চাঁদপুর, শনিবার ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ জিলহজ ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৫-সূরা রাহ্মান


৭৮ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৪০। সুতরাং তোমরা উভয়ে তোমাদের প্রতিপালকের কোন্ অনুগ্রহ অস্বীকার করিব?


৪১। অপরাধীদের পরিচয় পাওয়া যাইবে উহাদের লক্ষণ হইতে, উহাদিগকে পাকড়াও করা হইবে মাথার ঝুঁটি ও পা ধরিয়া।


 


 


 


 


assets/data_files/web

একজন ভাগ্যবান ব্যক্তি সাদা কাকের মতোই দুর্লভ। -জুভেনাল।


 


 


মানুষ যে সমস্ত পাপ করে আল্লাহতায়ালা তার কতকগুলো মাপ করে থাকেন, কিন্তু যে ব্যক্তি মাতা-পিতার অবাধ্যতাপূর্ণ আচরণ করে, তার পাপ কখনো ক্ষমা করেন না।


 


 


ফটো গ্যালারি
শাহরাস্তিতে ডেঙ্গু জ্বরে এক মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু
মঈনুল ইসলাম কাজল
১৭ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শাহরাস্তিতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মাদ্রাসা ছাত্র আবু বকর সিদ্দিক সিয়াম (১৪) অবশেষে মারা গেছে। গত ১৪ আগস্ট বিকেলে ঢাকা নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।



পরিবারিক সূত্রে জানা যায়, সিয়াম হাজীগঞ্জ উপজেলার আহম্মদপুর গ্রামে হাফিজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র ছিলো। গত রমজানের ঈদের পর সে ঢাকায় তার তালাতো ভাই আফসারের বাসায় চলে যায়। সেখানেই সে ছিলো। গত ১১ আগস্ট বিকেলে ঈদ উদ্যাপন করতে সে বাড়িতে আসে। সে সময় তার গায়ে জ্বর থাকায় তার মা শিল্পী আক্তার তাকে উয়ারুক বাজারে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। ডাক্তার তাকে দেখে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েনিয়ে রক্ত পরীক্ষা করতে বলেন। পরদিন ঈদ থাকায় তার মা তাকে আর হাসপাতালে নিয়ে যাননি। ঈদের পর দিন ১৩ আগস্ট তার জ্বর না কমায় তাকে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েনিয়ে গেলে তখন তার রক্ত পরীক্ষায় ডেঙ্গু ধরা পড়ে। হাসপাতালে একদিন থাকার পর তার অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে কুমিল্লায় প্রেরণ করেন।



তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানকার চিকিৎসক তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। ১৪ আগস্ট সিয়ামকে ঢাকা নেয়ার পথে কাঁচপুর এলাকায় তার মৃত্যু ঘটে।



সিয়ামের মা শিল্পী আক্তার জানান, তার দুই মেয়ে ও একমাত্র ছেলে সিয়াম। সে লেখাপড়ায় অমনোযোগী হওয়ার কারণে তাকে ঢাকায় ভর্তি করানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন তিনি। ঈদের আগের দিন সে জ্বর নিয়ে বাড়িতে আসে। তিনি জানতে পারেন এর আগেও দু-তিন দিন তার জ্বর ছিলো। ঈদের দিনও সে ভালো ছিলো। তার বাবা জাকির হোসেন একজন কৃষক। ১৪ আগস্ট রাতে সিয়ামকে টামটা পশ্চিম পাড়া নোয়াবাড়ির কবরস্থানে দাফন করা হয়।



সিয়ামের পরিবারে চলছে এখন শোকের ছায়া। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে পরিবারের সাবাই এখন শোকাহত।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৮৫৬৭৭
পুরোন সংখ্যা