ঢাকা, শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১ সফর ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৬-সূরা দাহ্র বা ইন্সান


৩১ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১২। আর তাহাদের ধৈর্যশীলতার পুরস্কারস্বরূপ তাহাদিগকে দিবেন উদ্যান ও রেশমী বস্ত্র।


১৩। সেথায় তাহারা সমাসীন হইবে সুসজ্জিত আসনে, তাহারা সেখানে অতিশয় গরম অথবা অতিশয় শীত রোধ করিবে না।


 


 


নিজের হাত ও পায়ের ওপর যে ভরসা করে সে ঠকে না।


-জনগো।


 


 


 


নামাজে তোমাদের কাতার সোজা কর, নচেৎ আল্লাহ তোমাদের অন্তরে মতভেদ ঢালিয়া দিবেন।


 


ফটো গ্যালারি
বিশ্ব অর্থনীতির গতি ফিরতে ৫ বছর সময় লাগবে : বিশ্বব্যাংক
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


করোনাভাইরাস মহামারি কারণে মারাত্মক সংকটে পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতি। সহসাই এই সংকট কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে না। অর্থনীতির মন্দাবস্থা কাটিয়ে উঠতে আরও পাঁচ বছর পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। বিশ্বব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ কারম্যান রেইনহার্ট বৃহস্পতিবার এমন পূর্বাভাস দিয়েছেন। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।



স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে অনুষ্ঠিত এক সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বৃহস্পতিবার রেইনহার্ট বলেন, 'লকডাউন সংক্রান্ত সব বিধিনিষেধ যদি প্রত্যাহার করে নেয়া হয় তাহলে হয়তো দ্রুত অর্থনীতির কিছুটা গতি ফিরতে শুরু করবে। কিন্তু পূর্ণমাত্রায় বিশ্ব অর্থনীতির গতি ফেরার জন্য আরও পাঁচ বছর পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।'



তিনি আরও বলেন, 'বৈশ্বিক এই মহামারির কারণে সৃষ্ট মন্দা অন্যান্য দেশের তুলনায় বেশকিছু দেশে দীর্ঘস্থায়ী হবে। এতে ধনী-গরিব বৈষম্য আরও বাড়বে। ধনী দেশগুলোর চেয়ে দরিদ্র দেশগুলোতে এ সংকটের প্রকোপ বেশি হওয়ায় সবচেয়ে দরিদ্র দেশগুলো ধনী দেশগুলোর চেয়ে আরও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে।'



মহামারির কারণে গত ২০ বছরের মধ্যে এই প্রথম বিশ্বে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে জানান তিনি। এর আগেও এমন পূর্বাভাস এসেছিল। তাতে বলা হচ্ছিল, করোনার কারণে আরও অনেক মানুষ দরিদ্র হওয়ায় এতদিন ধরে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) যতটকু অর্জিত হয়েছিল তা হুমকির মুখে পড়বে।



সূত্র : জাগো নিউজ।



 



 



 



 


এই পাতার আরো খবর -
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৮৭,২৯৫ ৩,৯৬,৩৮,১৮৮
সুস্থ ৩,০২,২৯৮ ২,৯৬,৭৮,৪৪৬
মৃত্যু ৫,৬৪৬ ১১,০৯,৮৩৮
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৮৬২৮
পুরোন সংখ্যা