চাঁদপুর, বৃহস্পতবিার ৩০ জানুয়ারি ২০২০, ১৬ মাঘ ১৪২৬, ৪ জমাদউিস সানি ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • শাহরাস্তিতে ডাকাতি মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত। || 
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৪-সূরা তাগাবুন


১৮ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১২। তোমরা আল্লাহর আনুগত্য কর এবং রাসূলের আনুগত্য কর; যদি তোমরা মুখ ফিরাইয়া লও, তবে আমার রাসূলের দায়িত্ব কেবল স্পষ্টভাবে প্রচার করা।


 


assets/data_files/web

যে তার দেশকে ভালোবাসতে পারে না, কিছুই সে ভালোবাসতে পারে না। -বায়রন।


 


নিশ্চয় আল্লাহ অত্যাচারীকে শাস্তি প্রদান করেন।...কোন দেশ যখন অত্যাচারী হয়, তোমার প্রভু তাকে শাস্তি প্রদান করেন, তার শাস্তি অতীব ভীষণ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুর আহমাদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার সততা সংঘের বিতর্ক প্রতিযোগিতা
লড়াইয়ের মূলেই ছিলো দুর্নীতিমুক্ত সমাজ ও রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা
-------------------------------------আলহাজ ওচমান গনি পাটওয়ারী
৩০ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী তথা মুজিবর্ষ উদ্যাপনের অংশ হিসাবে দুর্নীতি দমন কমিশনের আয়োজনে এবং চাঁদপুর আহমাদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার সততা সংঘের ব্যবস্থাপনায় গত ২৯ জানুয়ারি বুধবার ঐতিহ্যবাহী চাঁদপুর আহমাদিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের প্রাণবন্ত বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চাঁদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও গভর্নিং বডির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আলহাজ্ব ওচমান গনি পাটওয়ারী। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, যে সন্তান ঘর থেকে তথা পরিবার থেকে মূল্যবোধ, নৈতিকতা নিয়ে বড় হয় সে কখনোই দুর্নীতিপরায়ণ হতে পারে না। আমাদের আগামীর জন্য, বর্তমানের জন্য আদর্শ মানুষের বড় বেশি প্রয়োজন। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব তাঁর সারাটা জীবন লড়াই করে গেছেন। আর এ লড়াইয়ের মূলেই ছিলো দুর্নীতিমুক্ত সমাজ ও রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করা। কিন্তু দুর্ভাগ্য তিনি তাঁর পূর্ণাঙ্গরূপ দিতে পারেননি। তাঁর আগেই দেশী-বিদেশী নরঘাতকরা তাঁকে তা সম্পাদন করে যেতে পারেননি। তবে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে চলেছেন। তার সুফল বাংলাদেশের মানুষ পাচ্ছে। জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা এখন শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে রোল মডেল। তিনি আরো বলেন, দুর্নীতি কমে এসেছে বহুলাংশে। কিন্তু এর মূল উৎপাটনে আমাদের কাজ করে যেতে হবে। দুর্নীতিকে না বলতে হবে। পাশাপাশি সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। জাতির পিতার শতবর্ষে আমাদের এই অঙ্গীকারগুলো নিতে হবে। মোটকথা মুজিব আদর্শে এবং প্রধানমন্ত্রীর উপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস রেখে সহায়তা করতে হবে। আর দেশ শেখ হাসিনার কাছেই অনেক বেশি নিরাপদ এ কথা প্রমাণ হয়ে গেছে। এই আয়োজনের জন্য তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনকে ধন্যবাদ জানান। বিতর্ক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান খান। মডারেটরের দায়িত্বে ছিলেন সহকারী অধ্যাপক ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী। এছাড়া বিচারকের দায়িত্বে ছিলেন প্রভাষক আবদুল হামিদ এবং শেফাতুন্নাহার, সহকারী মৌলভী সিরাজুল ইসলাম। উপস্থাপনায় ছিলেন প্রভাষক জহিরুল ইসলাম। বিতর্ক অনুষ্ঠানটির অন্যান্য তত্ত্বাবধানে ছিলেন উপাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, প্রভাষক সুলতানা আক্তার, প্রভাষক মোঃ আবদুল্লাহ, সিনিয়র শিক্ষক আমিনুল ইসলাম বিএসসি, শহীদুল্লাহ প্রমুখ। শেষে বিজয়ী ও বিজিত দলের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি।



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৯৮১৮৮৫
পুরোন সংখ্যা