চাঁদপুর, শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মহররম ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৫-সূরা রাহ্মান


৭৮ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৭৫। সুতরাং তোমরা উভয়ে তোমাদের প্রতিপালকের কোন্ অনুগ্রহ অস্বীকার করিবে?


৭৬। উহারা হেলান দিয়া বসিবে সবুজ তাকিয়ায় ও সুন্দর গালিচার উপরে।


৭৭। সুতরাং তোমরা উভয়ে তোমাদের প্রতিপালকের কোন্ অনুগ্রহ অস্বীকার করিবে?


৭৮। কত মহান তোমার প্রতিপালকের নাম যিনি মহিমময় ও মহানুভব!


 


 


 


 


assets/data_files/web

হিংসা একটা দরজা বন্ধ করে অন্য দুটো খোলে।


-স্যামুয়েল পালমার।


 


 


কাহারো উপর অত্যাচার করা হইলে সে যদি সবর করিয়া চুপ থাকিতে পারে, আল্লাহ তাহার সম্মান বৃদ্ধি করিয়া দেন।


 


ফটো গ্যালারি
বাঘড়ায় জমজমাট মাদক ব্যবসা
সোহাঈদ খান জিয়া
২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর সদরের বাঘড়া বাজার এলাকায় মাদক ব্যবসা জমজমাট আকার ধারণ করেছে। দু উপজেলার সীমান্তে বাঘড়া বাজারের অবস্থান হওয়ায় প্রতিদিন সকাল হতে গভীর রাত পর্যন্ত এখানে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকাসক্তদের আনাগোনা বাড়ছে।



পেশাদার মাদকব্যবসায়ীরা উঠতি বয়সী কিশোর ও যুবকদের মাদক ব্যবসায় আকৃষ্ট করছে। তারা কিশোর ও যুবকদের দিয়ে মাদক পাচার ও বিক্রি করে। একটি সূত্র জানায়, বাঘড়া বাজারে মাদক বিক্রির একটি চক্র রয়েছে। সেখান থেকে বিভিন্ন দামের ৩ প্রকার ইয়াবা কিনতে পাওয়া যায়। এখান থেকে কিছু ক্রেতা প্রতিদিন ইয়াবা নিয়ে বিক্রি করে। কিছু ক্রেতা রয়েছে সপ্তাহে ২ দিন, সপ্তাহে ১ দিন আবার ১/২ দিন পরপর ইয়াবা ক্রয় করে। এভাবে দীর্ঘদিন চলে আসছে বাঘড়া বাজার এলাকায় রমরমা ইয়াবা ব্যবসা।



সূত্রমতে, বাঘড়া বাজার থেকে ইয়াবা ও মাদক নিয়ে বিক্রি করা এলাকাগুলো হচ্ছে : বাগাদী ইউনিয়নের নানুপুর, গাছতলা, পশ্চিম সকদী, সাহেববাজার, হাজরা, চাঁদপুর গ্রাম, রামচন্দ্রপুর, ঘাসিপুর, মকিমপুর, সোবানপুর, ব্রাহ্মন সাখুয়া, ঢালিরঘাট, বাগাদী, ফরিদগঞ্জের চান্দ্রাবাজার এলাকা, সেকদী, জামতলা, সকদী রামপুর, ধানুয়া ও নয়ারহাট। এসব এলাকার মাদক সেবনকারী ও খুচরা বিক্রেতারা বাঘড়ায় মাদক কিনতে প্রতিদিনই যাতায়াত করছে।



সেকদী এলাকার কজন মাদক ব্যবসায়ীর সহযোগিতায় বাঘড়া বাজার এলাকায় মাদক ব্যবসার জন্যে নিরাপদ স্থানে পরিণত হয়েছে। এর মূল কারণ বাঘড়া বাজারটি দুটি উপজেলার সীমান্তে অবস্থিত। পূর্বে এ বাজারে বিশাল একটি চক্রের সহযোগিতায় প্রতিদিন বড় অঙ্কের জুয়ার আসর চলতো। কিন্তু চাঁদপুর সদর উপজেলা প্রশাসনের কঠোর নজরদারিতে ওই জুয়ারি চক্রকে রাতের বেলায় আটক করা হয়। তারপর থেকে বাঘড়া বাজারে জুয়া বন্ধ হয়ে যায়। এখন আবার একটি চক্র মাদক ব্যবসার আস্তানা গড়ে তুলে আঙুল ফুলে কলাগাছ বনে যাচ্ছে। প্রশাসনের কিছু অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহযোগিতায় মাদক ব্যবসা করা হচ্ছে বলে বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানায়। বাঘড়ায় মাদক ব্যবসা এখনই নির্মূল করা না হলে হয়তো ভবিষ্যতে এদের নির্মূল করতে কষ্টকর হয়ে পড়বে। প্রভাবশালী চক্রের কারণে ভয়ে মাদক ব্যবসায়ীদের কেউ কিছু বলতে সাহস পায় না।



এ ব্যাপারে প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ একান্ত জরুরি বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩২২২৮৬
পুরোন সংখ্যা