চাঁদপুর, শনিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬, ৪ রজব ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
কচুয়ায় বাঁশের সাঁকো দিয়ে ১০ গ্রামের মানুষের চলাচল
ফরহাদ চৌধুরী
২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কচুয়া উপজেলার কচুয়া উত্তর ইউনিয়নের কড়ইয়া এলাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাঁশের সাঁকো দিয়ে ১০ গ্রামের মানুষ চলাচল করে আসছে। উপজেলার কড়ইয়া এলাকায় প্রবাহমান সুন্দীর খালের উপর নির্মিত বাঁশের সাঁকোটি দিয়ে কড়ইয়াসহ বরুচর, নাহারা, লতিফপুর, নোয়াগাঁও, নোয়াদ্দা, সিংআড্ডা ও পার্শ্ববর্তী চান্দিনা উপজেলার কালিয়ারচর, গল্লাই ও নাবাবপুর এলাকার ২০ সহস্রাধিক জনগণ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিনিয়ত চলাচল করছে। বাঁশের সাঁকো ব্যবহার করে ওই এলাকার কোমলমতী শিক্ষার্থীরা স্কুল কলেজে যাতায়াত করে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। ওই এলাকার বসবাসরত জনগণের কচুয়া, চান্দিনা, নবাবপুর, কুমিল্লা, চাঁদপুর ও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্নস্থানে যাতায়াতের পথে প্রধান অন্তরায় বহু বছর ধরে ব্যবহার করে আসা এই বাঁশের সাঁকো। যার ফলে এলাকার মানুষের প্রয়োজনীয় মালামাল পারাপারে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। চলাচলের অসুবিধার কারণে আধুনিকতার ও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি ওই এলাকার বসবাসরত সাধারণ জনগণের মাঝে। এলাকাবাসী যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট অচিরেই উক্ত স্থানে একটি পাকা ব্রীজ নির্মাণের দাবি জানান।



এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপায়ন দাস শুভ জানান, সরজমিনে পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৫-সূরা তালাক


১২ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২। উহাদের 'ইদ্দাত পূরণের কাল আসন্ন হইলে তোমরা হয় যথাবিধি উহাদিগকে রাখিয়া দিবে, না হয় উহাদিগকে যথাবিধি পরিত্যাগ করিবে এবং তোমাদের মধ্য হইতে দুইজন ন্যায়পরায়ণ লোককে সাক্ষী রাখিবে; আর তোমরা আল্লাহর জন্য সঠিক সাক্ষ্য দিবে। ইহা দ্বারা তোমাদের মধ্যে যে কেহ আল্লাহ ও আখিরাতে বিশ্বাস করে তাহাকে উপদেশ দেওয়া হইতেছে। যে কেহ আল্লাহকে ভয় করে আল্লাহ তাহার পথ করিয়া দিবেন।


 


 


 


ঘুম পরিশ্রমী মানুষকে সৌন্দর্য প্রদান করে।


-টমাস ডেককার।


 


 


 


 


নামাজ হৃদয়ের জ্যোতি, সদ্কা (বদান্যতা) উহার আলো এবং সবুর উহার উজ্জ্বলতা।


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৪,৩৬,৬৮৪ ৫,৫৪,২৮,৫৯৬
সুস্থ ৩,৫২,৮৯৫ ৩,৮৫,৭৮,৭০৩
মৃত্যু ৬,২৫৪ ১৩,৩৩,৭৭৮
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৪৭৩৭৬
পুরোন সংখ্যা