চাঁদপুর, শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ মহররম ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৯-সূরা নাযি 'আত


৪৬ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১৩। ইহা তো কেবল এক বিকট আওয়াজ,


১৪। তখনই ময়দানে উহাদের আবির্ভাব হইবে।


১৫। তোমার নিকট মূসার বৃত্তান্ত পৌঁছিয়াছে কি?


১৬। যখন তাহার প্রতিপালক পবিত্র উপত্যকা তুওয়া-য় তাহাকে আহ্বান করিয়া বলিয়াছিলেন,


 


 


assets/data_files/web

সৌভাগ্য এবং প্রেম নির্ভীকের সঙ্গ ত্যাগ করে।


-ওভিড।


 


 


যে ব্যক্তি আল্লাহ ও পরকালে বিশ্বাস করে (অর্থাৎ মুসলমান বলে দাবি করে) সে ব্যক্তি যেন তার প্রতিবেশীর কোনো প্রকার অনিষ্ট না করে।


 


ফটো গ্যালারি
৩০ বাড়ির গ্রামে ২১ বাড়িসহ কৃষি জমি ৮ মাস পানিতে ডুবে থাকে
কামরুজ্জামান টুটুল
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


হাজীগঞ্জের বাকিলা ইউনিয়নের বাকিলা গ্রাম। ৩০টি বাড়ি নিয়ে গঠিত বাকিলা গ্রামের ২১টি বাড়িসহ এই গ্রামের কৃষি জমিগুলো বছরের ৮ মাস পানিতে ডুবে থাকে। গ্রামের চারদিক দিয়ে নতুন নতুন বাড়ি আর নতুন রাস্তা হওয়ায় এমনটি হয়েছে বলে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন। পানির বন্দীদশা থেকে মুক্তি পেতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোসহ কৃষকরা ইতিমধ্যে ইউএনও এবং কৃষি কর্মকর্তার নিকট গণস্বাক্ষরসহ লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।



সরেজমিনে দেখা যায়, বাকিলা গ্রামের দক্ষিণে চাঁদপুর-লাকসাম রেলপথ, উত্তরে চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়ক, পশ্চিম পাশে বাকিলাবাজার ও চাঁদপুর সদর উপজেলার মধ্যে লিংকপাকা সড়ক আর পূর্বে বাকিলা গরুরবাজার হয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলার সংযোগ রক্ষাকারী পাকা সড়ক। গ্রামের চারদিক দিয়ে এই পাকা সড়কগুলো থাকায় গ্রামের বেশির ভাগ কৃষি মাঠের পানি মোটেই নামতে পারে না। যার কারণে কৃষি ফলন উৎপাদন হচ্ছে না প্রায় ১ দশক ধরে। করুণ অবস্থার শিকার এই গ্রামের বাড়িরগুলোর নারী-পুরুষসহ রোগী কিংবা শিক্ষার্থীরা। এই সকল বাসিন্দাকে বাড়ির বাইরে যেতে হলে বছরের ৮ মাস পানি সাঁতরে বাড়ি থেকে বেরুতে হয়।



স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, গ্রামে জমে থাকা পানি নিষ্কাশনের জন্যে স্থায়ী ব্যবস্থা এক দশক আগেও ছিলো।



গ্রামের পশ্চিম পাশে পাকা রাস্তা সংলগ্ন বাবুল দাসের বাড়ির উত্তর পাশ দিয়ে পুরানো কালভার্ট ধরে একটা ড্রেন করে পশ্চিম দিকে পানি নামিয়ে দিলে রেলের সেতু দিয়ে পানি ডাকাতিয়ায় চলে যাবে। পাশের রেলের মাইল ঘরের দক্ষিণ পাশ দিয়ে অল্প একটু স্থানের মাটি সরিয়ে দিলে পশ্চিম দিকে পানি নামার পথ করে দিলে জলাবদ্ধতা নিরসন করা সম্ভব।



স্থানীয়রা আরও জানান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমানের বাড়ির দক্ষিণ পাশের পুরানো কালভার্টটি সংস্কার করে দিলেও পানি নামার পথ তৈরি হবে।



অপরদিকে বাকিলা ফাযিল ডিগ্রি মাদ্রাসার পেছনে থাকা পুরানো কালভার্টটি সংস্কার করে দিলে পানি নামার পথ হবে। এভাবে উপরোক্ত প্রক্রিয়াগুলোর একটি প্রক্রিয়া ধরে ব্যবস্থা নিলে এই গ্রামের কৃষিজমির পাশাপাশি ২১ বাড়ির কয়েকশ পরিবার জলাবদ্ধতা থেকে স্থায়ীভাবে রক্ষা পাবে।



স্থানীয় বাসিন্দা ও স্কুলশিক্ষক আরাফাত হোসেন অপু জানান, বাড়ি থেকে বেরুলে পানি। এই পানির জন্যে ভালো শার্ট-প্যান্ট পরে বেরুতে পারি না।



বাকিলাবাজারের গ্রীল-সার্টার ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন জানান, বাড়ির চারদিকে বছরের প্রায় ৮ মাস পানি জমে থাকার কারণে সারাক্ষণ সন্তানদের নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগি। আল্লাহ না করুক, এই বুঝি বাচ্চাটা পানিতে পড়ে গেলো।



ভুক্তভোগী গাজী বাড়ির সলেমান গাজীর ছেলে বিল্লাল গাজী জানান, আমাদের গ্রামে প্রায় ২শ' একর কৃষি জমি রয়েছে। বেশ কয়েক বছর ধরে বছরের অধিকাংশ সময় জমিগুলো পানির নিচে তলিয়ে থাকে বিধায় কোনো ফসল করা সম্ভব হয়ে উঠে না।



বাকিলা গ্রামের ২১ বাড়িসহ প্রায় ২শ' একর কৃষিজমির স্থায়ী জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্যে স্থানীয়রা গণস্বাক্ষর সম্বলিত একটি অভিযোগ দিয়েছেন। সেই বিষয়ে কী ব্যবস্থা নিবেন এমন প্রশ্নে বাকিলা কৃষি বস্নকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, স্থানীয়দের সহযোগিতায় পানি নামার পুরানো পথের যে কোনো একটি পথ সংস্কার করে দিলে আশা করি তা সমাধান হয়ে যাবে। অপর এক প্রশ্নে এই কর্মকর্তা বলেন, আমি ছুটিতে রয়েছি, অফিসে গিয়েই সেখানে যাবো।



বাকিলা গ্রামের বহু বাড়িসহ কৃষিজমি পানিতে তলিয়ে থাকে আর এ-সংক্রান্ত স্থানীয়দের দেয়া অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়া বলেন, এ বিষয়ে দ্রুত একটা ব্যবস্থা নেয়া হবে।


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৮৭,২৯৫ ৩,৯৬,৩৮,১৮৮
সুস্থ ৩,০২,২৯৮ ২,৯৬,৭৮,৪৪৬
মৃত্যু ৫,৬৪৬ ১১,০৯,৮৩৮
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৫১৭৩৪
পুরোন সংখ্যা