চাঁদপুর, বুধবার ০৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুরে আরো ১২ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ১৫৯
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৯-সূরা হাক্কা :


৫২ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


১৬। এবং আকাশ বিদীর্ণ হইয়া যাইবে আর সেই দিন উহা বিশ্লিষ্ট হইয়া পরিবে।


১৭। ফিরিশ্তাগণ আকাশের প্রান্তদেশে থাকিবে এবং সেই দিন আটজন ফিরিশ্তা তোমার প্রতিপালকের আরশকে ধারণ করিবে তাহাদের ঊধর্ে্ব।


 


assets/data_files/web

বেদনা হচ্ছে পাপের শাস্তি।


-বুদ্ধদেব।


 


 


স্বভাবে নম্রতা অর্জন কর।


 


নারায়ণগঞ্জসহ আশপাশের জেলা থেকে মানুষ ঢুকে পড়া ঠেকাতে না পারলে চাঁদপুর ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যাবে
চতুর্দিকে কড়া নজরদারি রয়েছে : জেলা প্রশাসক  নদীতে ২৪ ঘণ্টা পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে : নৌ পুলিশ সুপার
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট ॥
০৮ এপ্রিল, ২০২০ ১৬:০৮:২৩
প্রিন্টঅ-অ+


দেশের মধ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যার দিক দিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জেলা হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ। তাই পুরো নারায়ণগঞ্জ যে কোনো সময় লকডাউন বা কারফিউ জারি হয়ে যেতে পারে এমন আশঙ্কায় নারায়ণগঞ্জ থেকে মানুষজন পালিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন জেলায়। তবে যোগাযোগব্যবস্থা ভালো এবং কাছে হওয়ায় নারায়ণগঞ্জ থেকে চাঁদপুরের দিকে আসছে বেশি। গত তিনদিনে এ জেলা থেকে ১৮/১৯ জন চলে এসেছে চাঁদপুরে। তবে এরা স্বাভাবিকভাবে আসেনি। এরা পালিয়ে এসেছে। কারণ এখন এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় আসা-যাওয়া নিষিদ্ধ। শুধু তাই নয়, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে এমন লোকের প্রতিবেশীও লকডাউনকে ফাঁকি দিয়ে চলে আসছে। তাই ঝুঁকির মুখে পড়ে যাচ্ছে চাঁদপুর। শুধু নারায়ণগঞ্জ নয়, মুন্সীগঞ্জ ও লক্ষ্মীপুর জেলা থেকেও কয়েকজন চাঁদপুর ঢুকে পড়েছে গত দুদিন।

এ বিষয়ে চাঁদপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ের বিশেষ শাখা থেকে জানা গেছে, গত ক’দিন আগে এখান থেকে নৌ পুলিশ সুপারের কাছে চিঠি দেয়া হয়েছে যেনো নৌপথে কড়া নজরদারি রাখা হয়। যাতে নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ থেকে কেউ চাঁদপুর ঢুকতে না পারে।

এ বিষয়ে গতকাল সন্ধ্যায় নৌ পুলিশ সুপার মোঃ জামশেদ আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি বিষয়টি জানার পর ২৪ ঘণ্টা নদী পাহারায় রাখছি। এরপরও হয়তো মালবাহী জাহাজে লুকিয়ে কেউ চলে আসতে পারে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমরা ইতিমধ্যে চাঁদপুর জেলার চতুর্দিকে কড়া নজরদারির ব্যবস্থা করেছি। স্থলপথ, সড়কসহ সব জায়গায় কড়া পাহারা বসানো হয়েছে। আশা করি অন্য জেলার কেউ এ জেলায় আর ঢুকতে পারবে না। আর যারা চলে এসেছে, সেসব বাড়ি এবং ঘরের বিষয়ে আমরা নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নিয়েছি।


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৬৬২১৪০
পুরোন সংখ্যা