চাঁদপুর, সোমবার ২০ জানুয়ারি ২০২০, ৬ মাঘ ১৪২৬, ২৩ জমাদউলি আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • শাহরাস্তিতে ডাকাতি মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত। || 
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬১-সূরা সাফ্ফ


১৪ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১৩। এবং তিনি দান করিবেন তোমাদের বাঞ্ছিত আরও একটি অনুগ্রহ : আল্লাহর সাহায্য ও আসন্ন বিজয়; মু'মিনদিগকে সুসংবাদ দাও।


 


 


 


 


প্রাচীন মহিলার দেহের গহনা অবশ্যই খাদবিহীন হবে।


-জুভেনাল।


 


 


কৃপণ ব্যক্তি খোদা হতে দূরে লোকসমাজে ঘৃণিত, দোজখের নিকটবর্তী।


 


ফটো গ্যালারি
ফিরোজপুর জনকল্যাণ উবির প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়মের তদন্ত শুরু হচ্ছে
স্টাফ রিপোর্টার
২০ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের দায়েরকৃত অভিযোগের প্রেক্ষিতে ফরিদগঞ্জ উপজেলার ফিরোজপুর জনকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহজাহানের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হচ্ছে। আগামী ২২ জানুয়ারি বুধবার এ তদন্ত শুরু হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস।



জানা গেছে, ফিরোজপুর জনকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য নূরুল আমিন গাজী, লিটন আখন্দ, হারুন খান, রাশেদা বেগম প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহজাহানের বিরুদ্ধে ১৪টি অনিয়মের অভিযোগ এনে ২০১৯ সালের ১৪ নভেম্বর কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। যার অনুলিপি দুদক ও চাঁদপুর জেলা প্রশাসককেও দেয়া হয়।



অভিযোগগুলোর মধ্যে রয়েছে : এসএসসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নিয়ম বহির্ভূতভাবে ৫/১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়া; পাবলিক পরীক্ষার নামে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে তার কাছে প্রাইভেট পড়ার জন্যে বাধ্য করা; নিষিদ্ধ গাইড কোম্পানির সাথে গোপনে চুক্তি করে শিক্ষার্থীদের গাইড কিনতে বাধ্য করা; বিদ্যালয়ে না এসেও হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করা; বিদ্যালয়ে মেধাবী শিক্ষক থাকা সত্ত্বেও তাদের দিয়ে প্রশ্ন তৈরি না করে বিভিন্ন প্রকাশনীর কাছ থেকে গোপনে প্রশ্ন কিনে এনে পরীক্ষা নেয়া; জেএসসি পরীক্ষায় বোর্ডে নির্ধারিত ফি-এর বাইরে জোরপূর্বক শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করা; পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সনদপত্র বিতরণে অর্থ হাতিয়ে নেয়া; বর্তমান কমিটির ১৬ মাসের মধ্যেও কোনো সদস্যের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন নিয়ম অনুযায়ী না করা; কমিটির কোনো সভা ছাড়াই রেজ্যুলেশন তৈরি করে গোপনে স্বাক্ষর করতে বাধ্য করা; সরকারের বিনামূল্যে পাঠ্যবই বিতরণে অর্থ হাতিয়ে নেয়া।



অভিযোগের প্রেক্ষিতে শিক্ষাবোর্ড কর্তৃপক্ষ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে তদন্ত করার দায়িত্ব প্রদান করেন। সেই আলোকে তদন্ত শুরু হচ্ছে।



এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য নূরুল আমিন গাজী বলেন, আমাদের অভিযোগগুলো সত্য। তদন্ত হলে তা প্রমাণিত হবে।



উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শাহ আলী রেজা আশরাফি জানান, ফিরোজপুর জনকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগের তদন্ত আগামী ২২ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে। সেদিন আমরা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে তদন্ত শুরু করবো।



অন্যদিকে আনীত অভিযোগগুলো ভিত্তিহীন দাবি করে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শাহজাহান জানান, আমি একনিষ্ঠভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা করছি। ফলে বিদ্যালয়টি দিনদিন এগিয়ে যাচ্ছে। অভিযোগকারীরা সুবিধা না পেয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে। তদন্ত এলেই তা প্রমাণ হবে। তাছাড়া রাজনৈতিক বিষয়তো রয়েছেই।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৯৯৩৪২৮
পুরোন সংখ্যা