চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৬ ভাদ্র ১৪২৬, ১০ মহররম ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৮-সূরা মুজাদালা


২২ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


০৫। যাহারা আল্লাহ ও তাহার রাসূলের বিরুদ্ধাচরণ করে, তাহাদিগকে অপদস্থ করা হইবে যেমন অপদস্থ করা হইয়াছে তাহাদের পূর্ববর্তীদিগকে; আমি সুস্পষ্ট আয়াত অবতীর্ণ করিয়াছি; কাফিরদের জন্যে রহিয়াছে লাঞ্চনাদায়ক শাস্তি।


 


 


 


 


assets/data_files/web

কোনো কোনো সময় প্রকৃতি বিদ্রোহ করলে মানুষ তার সুযোগ গ্রহণ করে। -ইয়ং।


 


 


দাতার হাত ভিক্ষুকের হাত অপেক্ষা উত্তম। যে ব্যক্তি স্বাবলম্বী ও তৃপ্ত হতে চায়, আল্লাহ তাকে স্বাবলম্বন ও তৃপ্তি দান করেন।


 


 


ফটো গ্যালারি
নিখোঁজ দুই মাদ্রাসা ছাত্রের সন্ধান পাওয়া গেছে
পরিবারের কাছে হস্তান্তর
স্টাফ রিপোর্টার
১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মাদরাসাতু ইশায়াতিল উলুম ইসলামপুর গাছতলা থেকে নিখোঁজ হওয়া দু'ছাত্রকে পাওয়া গেছে। নিখোঁজ হওয়া আবদুল্লাহ আল সাঈদ ও সানজিদ খানকে উভয়ের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান মাদ্রাসার ছাত্রাবাসের কর্তৃপক্ষ। গতকাল ৯ সেপ্টেম্বর দুপুর আনুমানিক ১২টার সময় আব্দুল্লাহ আল সাঈদ ও সানজিদ উভয়ে মাদ্রাসার ছাত্রাবাসে হঠাৎ করে চলে আসে।



সানজিদ থেকে জানা যায়, তারা দুজন চাঁদপুর শহরে বড়স্টেশন দেখতে যায়। পরে বিকেলে চট্টগ্রামগামী ট্রেনে উঠে প্রথম হাজীগঞ্জ যায়। সেখান থেকে লাকসাম হয়ে চট্টগ্রামে যায়। তাদেরকে চট্টগ্রামের এক লোক তার কাছে নিয়ে রাখলে পরে ঐ লোক পরের দিন (গতকাল) চাঁদপুরগামী ট্রেনে টিকেট করে তাদের পাঠিয়ে দেন। গতকাল দুপুরে তারা মাদ্রাসায় চলে আসে। এ ব্যাপারে চাঁদপুর মডেল থানায় করা সাধারণ ডায়েরি প্রত্যাহার করা হয়েছে। জিডি নং-৪৭১, তারিখ: ৯/৯/১৯ খ্রিঃ।



এ বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমে ছাত্রের মামা সাংবাদিক মুহাম্মদ ইলিয়াছ পাটওয়ারী জানান, আমার ভাগিনা আবদুল্লাহ আল সাঈদ তার এক সহপাঠীর সাথে গত শুক্রবার দুপুরে হোস্টেল থেকে বের হয়ে যায়। গতকাল আব্দুল্লহ আল সাঈদ ও সানজিদকে মাদ্রাসার হোস্টেল সুপারের মাধ্যমে উভয়ের পরিবার তাদেরকে পেয়েছে। এ ব্যাপারে আমাদের কোনো অভিযোগ নেই।



মাদ্রাসার পক্ষে ছাত্রাবাসের দায়িত্বে থানা সুপার জানান, আমার নিখোঁজ হওয়া দু'ছাত্র আমাদের মাদ্রাসায় ফিরে এসেছে। আমরা ছাত্রদের অভিভাবকের কাছে তাদেরকে হস্তান্তর করেছি।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৭৩৭১৮
পুরোন সংখ্যা