চাঁদপুর, শনিবার ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ জিলহজ ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে চাঁদপুর জেলা লকডাউন ঘোষণা করলেন জেলা প্রশাসক
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৪-সূরা কামার


৫৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৫২। উহাদের সমস্ত কার্যকলাপ আছে আমলনামায়,


৫৩। আছে ক্ষুদ্র ও বৃহৎ সমস্ত কিছুই লিপিবদ্ধ।


৫৪। মুত্তাকীরা থাকিবে স্রোতস্বিনী বিধৌত জান্নাতে,


৫৫। যোগ্য আসনে, সর্বময় কর্তৃত্বের অধিকারী আল্লাহর সানি্নধ্র্যে।


 


 


assets/data_files/web

আমার নিজের সৃষ্টিকে আমি সবচেয়ে ভালোবাসি।


-ফার্গসান্স।


 


 


 


যে শিক্ষা গ্রহণ করে তার মৃত্যু নেই।


 


 


ফটো গ্যালারি
ইরফানের ঈদ উৎসব
মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া
২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কী মজা, কী মজা ঈদ আসছে। আমাদের গরুগুলো বিক্রি করে নতুন জামা, জুতা বাবা কিনে দিবে বলে তার সহপাঠীদের বলে বেড়ায়। ইরফানকে দেখতে সুন্দর ছটপটে। কণ্ঠমালা মমতায় ভরা, শুনতে ইচ্ছে করে সবার। তাই ইরফানের কথা শোনার জন্যে সবাই খুটিয়ে খুটিয়ে তার কথামালার আনন্দ উপভোগ করে। স্কুল ঈদের বন্ধ। তাই সে ছুটাছুটি করে খেলাধুলা করে। বাবার সাথে গোয়াল ঘরের কাছে গিয়ে খড়কুটা দিয়ে দূর থেকে গরুগুলোর সাথে মজা করে। বাবা নিষেধ/ধমক দিয়েও নিবারণ করতে পারে না। স্বাভাবিক সচ্ছল পরিবার ইরফানদের। বাড়ির আঙিনার দু ধারে ফুলের বাগান সারিবদ্ধভাবে। বাহারি ফুলের গাছে পানি দেয় মাঝে মাঝে ইরফান। ঈদ আসছে তাই ফুলের বাগান একটু বেশি করে পরিষ্কার করে প্রায় সমবয়সী চাচাতো ভাইদের সাথে। সন্ধায় শরীরটা কেমন কেমন লাগছে ইরফানের। বাবা-মা অতটা গুরুত্ব না দিয়ে সবাই ঘুমের বিছানায় চলে গেলো। ঘুম থেকে উঠে যার যার কাজকর্ম নিয়ে ব্যস্ত। মা সকালের সংসারের প্রারম্ভিক কাজকর্ম শেষ করে ছেলেটাকে ঘুম থেকে ওঠানোর জন্যে গিয়ে দেখেন ছেলেটার শরীর খুব দুর্বল দেখাচ্ছে, চোখ মুখগুলো দেখতে কেমন কেমন দেখা যায়। ওগো শুনছো...এদিকে এসো। ইরফানের শরীরটা জ্বরে পুড়ে যাচ্ছে দেখে বাবা-মা দুজনেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। দ্রুত হাসপাতালে আনা হলো। ডাক্তার পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে দেখলো ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত ইরফান! আত্মীয়স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশী সবাই হাসপাতালে ভীড় জমাতে শুরু করলো। সাংবাদিকদেরও আনাগোনা বেড়ে গেলো। এরই মাঝে একটি রাজনৈতিক কর্মীদল এসে ফটো তোলার জন্যে ব্যস্ত হয়ে গেলো ইরফানের সাথে। কিশোর ইরফান বলে, কী কারণে তার ডেঙ্গু জ্বর হয়েছে সে কথা আমাকে জিজ্ঞাসা না করেই ফটো তোলতে চান? আসলে আমার ছবি না তোলে আমাদের বাড়ির ফুল গাছগুলো এবং গোয়াল ঘরের পাশে যে নর্দামাটা আছে সেগুলোর ছবি তুলুন! আর সবাই বাড়ি গিয়ে নিজ নিজ বাড়ির ভেতর ও বাহিরের চারপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করুন। তাহলেই আমার মতো আপনার সন্তান ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হবে না। সবাই হা করে তাকিয়ে আছে ইরফানের দিকে (কিশোর ইরফান টিভি দেখেই ডেঙ্গু আক্রান্ত কারণগুলো জেনে গেছে)। আমার মতো ডেঙ্গুকে নিয়ে ঈদ করতে হবে না অন্যদের। চারপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন ডেঙ্গুমুক্ত ঈদ উপভোগ করুন।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৮৫৬৫৭
পুরোন সংখ্যা