চাঁদপুর, রোববার ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ জিলহজ ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৫-সূরা রাহ্মান


৭৮ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১। দয়াময় আল্লাহ,


২। তিনিই শিক্ষা দিয়েছেন কুরআন,


৩। তিনিই সৃষ্টি করিয়াছেন মানুষ,


৪। তিনিই তাহাকে শিখাইয়াছেন ভাব প্রকাশ করিতে,


৫। সূর্য ও চন্দ্র আবর্তন করে নির্ধারিত কক্ষপথে,


 


 


 


 


 


assets/data_files/web

বাণিজ্যই হলো বিভিন্ন জাতির সাম্য সংস্থাপক। -গ্লাডস্টোন।


 


 


কাহারো উপর অত্যাচার করা হইলে সে যদি সবর করিয়া চুপ থাকিতে পারে, আল্লাহ তাহার সম্মান বৃদ্ধি করিয়া দেন।


 


ফটো গ্যালারি
বাড়ির মালিকের ছেলের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে দারোয়ানের আত্মহত্যার চেষ্টা
স্টাফ রিপোর্টার
২৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর শহরের স্টেডিয়াম রোডস্থ সোনালী সিঁড়ি নামক বাড়ির মালিকের ছেলে বাড়ির দারোয়ানকে বেদম প্রহার করে গুরুতর আহত করেছে। চাঁদপুর শহরের ট্রাক রোড এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে সোবহান (২০) নামে ওই দারোয়ান যুবকটি মালিকের ছেলের আঘাত সহ্য করতে না পেরে পর্যাপ্ত পরিমাণে এনড্রিন নামক কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। বর্তমানে সে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুর ১২টায়।



ঘটনা সূত্রে জানা যায়, সোনালী সিঁড়ি নামক বাড়ির মালিক আলহাজ্ব আঃ হান্নান বেপারীর ছেলে শাওন বেপারী কোনো কাজ-কর্ম করে না, বেকার। বাসা ভাড়ার অর্থেই সে চলে। প্রায় সময় সে বাসার কাজের লোক ও দারোয়ানদের কারণে অকারণে মারধর করে। শুক্রবার সকালে দারোয়ান সোবহান তার নিজের বাসা থেকে 'সোনালী সিঁড়ি' বাসায় যায়। তখন অজ্ঞাত কারণে উক্ত শাওন দারোয়ান সোবহানকে মারধর করতে থাকে। শাওন প্রায়ই এ ধরনের নির্যাতন তার ওপর চালায়। শুক্রবার তাকে বেদম মারধর করলে সে রাগে ক্ষোভে অভিমানে এনড্রিন নামক কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। খবর পেয়ে দুপুর সাড়ে ১২টায় সোবহানকে তার বড় বোন চিকিৎসার জন্যে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ সুজাউদ্দৌলা রুবেল সোবহানের অবস্থা খারাপ দেখতে পেয়ে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। একটি সূত্র থেকে জানা যায়, শাওন প্রায় সময় মানুষের সাথে এ ধরনের আচরণ করে থাকে। বর্তমানে সোবহান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৩০১
পুরোন সংখ্যা