চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ১৫ আগস্ট ২০১৯, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ জিলহজ ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৪-সূরা কামার


৫৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৩৮। প্রত্যুষে বিরামহীন শাস্তি তাহাদিগকে আঘাত করিল।


৩৯। এবং আমি বলিলাম, 'আস্বাদন কর আমার শাস্তি এবং সতর্কবাণীর পরিণাম।'


৪০। আমি কুরআন সহজ করিয়া দিয়াছি উপদেশ গ্রহণের জন্য; অতএব উপদেশ গ্রহণকারী কেহ আছে কি?


 


 


 


assets/data_files/web

ভালোবাসার কোনো অর্থ নেই, কোনো পরিমাপ নেই।


-সেন্ট জিরোমি


 


 


নামাজ বেহেশতের চাবি এবং অজু নামাজের চাবি।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
নূরিয়া পাইলট উবির ১৩০ বর্ষপূর্তি ও পুনর্মিলনী রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম উদ্বোধন
শৈশবের স্মৃতি মনে করলে প্রথমেই এ বিদ্যালয়ের নামটি মনে পড়ে
--------------আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ
বিমল চৌধুরী
১৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


জেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপীঠ চাঁদপুর নূরিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৩০ বর্ষপূর্তি ও প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের পুনর্মিলনী উদযাপন করার লক্ষ্যে প্রস্তুতিসভা ও রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রমের সূচনা করা হয়েছে। গত ১২ আগস্ট সকাল ১০ টায় বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক শামছুদ্দিন আহমদের সুযোগ্য সন্তান চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, শৈশবের কথা মনে পড়লে প্রথমেই এ বিদ্যালয়ের কথা মনে পড়ে। আমার মরহুম পিতাও ছিলেন এ বিদ্যালয়ের একজন আদর্শ শিক্ষক। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মিজানুর রহমান চৌধুরীও ছিলেন এ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র, যিনি এ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতাও করেছেন। এ বিদ্যালয়ের অনেক ছাত্রই দেশের গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন থেকে সততার সাথে তাদের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন, যা ভাবলে গর্বে বুকটা ভরে উঠে। আমার প্রাণপ্রিয় বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হবে, আমরা কিছু সময়ের জন্যে হলেও শৈশবের বন্ধুদের সাথে একত্রিত হতে পারবো, যা ভাবতেই বড় আনন্দ লাগছে।



তিনি আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আয়োজন হতে হবে সুন্দর। শৃঙ্খলাবোধ থাকতে হবে প্রতিটি কার্যক্রমে। প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের কেউই যেন এ আনন্দ উৎসব থেকে বাদ না যান, সে ব্যাপারে তিনি উদ্যাপন পরিষদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তিনি বিদ্যালয়ের ঐতিহ্য তুলে ধরে বলেন, যে সময়ে এ প্রতিষ্ঠানটি গড়ে উঠে সে সময়ে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠা ছিল খুবই কষ্টসাধ্য ব্যাপার। তখন এ শহরে হাতে গোণা যে ২/১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছিল এর মধ্যে নূরিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় একটি। তিনি বিদ্যালয়ের অবকাঠামো উন্নয়নের বিষয়ে বলেন, আগামী ৫ বছরে জেলার কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোর ভগ্নদশা থাকবে না। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপুমনি সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোর উন্নয়ন করবেন। এ বিদ্যালয়ের অবকাঠামোরও উন্নয়ন হবে।



১৩০ বর্ষপূর্তি ও পুনর্মিলনী উদ্যাপন পরিষদের আয়োজনে প্রস্তুতিসভায় সভাপ্রধানের দায়িত্বপালন করেন উদ্যাপন পরিষদের আহ্বায়ক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র আলহাজ্ব মোস্তাক হায়দার চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উদ্যাপন পরিষদের সদস্যসচিব প্রাক্তন ছাত্র জাহাঙ্গীর হোসেন। প্রাক্তন ছাত্র ব্যাংক কর্মকর্তা রফিক আহমেদ মিন্টুর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবু তাহের তফাদার, পুরাণবাজার কলেজ প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের পুনর্মিলনী উদ্যাপন পরিষদের আহ্বায়ক হাসান ইমাম বাদশা, যুগ্ম আহ্বায়ক রেজাউল করিম বিপ্লব, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র অ্যডঃ গোলাম মাওলা, নুরুল ইসলাম মিজি, মুক্তিযোদ্ধা ব্যাংকার মজিবুর রহমান, মুকবুল হোসেন মিয়াজী, মোঃ হাবিবুর রহমান, আব্দুল বাতেন মিয়াজী, নকীবুল ইসলাম চৌধুরী, মোঃ সেলিম মিজি, আলমগীর হোসেন, মোঃ নজরুল ইসলাম, বাবুল মাঝি, ফরিদ বেপারী, মোঃ আব্দুর রশিদ প্রমুখ। পুনর্মিলনী উদ্যাপনের সুবিধার্থে কয়েকটি উপ-কমিটি গঠন করা হয়। রেজিস্ট্রেশন উপ-কমিটির আহ্বায়ক ব্যাংকার মুজিবুর রহমান, সদস্য সচিব আব্দুল বাতেন মিয়াজী, দপ্তর উপ-কমিটির আহ্বায়ক আনোয়ার হোসেন মিজি, সদস্য সচিব মোঃ নজরুল ইসলাম, অর্থ উপ-কমিটির আহ্বায়ক কামাল উদ্দিন সর্দ্দার, সদস্য সচিব বাহার চৌধুরী, প্রচার উপ-কমিটির আহ্বায়ক আব্দুর রশিদ খান, সদস্য সচিব আর কে রাজু। পুনর্মিলনী উদ্যাপনের নির্দিষ্ট তারিখ নির্ধারণ করা না হলেও ডিসেম্বরের কোনো এক সময় তা উদ্যাপিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।



 



 



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৮২৫৮৮০
পুরোন সংখ্যা