চাঁদপুর, শুক্রবার ৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১১ জিলকদ ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
খেলতে গিয়ে পা ভেঙ্গে ভবিষ্যৎ অন্ধকার ফরিদগঞ্জের প্রতিভাবান গোল কিপার হৃদয়ের
সুচিকিৎসায় আর্থিক সহায়তার আহ্বান
প্রবীর চক্রবর্তী
০৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


খেলতে গিয়ে আহত হওয়া চাঁদপুর জেলা অনূর্ধ্ব-১৭ দল ও ফরিদগঞ্জ উপজেলা ফুটবল দলের হয়ে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখা ফুটবলার হৃদয়ের দু'চোখে আজ অন্ধকার। ক'দিন পূর্বে একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ খেলতে গিয়ে তার পায়ের হাড় ভেঙে যায়। মারাত্মক আহত অবস্থায় তাকে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে এনে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।



তার বাবা শ্যামল দাস ও ফরিদগঞ্জ স্পোর্টস্ ক্লাবের আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দীন জানান, গত ক'দিন আগে পাইকপাড়ায় উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ খেলতে গিয়ে তার একটি পায়ের মূল দুটি হাড় ভেঙ্গে যায়। তাৎক্ষণিক তাকে চাঁদপুরে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসে। চিকিৎসক বলেছেন, হৃদয়কে সুস্থ বা তার আগের অবস্থানে আনতে হলে উন্নত চিকিৎসার জন্যে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে অপারেশন করতে হবে। এতে তার সু-চিকিৎসার জন্য প্রায় লক্ষাধিক টাকা প্রয়োজন। তার দরিদ্র বাবার পক্ষে এ টাকা জোগাড় করা সম্ভব নয়।



ফরিদগঞ্জ স্পোর্টস্ ক্লাবের আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দীন জানান, হৃদয়কে আবার খেলায় ফিরাতে হলে সু-চিকিৎসার প্রয়োজন। অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে না পারলে দেশের ফুটবল অঙ্গনে অবদান রেখে চলা ফরিদগঞ্জের রেজাউল রেজা, রাফির মতো হয়ে ওঠা অনেকটা ধূসর হৃদয়ের জন্যে।



উল্লেখ্য, ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার শ্যামল দাসের ছেলে হৃদয় দাস এ বছর (২০২০) এইএসসি পরীক্ষা দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু অনূর্ধ্ব-১৭ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট খেলার জন্যে বেশ কিছু সময় পড়ালেখা থেকে দূরে থাকায় সে পরীক্ষার ফরম পূরণ করতে পারে নি। তার পিতা বাঁশ দিয়ে কুলা তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করে। হৃদয় ছোটকাল থেকে ফুটবল পাগল। প্রাথমিক পর্যায়ে তার ভালো ফুটবল খেলা দেখে তার দরিদ্র বাবা ছেলেকে ভালো ফুটবলার হিসেবে দেখার স্বপ্ন জাগে। খেয়ে না খেয়ে পড়ালেখার পাশাপাশি ছেলেকে ফুটবল খেলার উৎসাহ জুগিয়েছে তার হতদরিদ্র বাবা। হাইস্কুল পর্যায়ে এসে হৃদয় বাবার স্বপ্ন পূরণের চেষ্টা শুরু করে। আন্তঃস্কুল ফুটবলে উপজেলা, জেলা ও পরে অঞ্চলেও কৃতিত্বের ছাপ রেখে বিভাগীয় পর্যায়ে চলে যায়। তার ভালো ফুটবলার হওয়ার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা বেশি রেখেছে ফরিদগঞ্জ স্পোর্টস্ ক্লাব। পরে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার ফুটবল দলের গোলকিপার হয়ে জেলা পর্যায়ে বিভিন্ন উপজেলার বিরুদ্ধেও খেলে সে ভালো সুনাম বয়ে আনে।



এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নুরুন্নবী নোমান জানান, প্রতিভাবান এই গোলকিপারকে সুস্থ করতে ক্রীড়াপ্রেমীদের এগিয়ে আসতে হবে। নচেৎ শেষ হয়ে যাবে তার ভবিষ্যৎ।



ফরিদগঞ্জ স্পোর্টস্ ক্লাবের মাধ্যমে ফরিদগঞ্জ উপজেলার বিত্তশালীদের কাছে হৃদয়ের সু-চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা চেয়েছে তার পরিবার ও সংগঠনটি। সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক জিয়া (০১৭১৭৭৩৯৪৭২) ও আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দীন (০১৮১৮৯৩৩১৭৮) এই দুটি বিকাশ নাম্বারে সহায়তাকারীদের পরিচয় দিয়ে আর্থিক সহায়তা পাঠানোর অনুরোধ জানিয়েছেন।


হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২-সূরা বাকারা


২৮৬ আয়াত, ৪০ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


যে ব্যক্তি মানুষকে দয়া করে না, আল্লাহও তাকে দয়া করে না।


 


৭২। স্মরণ কর, যখন তোমরা এক ব্যক্তিকে হত্যা করিয়াছিলে এবং একে অন্যের প্রতি দোষারোপ করিতেছিলে_ তোমরা যাহা গোপন রাখিতেছিলে আল্লাহ তাহা ব্যক্ত করিতেছেন।


 


 


 


assets/data_files/web

 


সমাজতন্ত্র আধুনিক বিশ্বের মুক্তি সনদ।


_আবু জাফর শামসুদ্দিন।


 


 


 


যে ব্যক্তি মানুষকে দয়া করে না, আল্লাহও তাকে দয়া করে না।


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৭,৫১,৬৫৯ ১৬,৮০,১৩,৪১৫
সুস্থ ৭,৩২,৮১০ ১৪,৯৩,৫৬,৭৪৮
মৃত্যু ১২,৪৪১ ৩৪,৮৮,২৩৭
দেশ ২০০ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৭৩৮৭২
পুরোন সংখ্যা