চাঁদপুর, শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৩ রজব ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ স্মরণে ফরিদগঞ্জে কচি-কাঁচার মেলার শোকসভা
ফরিদগঞ্জ ব্যুরো
২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কেন্দ্রীয় কচি-কাঁচার মেলার পরিচালক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গর্ভনর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের মৃত্যুতে তাঁর স্মরণে শোকসভা করেছে ফরিদগঞ্জ নবীণ কচি-কাঁচার মেলা। গতকাল বৃহষ্পতিবার সকালে উপজেলা সদরস্থ বর্ণমালা কিন্ডারগার্টেনে মেলার শিশু সংগঠক জোবায়ের আলম জিসানের সভাপতিত্বে ও সংগঠক প্রবীর চক্রবর্তীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন মেলার পরিচালক ফরিদ আহমেদ রিপন, যুগ্ম সংগঠক নুরুন্নবী নোমান, সদস্য জাকির হোসেন সৈকত, মামুন হোসাইন, শিশু যুগ্ম সংগঠক জাবের আলম ঈশান ও সানজিদা নবী আদ্রিতা। আলোচনা শেষে মরহুমের আত্মার শান্তি কামনায় মুনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। শোক সভায় বক্তারা বলেন, প্রয়াত খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ শিশুদের জন্যে একজন অন্তঃপ্রাণ মানুষ ছিলেন। তিনি কর্মকালীন সময়ে ব্যাংকিং সেক্টরে কাজ করতে গিয়ে দেশের অর্থনীতিকে গতিশীল করতে কাজ করেছেন। তেমনি জাতীয় শিশু সংগঠন কচি-কাঁচার মেলার পরিচালক হিসেবে কাজ করতে গিয়ে কচি-কাঁচার মেলাকে অনেক দূর নিয়ে গেছেন। শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত ছড়িয়ে ছিটিয়ে দিয়েছেন। তাঁর সময়ে ঝিমিয়ে থাকা বেশ কিছু সংগঠন আবার চাঙ্গা হয়। ২০১৭ সালে ফরিদগঞ্জ নবীণ কচি-কাঁচার মেলার দু'দিনব্যাপি জমকালো অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। তিনি চলে যাওয়ায় জাতি একজন মহান ব্যক্তিকে হারালো। কচি-কাঁচার মেলা হারালো তাদের একজন বড় অভিভাবককে।



 


হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২-সূরা বাকারা


২৮৬ আয়াত, ৪০ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২০। বিদ্যুৎ চমক তাহাদের দৃষ্টিশক্তি প্রায় কাড়িয়া লয়। যখনই বিদ্যুতালোক তাহাদের সম্মুখে উদ্ভাসিত হয় তাহারা তখনই পথ চলিতে থাকে এবং যখন অন্ধকারাচ্ছন্ন হয় তখন তাহারা থমকিয়া দাঁড়ায়। আল্লাহ ইচ্ছা করিলে তাহাদের শ্রবণ ও দৃষ্টিশক্তি হরণ করিতেন। আল্লাহ সর্ববিষয়ে সর্বশক্তিমান।


 


 


assets/data_files/web

নত হই ছোট নাহি হই কোনমতে।


_রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর/কণিকা।


ডান হাত যা দান করে বাম হাত তা জানতে পারে না-এমন দানই সর্বোৎকৃষ্ট দান।


 


 


 


 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৬,৪৪,৪৩৯ ১৩,২১,৯৪,৪৪৭
সুস্থ ৫,৫৫,৪১৪ ১০,৬৪,২৬,৮২২
মৃত্যু ৯,৩১৮ ২৮,৬৯,৩৬৯
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৫০৭১৫
পুরোন সংখ্যা