চাঁদপুর, শুক্রবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৯ ভাদ্র ১৪২৬, ১৩ মহররম ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • শাহরাস্তিতে ডাকাতি মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত। || 
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৪-সূরা তাগাবুন


১৮ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১৫। তোমাদের সম্পদ ও সন্তান-সন্তুতি তো পরীক্ষা বিশেষ; আর আল্লাহ, তাঁহারই নিকট রহিয়াছে মহাপুরস্কার।


১৬। তোমরা আল্লাহকে যথাসাধ্য ভয় কর, এবং শোন, আনুগত্য কর ও ব্যয় কর তোমাদের নিজেদেরই কল্যাণের জন্য; যাহারা অন্তরের কার্পণ্য হইতে মুক্ত তাহারাই সফল কাম।


 


 


 


assets/data_files/web

সাহসহীন কোনো ব্যক্তিই সাফল্য অর্জন করতে পারে না।


-কাও ন্যাল গিবন।


 


 


 


 


 


নিরপেক্ষ লোকের দোয়া সহজে কবুল হয়।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
জীবন বাঁচাতে রক্ত পেলো এতিম শিশু
নজরুল ইসলাম বাবলু
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর সরকারি কলেজের সামনে 'এ পজেটিভ' রক্তদাতার সন্ধানে লিফলেট হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে ৭ বছর বয়সী একটি এতিম শিশু। পিতাহারা ছেলেটি থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত। এই অবুঝ শিশুটিকে বাঁচতে হলে রক্ত প্রয়োজন।



১১ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল ১০টায় এতিম ওই শিশুটি নিজের জন্যে 'এ পজেটিভ রক্ত প্রয়োজন' লেখা একটি লিফলেট হাতে নিয়ে চাঁদপুর সরকারি কলেজের সামনে দাঁড়িয়ে থাকার করুণ দৃশ্যটি চোখে পড়ে এইচএম জাকির হোসেনের। তিনি শিশুটির ছবি তুলে রক্তদাতা চেয়ে সাথে সাথেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। ফেসবুকের উক্ত স্ট্যাটাসটি ১০ মিনিটের মাথায় দেখতে পান গণমাধ্যমকর্মী মোঃ মাসুদ হোসেন। তিনি এইচএম জাকিরের স্ট্যাটাসটি কপি করে তার পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রভাত মহামায়া শাখা গ্রুপে পোস্ট করেন। বিজয় টেলিভিশন চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম সিফাতসহ বিভিন্ন ফেসবুক ব্যবহারকারীর মাধ্যমে ছবিটি খুব কম সময়ে ভাইরাল হয়ে যায়। কমেন্টে জমা হতে থাকে রক্তদাতার সন্ধান। পোস্টটি দেখে প্রভাত মহামায়া শাখার সহ-সভাপতি মোঃ জুয়েল হাজী খুব দ্রুত উদ্যোগ নিয়ে ম্যানেজ করে ফেলেন কাঙ্ক্ষিত রক্তদাতা। প্রত্যন্ত এলাকা থেকে রক্ত দিতে চাঁদপুর শহরের আল-মানার হাসপাতালে চলে আসেন প্রভাত মহামায়া শাখার সদস্য হাজীগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্র আরিয়ান বিন আফ্রিদি।



জানা যায়, চাঁদপুর সদর উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের পশ্চিম সকদী এলাকার মিজি বাড়ির মৃত বাচ্চু মিয়ার ৭ বছর বয়সী পুত্র মোঃ ছাবি্বর মিজি একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে আসছে। থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত এই শিশুর জীবন বাঁচাতে কয়েক মাস পর পর প্রয়োজন হয় 'এ পজেটিভ' রক্ত। তার রয়েছে ছোট একটি বোন। এতিম দুই শিশুর সুন্দর ভবিষ্যৎ কামনায় পাশে থাকার জন্যে প্রতিশ্রুতি দেন সরকারি নিবন্ধনকৃত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রভাত সমাজকল্যাণ সংস্থার নেতৃবৃন্দ এবং তারা এ শিক্ষার্থীর জন্যে সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেছেন।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮২৪৯৪১
পুরোন সংখ্যা