চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬, ১৬ শাবান ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৯-সূরা হুজুরাত


১৮ আয়াত, ২ রুকু, 'মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৪। যাহারা ঘরের বাহির হইতে তোমাকে উচ্চস্বরে ডাকে, তাহাদের অধিকাংশই নির্বোধ,


৫। তুমি বাহির হইয়া উহাদের নিকট আসা পর্যন্ত যদি উহারা ধৈর্য ধারণ করিত, তাহাই উহাদের জন্য উত্তম হইত। আল্লাহ ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।


 


 


কোনো বড় কাজই উৎসাহ ছাড়া লাভ হয়নি। -ইমারসন।


 


 


 


নিঃসন্দেহে তিন প্রকার লোকের দোয়া কবুল হয়-পিতার দোয়া, মোসাফিরের দোয়া এবং অত্যাচারিত ব্যক্তির দোয়া।


 


 


ফটো গ্যালারি
শাহরাস্তিতে ভাসুরের ছুরিকাঘাতে আহত গৃহবধূর মৃত্যু আটক ৩
মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল
২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শাহরাস্তিতে প্রবাসীর স্ত্রী ৩ সন্তানের জননী কোহিনুর বেগম (৩০)কে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা করেছে এই গৃহবধূর ভাসুর জহির। গতকাল ২২ এপ্রিল সোমবার ভোররাতে আহত হওয়ার ৩ দিন পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। শাহরাস্তি পৌরসভার ১১নং ওয়ার্ডের ভাটুনিখোলা বেপারী বাড়িতে ১৮ এপ্রিল রাত ২টায় এ ঘটনা ঘটে। থানা পুলিশ ওই ঘটনায় ৩ জনকে আটক করেছে। নিহত কোহিনুর ওই বাড়ির প্রবাসী আরিফুল ইসলামের স্ত্রী।



ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ওই গ্রামের আঃ খালেকের পুত্র জহির ভিকটিম কোহিনুর বেগমের ভাসুর সম্পর্কীয়। বিগত ২ বছর পূর্বে ২য় বার বিদেশ গিয়ে কাজ-কর্ম না করে জহির দেশে ফিরে আসার চেষ্টা করছিল। এদিকে জহিরের স্ত্রী লাকি (২৬) ধার দেনা শোধ না করে দেশে ফিরলে তাকে তালাক দেয়ার হুমকি দেয়ার পরও জহির দেশে ফিরে আসে। এ ঘটনায় লাকি জহিরের সাথে সংসার জীবনের ইতি টানে। তার ১ বছর পর কোহিনুরের (ভিকটিম) ভাই সালেহ আহমদের সাথে পারিবারিকভাবে লাকির বিয়ে হয়। এতে জহির ক্ষুব্ধ হয়। এরই জের ধরে গত ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টায় জহির কোহিনুরের ঘরে সিঁদ কেটে প্রবেশ করে কোহিনুরকে মারাত্মক ছুরিকাহত করে। ওই সময় কোহিনুরের কন্যা মুক্তা (১১) জহিরকে দেখে ফেলায় তাকেও ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরিবারের লোকজন তাদের উদ্ধার করে উপজেলার উয়ারুক মেডিল্যাব হাসপাতালে নিলে কর্মরত চিকিৎসক কোহিনুরকে কুমিল্লা নেয়ার পরামর্শ দেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কোহিনুরের মৃত্যু ঘটে।



এ ঘটনায় কোহিনুরের দেবর হাবীব উল্যাহ বাদী হয়ে শাহরাস্তি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পুলিশ জহিরের পিতা আবদুল খালেক, মা আমিরেরনেছা ও ছোট ভাই নূর হোসেনকে গ্রেফতার করেছে।



প্রবাসীর স্ত্রী কোহিনুর বেগমের মৃত্যুর সংবাদে চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) আসনের সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে যান। এ সময় তিনি শোক সন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা জানান।



শাহরাস্তি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শাহ আলম জানান, এ ঘটনায় মামলা হওয়ার পরপরই ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের আটকে পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫২৬৯১৬
পুরোন সংখ্যা