চাঁদপুর। বুধবার ৪ জানুয়ারি ২০১৭। ২১ পৌষ ১৪২৩। ৫ রবিউস সানি ১৪৩৮
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৬-সূরা শু’আরা


২২৭ আয়াত, ১১ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১৬৭। উহারা বলিল, ‘হে লূত! তুমি যদি নিবৃত্ত না হও তবে অবশ্যই তুমি নির্বাসিত হইবে।


১৬৮। লূত বলিল, ‘আমি তোমাদের এই কর্মকে ঘৃণা করি।’’  


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 

বুদ্ধিমান লোক নিজে নত হয়ে বড় হয় আর নির্বোধ ব্যক্তি নিজেকে বড় বলে অপদস্থ হয়।      -হযরত আলী (রাঃ)। 



বিদ্যা অর্জন করো; কারণ যে ব্যক্তি আল্লাহর পথে বিদ্যা অর্জন করে সে ধর্মকর্ম করছে। যে ব্যক্তি বিদ্যা আলোচনা করে, সে খোদাতায়ালার প্রশংসা করছে। যে বিদ্যা শিক্ষা দেয়, সে দান করার পূণ্যের অধিকারী হবে। যে জন উপর্যুক্ত পাত্রে বিদ্যা দান করে, সে আল্লাহর প্রতি ভক্তি প্রদর্শন করে।             


  

ফটো গ্যালারি
মতলব উত্তরে ডাকাত-পুলিশ গোলাগুলি : ডাকাত সর্দারসহ নিহত ২ ॥ ৩ পুলিশ আহত
৪ রাউন্ড বন্দুকের কার্তুজ, ৫টি রামদা ও কিরিচ উদ্ধার
মাহবুব আলম লাভলু ॥
০৪ জানুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৪৮:৩৫
প্রিন্টঅ-অ+


 মতলব উত্তর থানা পুলিশের সাথে ডাকাত দলের গোলাগুলিতে ডাকাত সর্দার মজিবসহ ২ ডাকাত নিহত হয়েছে। বুধবার ভোর রাতে উপজেলার গজরা ইউনিয়নের ডুবগী গ্রামের তাইজউদ্দিন অজি বাড়ির উত্তর পাশে এ ঘটনা ঘটে। গোলাগুলিতে পুলিশের এসআই এনামুল এবং কৃষ্ণ ও সিরাজ নামে ২ কনস্টেবল আহত হন। পরে ৪ রাউন্ড বন্দুকের কার্তুজ ও ৫টি রামদা-কিরিচ উদ্ধার করা হয়।

মতলব উত্তর থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য ও স্থানীয় ডাকাত সর্দার মজিবুর রহমান ওরফে মইজ্জা ডাকাত একাধিক ডাকাতি ও হত্যা মামলার আসামী হওয়ায় দীর্ঘদিন এলাকার বাইরে অবস্থান করছিলো। পুলিশের কাছে খবর আসে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে মইজ্জা ডাকাত নিজ এলাকায় ডাকাত দলের অন্যান্য সদস্য নিয়ে সংঘবদ্ধ  হচ্ছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন মজুমদারের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে হানা দেয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা পুলিশের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এরই মধ্যে এলাকাবাসী এগিয়ে আসে। পরে ঘটনাস্থল থেকে ডাকাত সর্দার মজিবুর রহমান মইজ্জা (৪৮) ও হাবু সর্দার (৩০)-এর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মজিব ওরফে মইজ্জা ডাকাত ডুবগী গ্রামের মৃত মোজাফফর আলীর ছেলে। আর হাবু সর্দার লক্ষ্মীপুর জেলার লক্ষ্মীপুর সদর থানার চর আলী হাসান এলাকার খলিল সর্দারের ছেলে। তাদের বিরুদ্ধে মতলব উত্তর থানাসহ দেশের বিভিন্ন থানায় ডাকাতি মামলা রয়েছে। মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন মজুমদার বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডাকাতদের ধরার জন্যে অভিযানে গেলে ডাকাত সদস্যরা আমাদের উপর আক্রমণ করে। প্রথমে পুলিশ প্রতিহত করার চেষ্টা করে। পরে এক পর্যায়ে পুলিশ গুলি ছুড়ে। ঘটনাস্থল থেকে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য মজিব ও হাবু সর্দারের লাশ উদ্ধার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক ডাকাতি, স্বর্ণ দোকানে লুট ও একটি (ইতি বেগম) হত্যা মামলা রয়েছে।

নিহতদের লাশ ময়না তদন্তের জন্যে চাঁদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়। এদিকে মজিব ডাকাত নিহত হওয়ার খবরে আনন্দ প্রকাশ করে এলাকাবাসী। পুলিশকে সাধুবাদ জানিয়েছে স্থানীয়রা।

 


এই পাতার আরো খবর -
    আজকের পাঠকসংখ্যা
    ১০১৯৩১
    পুরোন সংখ্যা