চাঁদপুর, রোববার ২৫ অক্টোবর ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
৬২টি পদের মধ্যে ৩৪টি পদই শূন্য
জনবল সংকটে ভুগছে ফরিদগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিস স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত
নূরুল ইসলাম ফরহাদ
২৫ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


জনবল সংকটে ভুগছে ফরিদগঞ্জ উপজেলা কৃষি বিভাগ। যার কারণে দৈনন্দিন স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। অব্যবস্থাপনার কারণে দীর্ঘ চার মাস অপেক্ষা করেও সাধারণ কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অধীনস্থ হলেও তার কথাকে উপেক্ষা করে তথ্য প্রদানে অক্ষমতার কথা জানান কৃষি বিভাগ। কারণ হিসেবে দেখাচ্ছেন সিস্টেম নেই এবং জনবল সংকট। তথ্য না থাকার কারণে কৃষি বিভাগের অনেক কিছুই জানা সম্ভব হচ্ছে না। ব্যাহত হচ্ছে ফরিদগঞ্জ অঞ্চলের 'কৃষি' নিয়ে গবেষণা কার্যক্রমে।



ফরিদগঞ্জ অঞ্চলকে শস্য ভা-ারে রূপান্তর করতে দেশ স্বাধীনের পরপরই এখানে সিআইপি বেড়িবাঁধ নির্মাণ করা হয়। সেচ প্রকল্পের মাধ্যমে এ অঞ্চলে ধানের পাশাপাশি সবজিও চাষ হয়। এক সময় সফলতাও আসে। কিন্তু সরকার এবং কৃষি বিভাগের অবহেলায় তা আজ মুখ থুবড়ে পড়ছে।



ফরিদগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসে সর্বমোট ৬২টি পদের মধ্যে ৩৪টি পদই শূন্য রয়েছে। জনবলের অপ্রতুলতার কারণে অফিস ও মাঠ পর্যায়ের বিভিন্ন কার্যক্রম সঠিকভাবে সম্পাদন করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। জনবল সংকটের কারণে কৃষকের দোরগোড়ায় সেবা পেঁৗছানো কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। ফলে ১জন অফিসারকে একাধিক দায়িত্ব পালন করা যেমনটা কষ্টসাধ্য বিষয়, তেমনি সেবা বঞ্চিত হচ্ছেন উপজেলার বেশির ভাগ কৃষক।



ফরিদগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, অফিসে সর্বমোট মঞ্জুরীকৃত পদ রয়েছে ৬২টি। এর মধ্যে বর্তমানে কর্মরত রয়েছেন ২৮জন। এর মধ্যে অতিরিক্ত কৃষি অফিসার ১জন, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার ২জন, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ২৭ জন, উচ্চমান সহকারী বনাম হিসাব রক্ষক ১জন, অফিস সহকারী বনাম মুদ্রাক্ষরিক ১জন, নিরাপত্তা কর্মী ২জনসহ মোট ৩৪টি পদে জনবল নেই।



এই পদের কাজগুলো করতে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের। কৃষি অফিসে কৃষক কার্ড থেকে শুরু করে সার, বীজ, কৃষি উপকরণসহ বিবিধ মালামাল কৃষকের মধ্যে বিতরণের সময় হিমশিম খেতে হয় প্রতিনিয়ত।



১৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত ফরিদগঞ্জ উপজেলা। ভূমি ব্যবস্থাপনা, বীজ, সার, কীটনাশক, ফসলের রোগবালাই, পোকা-মাকড়, ইঁদুর নিধনসহ উন্নত ফলনশীল জাতের ফসল উৎপাদনে কৃষকদেরকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে কৃষি বিভাগ। কিন্তু চরম জনবল সংকটে এ সেবামূলক প্রতিষ্ঠানটির সুফল ভোগ করতে পারছেন না উপজেলার কৃষক পরিবারগুলো। ফলে ফসল উৎপাদনে নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন কৃষক।



ফরিদগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ আশিক জামিল মাহমুদ জানান, ৬২টি পদের মধ্যে ৩৪টি পদই শূন্য রয়েছে দীর্ঘদিন। জনবল সংকট থাকার কারণে প্রতিদিন অফিস সময়ের বাইরে কাজ করতে হচ্ছে। তারপরও কৃষক উন্নত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। কেন না ৬২ জনের কাজতো ২৮ জন করতে পারে না।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৯-সূরা নাযি 'আত


৪৬ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৫। অতঃপর যাহারা সকল কর্ম নির্বাহ করে।


৬। সেই দিন প্রথম শিংগাধ্বনি প্রকম্পিত করিবে,


৭। উহাকে অনুসরণ করিবে পরবর্তী শিংগাধ্বনি,


৮। কত হৃদয় সেই দিন সন্ত্রস্ত হইবে,


 


 


যারা কখনো ক্ষতিগ্রস্ত হতে চায় না, তারা কোনোদিন লাভবান হতে পারে না।


-ডেভিড জেফারসন।


 


 


 


 


কাউকে অভিশাপ দেওয়া সত্যপরায়ণ ব্যক্তির উচিত নয়।


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৪,৩৬,৬৮৪ ৫,৫৪,২৮,৫৯৬
সুস্থ ৩,৫২,৮৯৫ ৩,৮৫,৭৮,৭০৩
মৃত্যু ৬,২৫৪ ১৩,৩৩,৭৭৮
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৯৯৩৩৮
পুরোন সংখ্যা