চাঁদপুর, শুক্রবার ১৭ মে ২০১৯, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১১ রমজান ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, কিংবদন্তীতুল্য সমাজসেবক আলহাজ্ব ডাঃ এম এ গফুর আর বেঁচে নেই। আজ ভোর ৪টায় ঢাকার শমরিতা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন।বাদ জুমা পৌর ঈদগাহে জানাজা শেষে বাসস্ট্যান্ড গোর-এ-গরিবা কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫০-সূরা কাফ্

৪৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৩। তাহার সঙ্গী ফিরিশ্তা বলিবে, ‘এই তো আমার নিকট আমলনামা প্রস্তুত।’

২৪। আদেশ করা হইবে, তোমরা উভয়ে নিক্ষেপ কর জাহান্নামে প্রত্যেক উদ্ধত কাফিরকে-


assets/data_files/web

যাকে মান্য করা যায় তার কাছে নত হও। -টেনিসন।


 


 


যারা ধনী কিংবা সবকালয়, তাদের ভিক্ষা করা অনুচিত।


 


 


ফটো গ্যালারি
আহলান-সাহলান; মাহে রামাদ্বান
শুরু হলো মাগফিরাত অংশ
এএইচএম আহসান উল্লাহ্
১৭ মে, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

আজ ১১ রমজান। মাহে রমজানের মাগফিরাত অংশ আজ থেকে শুরু হয়েছে। মাগফিরাত অর্থ ক্ষমা। রমজানের প্রথমভাগ ১০ দিন দয়াময় আল্লাহর রহমতের বারিধারায় বান্দা নিজের জীবনকে সুশোভিত করে মধ্যভাগের ১০ দিন মাগফিরাতের অংশে আল্লাহর ক্ষমতাশীলতা কামনা করবে। নিজের জীবনের যাবতীয় পাপরাশির ক্ষমা চাইবে। আল্লাহ্ জাল্লা শানুহু যে বান্দার প্রতি করুণার দৃষ্টি দেবেন এবং ক্ষমা করে দেবেন, তার তো খোশ নসিব। ইহকাল এবং পরকালে তো তার আর কোনো চিন্তা নেই। তাই আমরা এই রমজানে বেশি বেশি করে ইবাদতের পাশাপাশি তাওবা ইস্তেগফারও পাঠ করবো। খালেছভাবে আল্লাহর কাছে তাওবা করবো।

হাদিসে নববীতে ইরশাদ হয়েছে, নবী করিম (দঃ) বলেন, যে ব্যক্তি পরিপূর্ণ ঈমানের সাথে ও সাওয়াবের আশায় রমজান মাসের রোজা রাখবে, মহান আল্লাহ্ ওই বান্দার পেছনের সকল গুনাহ ক্ষমা করে দেবেন। সুবহানাল্লাহ! আল্লাহ্ তাঁর বান্দার প্রতি কত দয়াবান। আল্লাহ্ জানেন যে, তার ঈমানদার বান্দারা দুনিয়ার জিন্দেগীতে শয়তানের প্ররোচনায় পড়ে ইচ্ছা অনিচ্ছায় অনেক গুনাহ করবে, কিন্তু আল্লাহ্র প্রতি তাদের অগাধ বিশ্বাস ও ভরসা থাকবে পাহাড়সম। সেজন্যে আল্লাহ্ ওই ঈমানদার গুনাহগার বান্দাদের গুনাহ মাফের জন্যে নানা উপলক্ষ দিয়ে দিয়েছেন। তন্মধ্যে মাহে রমজান অন্যতম। আল্লাহ্র এই অফুরন্ত রহমত, বরকত, ক্ষমা ও দয়াসহ সকল নেয়ামত প্রাপ্তি আমাদের প্রিয় নবী (দঃ)-এর উসিলায়। উম্মতে মোহাম্মদীর জন্যেই আল্লাহ্ দয়ার সাগর।

মুসলিম মিল্লাতের প্রতি আহ্বান! আমরা যেনো মাহে রমজানের এই মাগফিরাতের অংশে খুব বেশি যত্নবান হই। রাব্বুল আলামীনের ক্ষমশীল বান্দাহ যেনো আমরা হতে পারি।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৯৬৯১১
পুরোন সংখ্যা