হিসেবে আজকের দিনে সমাজহিতৈষী সকল মানুষকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন।



বন্ধুরা, রোটারীর প্রধান অঙ্গীকার হচ্ছে নতুন সদস্য সংগ্রহ এবং একই সঙ্গে পুরাতন সদস্যদের রোটারী কর্মকা-ে সম্পৃক্তকরণের মাধ্যমে হবে পড়ালেখার বিকাশ। কেননা সদস্য নেই, তো ক্লাব নেই, ক্লাব নেই তো সেবা নেই। তাই প্রতিদিনই আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত নতুন সদস্য সংগ্রহের। ২০১৯-২০২০ বর্ষের রোটারী আন্তর্জাতিক প্রেসিডেন্ট মার্ক মেলোনি যে বিষয়গুলোকে অগ্রাধিকার দিয়েছেন সেগুলো হচ্ছে : সদস্য সংখ্যা, ক্লাব সংখ্যা ও সেবার পরিধিবৃদ্ধি এবং পরিবারের সদস্যদের রোটারী কর্মকা-ে সম্পৃক্তকরণ। তার বিশ্বাস এর মাধ্যমে অদূর ভবিষ্যতে রোটারী সমৃদ্ধ হবে এবং জনসমক্ষে রোটারীর ভাবমূর্তি বৃদ্ধি পাবে।



বন্ধুগণ, এ রোটারী বর্ষে আমাদের প্রতিটি জোনে একটি করে অ্যাম্বুলেন্স, একাধিক রোটারী সেন্টার, কমপক্ষে তিনটি কমিউনিটি ক্লিনিক, একটি রোটারী অরফানেজ স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে। এটা আমার স্বপ্ন। আপনাদের সহযোগিতা না পেলে এগুলো স্বপ্নই থেকে যাবে। কখনও বাস্তব রূপ লাভ করবে না। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি আমার স্বপ্নকে বাস্তব রূপ দিতে আপনারা এগিয়ে আসবেন। আমাদের এ বছরের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে 'রোটারী মেলবন্ধন বিশ্বজুড়ে'। তাই আসুন, এতে বাস্তব রূপ দিতে আমরা সকল রোটারিয়ান স্ব স্ব অবস্থান থেকে সময়ের সদ্বব্যবহার করে এ পৃথিবীকে ক্ষুধা, দারিদ্র্য, অশিক্ষা, কুশিক্ষা, রোগ, অভাবসহ যাবতীয় অমঙ্গলমুক্ত স্থান হিসেবে গড়ে তুলি।



আমার বিশ্বাস, আমরা যদি আমাদের অন্তরের শুভ্রতাকে জাগিয়ে তুলতে পারি তাহলেই আলোকিত হবে এবং গড়ে উঠবে প্রত্যাশিত সেই শান্তিময় বিশ্ব। আল্লাহ আমাদের সকলের সহায় হোন।



 



রোটারিয়ান প্রিন্সিপাল লে. কর্নেল (অব) এম. আতাউর রহমান পীর



রোটারী জেলা গভর্নর (২০১৯-২০২০)



রোটারী আন্তর্জাতিক জেলা-৩২৮২, বাংলাদেশ।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৩২০৫০
পুরোন সংখ্যা