চাঁদপুর, শনিবার ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ জিলহজ ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৪-সূরা কামার


৫৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৫২। উহাদের সমস্ত কার্যকলাপ আছে আমলনামায়,


৫৩। আছে ক্ষুদ্র ও বৃহৎ সমস্ত কিছুই লিপিবদ্ধ।


৫৪। মুত্তাকীরা থাকিবে স্রোতস্বিনী বিধৌত জান্নাতে,


৫৫। যোগ্য আসনে, সর্বময় কর্তৃত্বের অধিকারী আল্লাহর সানি্নধ্র্যে।


 


 


assets/data_files/web

একজন ভাগ্যবান ব্যক্তি সাদা কাকের মতোই দুর্লভ। -জুভেনাল।


 


 


মানুষ যে সমস্ত পাপ করে আল্লাহতায়ালা তার কতকগুলো মাপ করে থাকেন, কিন্তু যে ব্যক্তি মাতা-পিতার অবাধ্যতাপূর্ণ আচরণ করে, তার পাপ কখনো ক্ষমা করেন না।


 


 


ফটো গ্যালারি
ভাষা সৈনিক ডাঃ এমএ গফুরের চিরবিদায়
এএইচএম আহসান উল্লাহ
২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুরের কিংবদন্তীতুল্য নিভৃতচারী সমাজসেবক সর্বজনশ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব চাঁদপুর ডায়াবেটিক ও মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ভাষা সৈনিক আলহাজ ডাঃ এমএ গফুর আর বেঁচে নেই। তিনি রাব্বুল আলামিনের ডাকে সাড়া দিয়ে এই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেছেন পরপারে। গতকাল শুক্রবার ভোর ৪টায় তিনি ঢাকার শমরিতা হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহে...রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৮৮ বছর। তিনি ১ কন্যা মিসেস মাহফুজা হক এবং দুই পুত্র ডাঃ শাকিল গফুর ও ড. শায়ের গফুরের গর্বিত পিতা। গতকাল শুক্রবার বাদ জুমা চাঁদপুর পৌর ঈদগাহে তাঁর জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় অসংখ্য শোকার্ত মানুষ অংশ নেন। অন্য ধর্মেরও অনেক মানুষ এসেছেন এ মানবপ্রেমী মানুষটিকে শেষবারের মতো একনজর দেখার জন্যে। তারা পৌর ঈদগাহের পাশেই অবস্থান করছিলেন।



আমৃত্যু মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখা ৮৮ বছরের এ মানুষটিকে হারিয়ে চাঁদপুরবাসী ছিলো শোকাহত। এ শোকাবহ পরিবেশ জানাজার নামাজে অংশগ্রহণকারী সকলের মাঝে বিরাজ করছিলো। অনেকেই ছিলেন অশ্রুসিক্ত। জানাজার নামাজ শেষে চাঁদপুর পৌর কবরস্থানে তাঁর স্ত্রী মরহুমা মাহমুদা বেগমের পাশে তাঁকে দাফন করা হয়। তাঁর স্ত্রী ইন্তেকাল করেছেন ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ খ্রিঃ তারিখে।



মরহুম ডাঃ এমএ গফুরের জানাজার নামাজে ইমামতি করেন চৌধুরী জামে মসজিদের খতিব মাওঃ হোসাইন আহমেদ।



জানাজার পূর্বে ডাঃ এমএ গফুরের বর্ণাঢ্য জীবনের ওপর শ্রদ্ধা নিবেদন করে সংক্ষিপ্ত স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের পুলিশ সুপার এবং অ্যাডিশনাল ডিআইজি পদে সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত জিহাদুল কবির বিপিএম, পিপিএম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারী, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, চাঁদপুর ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আখন্দ সেলিম, মরহুম ডাঃ এমএ গফুরের ছোট ভাই জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ ফজলুল হক সরকার ও মরহুমের বড় ছেলে ডাঃ শাকিল গফুর। সংক্ষিপ্ত এই স্মৃতিচারণ পর্ব পরিচালনা করেন চাঁদপুর জেলা আইনজীবী সমিতি ও চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, চাঁদপুর কণ্ঠ সম্পাদক আলহাজ্ব অ্যাডঃ ইকবাল-বিন-বাশার। এরপর জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, আলেম-ওলামা ও অসংখ্য ধর্মপ্রাণ মুসলি্ল অংশ নেন।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১৬৫০৭৮
পুরোন সংখ্যা