চাঁদপুর, শুক্রবার ১২ জুলাই ২০১৯, ২৮ আষাঢ় ১৪২৬, ৮ জিলকদ ১৪৪০
jibon dip
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৩-সূরা নাজম


৬২ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


 


assets/data_files/web

মনের যাতনা দেহের যাতনার চেয়ে বেশি। -উইলিয়াম হ্যাজলিট।


 


ন্যায়পরায়ণ বিজ্ঞ নরপতি আল্লাহর শ্রেষ্ঠ দান এবং অসৎ মূর্খ নরপতি তার নিকৃষ্ট দান।


 


ফটো গ্যালারি
মতলবে ছেলেধরা সন্দেহে এক ব্যক্তিকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ
রেদওয়ান আহমেদ জাকির ও মুহাম্মদ আরিফ বিল্লাহ
১২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

মতলব দক্ষিণে ছেলেধরা সন্দেহে আমির হোসেন নামে একজনকে আটক করেছে স্থানীয় জনতা। গতকাল ১১ জুলাই আনুমানিক বেলা ১২টায় উপজেলার খিদিরপুর গ্রামে খিদিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে মতলব দক্ষিণ থানার পুলিশ বিক্ষুব্ধ জনতার রোষানল থেকে আটককৃত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। আটককৃত আমির হোসেন মতলব দক্ষিণ উপজেলার নবকলস এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, গতকাল বেলা ১২টায় উপজেলার খিদিরপুর গ্রামের হানিফ বকাউলের মেয়ে খিদিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী হাসনা আক্তার বিদ্যালয়ে গিয়ে আমির হোসেনকে দেখে ভয় পেয়ে দৌড়ে বাড়ি চলে যায় এবং তার মাকে অপরিচিত লোকের কথা জানায়। তাৎক্ষণিক হাসনার মা বিষয়টি আশপাশের লোকদের জানালে লোকজন গিয়ে আমির হোসেনকে খিদিরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের দোকানের কাছ থেকে আটক করে।

পরে আটককৃত আমির হোসেনকে নারায়ণপুর বাজার এলাকায় নিয়ে আসলে ছেলেধরার গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এসময় সেখানে অনেক লোক সমবেত হয়। খবর পেয়ে মতলব দক্ষিণ থানা অফিসার ইনচার্জ একেএমএস ইকবালসহ সঙ্গীয় ফোর্স আমির হোসেনকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, প্রকৃতপক্ষে উদ্ধারকৃত লোকটি মধুর চাক কাটে। মানুষের মাঝে বর্তমানে যে ছেলেধরা আতঙ্ক বিরাজ করছে লোকটি এমনই গুজবের শিকার।

আজকের পাঠকসংখ্যা
১৯৩১৫২
পুরোন সংখ্যা