চাঁদপুর, রোববার ৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জিলকদ ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭১-সূরা নূহ্


২৮ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


 


১৩। তোমাদের কী হইয়াছে যে, তোমরা আল্লাহর শ্রেষ্ঠত্ব স্বীকার করিতে চাহিতেছ না!


১৪। অথচ তিনিই তোমাদিগকে সৃষ্টি করিয়াছেন পর্যায়ক্রমে,


 


 


সবচেয়ে ছোট আনন্দগুলো সবচেয়ে মধুর।


-ফারকুহার।


 


 


 


পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অঙ্গ।


 


ফটো গ্যালারি
নতুন আরো ৩২ জনের করোনা শনাক্ত জুলাইতেই দুই হাজার ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা!
চাঁদপুরে সব কিছুই চলছে ফ্রি স্টাইলে
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
০৫ জুলাই, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চলতি জুলাই মাসের শুরু থেকেই প্রতিদিন যেভাবে ৩০-৪০ জন করে করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে, তাতে বুঝা যাচ্ছে এই এক মাসেই আক্রান্তের সংখ্যা আরো এক হাজার হয়ে যাবে। আক্রান্তের সংখ্যা দৌড়ের অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে এ মাসেই রোগীর সংখ্যা দুই হাজার ছাড়িয়ে যাবে। আর মানুষ এখন স্বাস্থ্য বিধির তেমন কিছুই মানছে না। সব কিছুই ফ্রি স্টাইলে চলছে। সামাজিক দূরত্বের কোনো বালাই নেই। এমনকি মাস্কও অনেকে পরছে না। এমন পরিস্থিতির কারণেই সামনে আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করার আশঙ্কা করা হচ্ছে।



চাঁদপুরে প্রথম করোনা শনাক্ত হওয়ার দিন থেকে গত শুক্রবার পর্যন্ত প্রায় তিন মাসে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হয়েছে ১ হাজার ৩ জন। গতকাল নতুন করে আরো ৩২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বর্তমানে আক্রান্তের হারের দৌড়ের অবস্থা দেখে বুঝা যাচ্ছে, নতুন করে আরো এক হাজার পূর্ণ হতে তিন মাস নয়, এক মাস সময়ও হয়ত লাগবে না। চলতি জুলাই মাসের প্রথমদিন ১৬৩ জনের রিপোর্টের মধ্যে পজিটিভ ছিল ৪৫ জনের। এমনিভাবে ২ জুলাই ৮৮ জনের রিপোর্টের মধ্যে পজিটিভ ছিল ৫৩ জনের, ৩ জুলাই ১৩২ রিপোর্টের মধ্যে আক্রান্ত ছিল ৩১ জন, আর গতকাল ১২০ জনের রিপোর্টের মধ্যে আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট এসেছে ৩২ জনের। চারদিনেই করোনা পজিটিভ এসেছে ১৬১ জনের। যা গড়ে প্রতিদিন ৪০ জন করে। এভাবেই যদি চলতে থাকে তাহলে জুলাই মাসেই ১২শ' হয়ে যাবে করোনা রোগীর সংখ্যা। যেখানে পূর্বে হাজার সংখ্যা পূর্ণ হয়েছে প্রায় তিন মাসে, সে জায়গায় এখন নতুন করে আরো এক হাজার পুরতে এক মাস সময়ও লাগবে না। এভাবে জ্যামিতিক হারে বাড়তে থাকায় চাঁদপুর জেলাবাসী তথা সচেতন জনগণ আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছে।



এদিকে মানুষ এখন নিয়ম কানুনের কোনো কিছুই মানছে না। পজিটিভ রিপোর্ট আসার পরও সে ব্যক্তি বাজার, মসজিদ, পাড়া-মহল্লা, চায়ের দোকান সর্বত্র বিচরণ করছে ফ্রি স্টাইলে। শহর কি গ্রাম মানুষ যেভাবে চলাফেরা করছে, তাতে সামাজিক দূরত্বের ছিটেফোঁটাও লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ এবং পরিধান করিয়ে দেয়ার পরও দেখা যাচ্ছে যে অনেকেই মাস্ক ছাড়াই অবাধ বিচরণ করছে। বর্তমানে শহর, উপ-শহর, গ্রামসহ সব জায়গার অবস্থা সম্পূর্ণ পূর্বের ন্যায় একেবারেই স্বাভাবিক। মানুষের মাঝে করোনা ভাইরাসের ভয়ভীতির কোনো ছিটেফোঁটাও লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এমন অবস্থা যদি চলতে থাকে তাহলে পরিস্থিতি সামনে আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করার আশঙ্কা করা হচ্ছে।



গতকাল শনিবার চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ১শ' ২০ জনের রিপোর্ট আসে। এর মধ্যে পজিটিভ রিপোর্ট আসে ৩২ জনের। নেগেটিভ ৮৮ জনের। পজিটিভ ৩২ জনের উপজেলা ভিত্তিক সংখ্যা হচ্ছে : চাঁদপুর সদর ১০, হাজীগঞ্জ ৪, মতলব দক্ষিণ ৪, ফরিদগঞ্জ ৯, শাহরাস্তি ২ ও কচুয়ায় ৩ জন।



সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে আরো জানা যায়, গতকাল পর্যন্ত চাঁদপুর থেকে স্যাম্পল গিয়েছে ৪ হাজার ৮শ' ৫৫ জনের। এ পর্যন্ত রিপোর্ট এসেছে ৪ হাজার ৬শ' ৭ জনের। রিপোর্ট পেন্ডিং রয়েছে ২শ' ৪৮ জনের। এ পর্যন্ত আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হচ্ছে ১ হাজার ৩৫ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৩শ' ৬৩ জন। গতকাল ১ দিনেই ১৪ জনকে সুস্থ ঘোষণা করা হয়। আক্রান্তদের মধ্যে মৃত রয়েছে ৬২ জন। বাদবাকী ৬শ' ১০ জন চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।



এদিকে গতকাল পর্যন্ত জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে যে ৬২ জনের মৃত্যুর তথ্য জানা গেছে। উপজেলা ভিত্তিক এ সংখ্যা হচ্ছে : চাঁদপুর সদর ১৮, ফরিদগঞ্জ ৭, হাজীগঞ্জ ১৬, শাহরাস্তি ৪, কচুয়া ৫, মতলব উত্তর ৮, মতলব দক্ষিণ ৩ ও হাইমচর ১জন।



 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ২,৫৫,১১৩ ১,৯৫,৬২,২৩৮
সুস্থ ১,৪৬,৬০৪ ১,২৫,৫৮,৪১২
মৃত্যু ৩৩৬৫ ৭,২৪,৩৯৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৪২৪৯২
পুরোন সংখ্যা