চাঁদপুর। সোমবার ২৮ মে ২০১৮। ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫। ১১ রমজান ১৪৩৯
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৮-সূরা ছোয়াদ

৮৮ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৬। তারা বলে, হে আমাদের পরওয়ারদেগার, আমাদের প্রাপ্য অংশ হিসাব দিবসের আগেই দিয়ে দাও।

১৭। তারা যা বলে তাতে আপনি সবর করুন এবং আমার শক্তিশালী বান্দা দাউদকে স্মরণ করুন। সে ছিল আমার প্রতি প্রত্যাবর্তনশীল।

১৮। আমি পর্বতমালাকে তার অনুগামী করে দিয়েছিলাম, তারা সকাল-সন্ধ্যায় তার সাথে পবিত্রতা ঘোষণা করত;   

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


ঈশ্বরের পরবর্তী স্থানই হল পিতামাতার   

 -উইলিয়াম পেন।


নারী পুরুষের যমজ অর্ধাঙ্গিনী 


ফটো গ্যালারি
এবার মতলব দক্ষিণে বন্দুকযুদ্ধে মারা গেলো মাদক ব্যবসায়ী চার পুলিশ সদস্য আহত
রেদওয়ান আহমেদ জাকির
২৮ মে, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কচুয়ার পর এবার মতলব দক্ষিণে। এ উপজেলায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে উপাদী উত্তর এলাকার সেলিম (৩৭) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। গতকাল ২৭ মে ভোর রাত পৌনে তিনটার দিকে মতলব-বাবুরহাট-পেন্নাই সড়কের হাজীর ডোনের বালুর মাঠ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।



থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মাদক ব্যবসায়ী সেলিমের বিরুদ্ধে ৭টি মাদক ও অপহরণ মামলা রয়েছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক ব্যবসায়ী সেলিমের উপাদী ইউনিয়নের বাড়িতে মতলব দক্ষিণ থানা ও ডিবি পুলিশের একটি যৌথ দল অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। তার কাছ থেকে ১শ' ১০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায়, আটক সেলিমকে নিয়ে থানায় যাওয়ার সময় পথিমধ্যে মতলব-বাবুরহাট-পেন্নাই সড়কের হাজীর ডোনের বালুর মাঠ এলাকায় পেঁৗছলে সেলিমের সহযোগীরা পুলিশের গাড়ির গতিরোধ করে তাদের উপর গুলি ও হামলা চালালে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে তাদের সাথে বন্দুকযুদ্ধ বেঁধে যায়। পুলিশ এ সময় ১০ রাউন্ড গুলি ব্যবহার করলে ক্রসফায়ারে মাদক ব্যবসায়ী সেলিম গুলিবিদ্ধ হয়। আহতাবস্থায় তাকে মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্মরত চিকিৎসকগণ তাকে মৃত ঘোষণা করেন।



উপাদী উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শহীদ উল্লাহ প্রধান জানান, সেলিম প্রকৃত পক্ষে একজন মাদক ব্যবসায়ী। মাদক ব্যবসায়ী সেলিমের মৃত্যুতে এলাকার যুব সমাজের উপকার করেছে। তার মৃত্যুতে এলাকাবাসীর মধ্যে স্বস্তি ফিরে পেয়েছে।



মতলব দক্ষিণ থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ ইব্রাহিম খলিল জানান, বন্দুকযুদ্ধে পুলিশের এসআই চৌধুরী আলম, এএসআই অহিদ উল্লাহ, নজরুল ইসলাম ও কনস্টেবল ছোটন সূত্রধর আহত হন। আহতরা মতলব দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মতলব দক্ষিণ থানার অফিসার ইনচার্জ কুতুব উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এছাড়া সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে ৪ রাউন্ড গুলি, ৬ রাউন্ড কার্তুজ, ১শ' ১০ পিচ ইয়াবা ও দুটি দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।



নিহত সেলিমের বাড়ি মতলব দক্ষিণ উপজেলার ৬নং উপাদী উত্তর ইউনিয়নে। তার পিতার নাম সালামত উল্লাহ প্রধান। নিহতের ২ ছেলে ও ১ কন্যা সন্তান রয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় ৭টি মাদক মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে পুলিশের সাথে মাদক ব্যবসায়ীর বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহতের ঘটনা উপজেলায় ছড়িয়ে পড়লে অন্যান্য মাদক ব্যবসায়ী গা ঢাকা দিয়েছে এবং এলাকায় স্বস্তি ফিরে এসেছে বলে একাধিক এলাকাবাসী জানায়।



নিহত সেলিমের লাশ ময়না তদন্ত শেষে বিকেল ৫টায় তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়। পরে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২২৪৪১০
পুরোন সংখ্যা