চাঁদপুর, বুধবার ৯ অক্টোবর ২০১৯, ২৪ আশ্বিন ১৪২৬, ৯ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৮-সূরা মুজাদালা


২২ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


 


 


 


 


assets/data_files/web

আনন্দ এমন একটা ফল যা অনুন্নত দেশে দুষ্প্রাপ্য। -জন কেনড্রিক।


 


 


 


 


প্রত্যেক কওমের জন্য একটি পরীক্ষা আছে আর আমার উম্মতদের পরীক্ষা তাদের ধন-দৌলত।


 


 


ফটো গ্যালারি
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের ব্যাখ্যা
০৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠের গত ৬ অক্টোবরের সংখ্যার প্রথম পৃষ্ঠায় 'নয়টি ছাড়া আওয়ামী লীগের কোনো অঙ্গ বা সহযোগী সংগঠন নেই, চাঁদপুরেও রয়েছে অনেক ভুঁইফোঁড় সংগঠন হচ্ছে চাঁদাবাজি' শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ এবং ব্যাখ্যা দেয়া হয়েছে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন চাঁদপুর জেলা শাখার পক্ষ থেকে। সংগঠনের চাঁদপুর জেলা সভাপতি মোঃ মাসুদ আহাম্মদ ও নজরুল ইসলাম মজুমদারের স্বাক্ষরে প্রেরিত প্রতিবাদমূলক প্রতিবেদনে তারা উল্লেখ করেন, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কোনো অঙ্গ, সহযোগী বা ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন নয়। এটি একটি অলাভজনক সামাজিক সেবামূলক গবেষণাধর্মী সংগঠন। যা তার সদস্যদের অনুদান দ্বারা পরিচালিত হয়। কারো কাছ থেকে কোনো ধরনের চাঁদা নেয়া হয় না। ২০০২ সালে ঢাকায় এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠা লাভ করে। বর্তমানে এ সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি হচ্ছেন বর্তমান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন এমপি। প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হচ্ছেন অ্যাডঃ মশিউর মালেক। এ সংগঠনের নিজস্ব গঠনতন্ত্র রয়েছে। এর দ্বারা সংগঠনটি পরিচালিত হয়। চাঁদপুরে এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে অনেক সামাজিক সেবামূলক কাজ করে আসছে। কিন্তু কারো কাছ থেকে একটি টাকাও কোনোদিন নেয়া হয়নি। দখলবাজি, ধান্দাবাজি বা অন্য কোনো নেতিবাচক কর্মকা- তো দূরের কথা। তাই চাঁদপুর কণ্ঠে প্রকাশিত ওই সংবাদে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন-এর নামটি আসায় আমরা ব্যথিত হয়েছি। ওই সংবাদের দ্বারা জনমনে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সম্পর্কে যেনো কোনো বিরূপ ধারণার সৃষ্টি না হয় সেজন্যে আমরা এ ব্যাখ্যামূলক প্রতিবাদটি দিতে বাধ্য হলাম।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১২৮৯৩৬৮
পুরোন সংখ্যা