চাঁদপুর। শনিবার ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮। ২৪ ভাদ্র ১৪২৫। ২৭ জিলহজ ১৪৩৯
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪১-সূরা হা-মীম আস্সাজদাহ,

৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৩। তারা যদি বিমুখ হয় তবে বল : আমি তো তোমাদেরকে সতর্ক করেছি এক (আযাবের) বজ্রের; আ’দ ও সামূদের বজ্রের অনুরূপ।

১৪। যখন তাদের নিকট রাসূলগণ এসেছিলেন তাদের সম্মুখ ও পশ্চাৎ হতে (এবং বলেছিলেন) তোমরা আল্লাহ ব্যতীত কারো ইবাদত করো না। তখন তারা বলেছিল : আমাদের প্রতিপালকের এইরূপ ইচ্ছা হলে তিনি অবশ্যই ফেরেশতা প্রেরণ করতেন। অতএব তোমরা যেসব সহ প্রেরিত হয়েছো, আমরা তা প্রত্যাখান করছি।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন



 


সৎ উপদেশকে টাকার মূল্যে পরিমাপ করা যায় না।                             


-ইরাসমুস।


না চাওয়া সত্ত্বেও যখন তোমাকে কিছু দেওয়া হয়, তা গ্রহণ করো এবং তার প্রতিদান দিও।

 


ফটো গ্যালারি
সাক্ষাৎকার : মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া
প্রথমবার পত্রিকায় আমার নাম ও লেখাটি দেখে মনে হচ্ছিল আমি শূন্যে ভাসছি
০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া। দীর্ঘদিন চাঁদপুর কণ্ঠের পাঠক ফোরামসহ বিভিন্ন পাতায় লেখালেখি করছেন। সম্প্রতি তার মুখোমুখি হয়েছে পাঠক ফোরাম। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন আল-আমিন হোসাইন। সাক্ষাৎকারটি আজ প্রকাশিত হলো।



পাঠক ফোরাম : ভালো আছেন?



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : জ্বি, ভালো আছি।



পাঠক ফোরাম : আপনার সাহিত্য চর্চার শুরুর দিক সম্পর্কে জানতে চাই।



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : সাহিত্য চর্চার সাথে আমি স্কুল-কলেজ জীবন থেকে জড়িত। কবিতা, গল্প লিখতাম মনের মাধুরী মিশিয়ে। তবে প্রকাশ করতাম না।



স্বাধীনতার শত্রু, একাত্তরের ঘাতক যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও ফাঁসি কার্যকরের দাবিতে ইমরান এইচ সরকার নেতৃত্বাধীন মানুষের সস্নোগানে সস্নোগানে যখন ঢাকার শাহবাগ উদ্বেলিত তখন নিজেকে আর গোপন রাখতে পারলাম না। 'আমি ফাল্গুন বলছি' লেখা দিয়ে প্রকাশ্যে আসি। অন্যদিকে ফরিদগঞ্জ লেখক পরিষদ আয়োজিত অনুষ্ঠানে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক ড. শামসুজ্জামান খান ও চাঁদপুরের কৃতীসন্তান প্রয়াত শান্তনু কায়সার স্যারের বক্তব্য আমার সাহিত্যচর্চার টার্নিং পয়েন্ট। সেই থেকে আজ পর্যন্ত সাহিত্য চর্চার সাথে আছি।



পাঠক ফোরাম : প্রথম লেখা প্রকাশের অনুভূতি সম্পর্কে আমাদের বলুন।



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : 'আমি ফাল্গুন বলছি' লেখাটি প্রথম চাঁদপুর কণ্ঠে প্রকাশিত হয়। ওইদিন চাঁদপুর কণ্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত সাহেবেরও লেখা প্রকাশিত হওয়ায় আমি খুশিতে আত্মহারা হয়েছিলাম। প্রথমবার পত্রিকায় আমার নাম ও লেখাটি দেখে মনে হচ্ছিল আমি শূন্যে ভাসছি। আমার পুরো শরীর জুড়ে ছিল অদ্ভুত শিহরণ।



পাঠক ফোরাম : আপনার প্রিয় লেখক কারা?



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : সৈয়দা আনোয়ারা হকসহ আরো অনেকে।



পাঠক ফোরাম : দু-তিন বছর পূর্বে দৈনিকে নিয়মিত আপনার লেখা দেখা যেত। এখন সাহিত্য চর্চায় নিয়মিত নন কেন?



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : জীবন যুদ্ধের কারণে লেখালেখি কম করছি। তবে আশা করছি খুব শীঘ্রই প্রিয় পাঠকের সাথে আমার মেলবন্ধন হবে।



পাঠক ফোরাম : সাহিত্য নিয়ে আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : সাহিত্য নিয়ে আমার কয়েকটি ভাবনা রয়েছে। আমি একটি সাহিত্যপত্র করার কথা ভাবি। সেখানে মুক্তমনা সবাই লিখবে। এ কাগজটির আয়োজনে সাহিত্যিকদের সম্মাননা দেয়া হবে।



পাঠক ফোরাম : লেখক জীবনের স্মরণীয় একটি স্মৃতি সম্পর্কে জানতে চাই?



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : ভারতের ত্রিপুরা থেকে প্রকাশিত নজরুল চর্চা ও গবেষণা কেন্দ্রের মুখপাত্র 'সুরশ্রুতি' পত্রিকায় নজরুলের জন্মবার্ষিকী সংখ্যা ১১ জৈষ্ঠ ১৪২১ বাংলা (২৬ মে ২০১৪ ইং) 'শিক্ষাঙ্গনে কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্ম তারিখ বিভ্রাট' প্রথম পৃষ্ঠায় প্রকাশ হয়েছিল। এটি আমার কাছে একটি স্মরণীয় বিষয়।



পাঠক ফোরাম : পাঠক ফোরমের প্রতি আপনার প্রত্যাশা কি?



মোখলেছুর রহমান ভূঁইয়া : পাঠক ফোরম চাঁদপুরের সাহিত্যামোদীদের পাঠশালা। 'অনিবার্য কারণবশত পাঠক ফোরাম প্রকাশিত হলো না' লেখাটি দেখিলে সত্যি আমার মনের পাঠশালা বন্ধ হয়ে যায়। পাঠক ফোরামের প্রতি আমার প্রত্যাশা অফুরন্ত।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৯০৯১৫২
পুরোন সংখ্যা