চাঁদপুর, সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৪-সূরা তাগাবুন


১৮ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৬। উহা এইজন্য যে, উহাদের নিকট উহাদের রাসূলগণ স্পষ্ট নিদর্শনসহ আসিত তখন উহারা বলিত, 'মানুষই কি আমাদিগকে পথের সন্ধান দিবে? অতঃপর উহারা কুফরী করিল ও মুখ ফিরাইয়া লইল। কিন্তু ইহাতে আল্লাহর কিছু আসে যায় না; আল্লাহ অভাবমুক্ত, প্রশংসার্হ।


 


 


 


মা-বাবাকে ভালোবাসা শ্রদ্ধা করা প্রকৃতির প্রথম আইন।


-ভ্যালিরিয়াস ম্যাঙ্য়িাম।


 


 


যে মুসলমান অবৈধ (হারাম) বস্তু হইতে দূরে থাকে ও ভিক্ষাবৃত্তি হইতে দূরে থাকে, যাহার শুধু একটি পরিবার (স্ত্রী), খোদাতায়ালা তাহাকেই ভালোবাসেন।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
মসজিদে হারাম ও মসজিদে নববিতে সেলফি তোলা নিষিদ্ধ
মোঃ জাহাঙ্গীর আলম হৃদয়
১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বিশ্বের মুসলিম উম্মাহর সর্বোচ্চ মর্যাদা ও সম্মানের স্থান সৌদি আরবের মক্কায় মসজিদ আল-হারাম বা হারাম শরীফ বা মসজিদে হারাম। যা পবিত্র নগরী মক্কা ও মদিনায় অবস্থিত। এ মসজিদের অভ্যন্তরে অবস্থিত পবিত্র কাবা শরীফ ও মদিনায় মসজিদে নববির এ দুই পবিত্র স্থানে সেলফি তোলা নিষিদ্ধ করেছেন হারামাইন কর্তৃপক্ষ।



মক্কা নগরীর মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফ ও মদিনার মসজিদে নববিসহ হজ ও ওমরা করতে এসে মানুষ সেলফি তোলে। এটি হারাম না হালাল তা না জেনে কিছু মানুষ সেলফি তোলা নিয়ে ব্যস্ত থাকে। এতে অন্যান্য দর্শনার্থীদের সমস্যার কারণ হয়। সে কারণে সৌদি আরবের হারামাইন ওয়াশ শারিফাইন কর্তৃপক্ষ এক ফরমান জারি করেছে।



বিষয়টি সামনে এসেছে একটি ফতোয়াকে কেন্দ্র করে, ফতোয়াটি পেশ করেন মসজিদুল হেরাম-এর দারুল ইবতার সদস্য ও ইসলামী আইন শাস্ত্রের অধ্যাপক মোহাম্মদ আল মাসুদি। ঐ ফতোয়ায় তিনি বলেছেন, পবিত্র কাবা শরীফে সেলফি তোলা এক ধরনের শিরিক। তিনি তার বক্তব্যে বলেছেন জিয়ারত অবস্থায় কেউ যদি সেলফি তুলে তা প্রকাশ করে তা হবে এক ধরনের রিয়া, আর রিয়া এক ধরনের শিরিকের সমতুল্য বিষয়।



বেশ কয়েক বছর থেকে দেখা যাচ্ছে, অনেকেই হজ ও ওমরাহ করার সময় সেলফি নিয়ে ব্যস্ত থাকে। এই নিয়ে পবিত্র নগরীতে সেলফি তোলা নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি নিয়ে সৌদি আরব সহ বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যমে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় ওঠে। সমালোচকরা মনে করেন, তারা হজ করতে নয় মনে হচ্ছে আনন্দ ভ্রমণ করতে এসেছে।



মুসলিমদের এ পবিত্র স্থানে অমুসলিমদের প্রবেশ নিষিদ্ধ। সেখানে ইসরাইলের এক ইহুদি ধর্মযাজক প্রবেশ করে এবং সেলফি নেয়। সে সময় সৌদি সরকার এ সেলফির কারণে চরম বিতর্কের মাঝে পড়ে যায়।



ইসরাইলের ধর্মযাজকের সেলফির ঘটনার পর এক তুর্কী দম্পতির নিয়ত ছিল পবিত্র নগরী মক্কা ও মদিনায় যাওয়ার। তারা সেখানে গিয়ে ভিডিও করে তা প্রকাশ করে। আর এতে আরো চরম বিতর্কের মুখে পড়ে হারামাইন কর্তৃপক্ষ।



এছাড়া বিভিন্ন সময় এ সেলফির কারণে বিতর্কের মুখোমুখি হয়েছিল সৌদি কর্তৃপক্ষ। সে কারণে এবার পবিত্র নগরীতে সেলফি তোলায় জোরদার নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সৌদির হারামাইন কর্তৃপক্ষ।



জানা গেছে, সেখানে কাউকে সেলফি তুলতে দেখলেই দায়িত্ব পালনকারী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোবাইল বাজেয়াপ্ত করে নেবে।



তাই সৌদি আরবে মক্কায় ওমরাহ পালনের জন্য আসা হাজীদের মক্কা ও মদিনা শরিফের ভেতরে আসার আগে ছবি তোলার ব্যাপারে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।



 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৩৯,৩৩২ ২,৯২,০১,৬৮৫
সুস্থ ২,৪৩,১৫৫ ২,১০,৩৫,৯২৬
মৃত্যু ৪,৭৫৯ ৯,২৮,৬৮৬
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৭৪৩০৮
পুরোন সংখ্যা