চাঁদপুর। শনিবার ১৮ আগস্ট ২০১৮। ৩ ভাদ্র ১৪২৫। ৬ জিলহজ ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪০-সূরা আল মু'মিন


৮৫ আয়াত, ৯ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৪৯। যারা জাহান্নামে আছে, তারা জাহান্নামের রক্ষীদেরকে বলবে, তোমরা তোমাদের পালনকর্তাকে বল, তিনি যেন আমাদের থেকে একদিনের আযাব লাঘব করে দেন।


৫০। রক্ষীরা বলবে, তোমাদের কাছে কি সুস্পষ্ট প্রমাণাদিসহ তোমাদের রসূল আসেননি? তারা বলবে, হ্যাঁ। রক্ষীরা বলবে, তবে তোমরাই দোয়া কর। বস্তুত কাফেরদের দোয়া নিষ্ফলই হয়।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


যে দুর্ভাগ্যকে সহ্য করতে পারে না, সে সত্যি হতভাগ্য।


-টেরেন্স।


 


 


ব্যয় করার আগে নিজের পরিবার-পরিজনের কথা খেয়াল করো, সর্বাগ্রে নিজ পরিবার হতে ব্যয় শুরু করো।


 


 


 


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
জাতীয় শোক দিবসে শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসনের শোক র‌্যালি ও আলোচনা সভায় মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি
জাতির পিতাকে হত্যার পেছনে ছিলো একাত্তরের পরাজিত শক্তি
মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল
১৮ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালিত হয়েছে শাহরাস্তি উপজেলায়। শাহরাস্তি উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক সকালে নিজ মেহার মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ থেকে একটি শোক র‌্যালি বের করা হয়। এতে অংশ নেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম। রাজনৈতিক, সামাজিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি ছাড়াও শোক র‌্যালিতে স্কুল কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। র‌্যালিটি উপজেলা পরিষদ চত্বরে এসে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভার আয়োজন করে উপজেলা প্রশাসন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু হত্যার মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনা আর ঘটেনি। আমরা এ দিনে শ্রদ্ধার সাথে জাতির পিতাকে স্মরণ করছি। ঐদিন তারা শুধু জাতির পিতাকে হত্যা করে নি, তারা আমাদের চেতনাকে হত্যা করেছে। ভাগ্যক্রমে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশে থাকায় বেঁচে গিয়েছিলেন। তাঁরা দেশে থাকলে তাঁদেরও হত্যা করা হতো। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার কারণ হলো মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে হত্যা করা। তারা চায়নি বঙ্গবন্ধুর বংশের কেউ বেঁচে থাকুক। তারা ৭১-এর পরাজিত শক্তি। তাদের পেছনে ছিল কয়েকটি রাষ্ট্র, যারা বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়নি। তাদের মূল লক্ষ্য ছিলো পাকিস্তানীদের সাথে বাংলাদেশকে মিলিয়ে দেয়া। তাদের লক্ষ্য সফল হয়নি। আজ বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার হাত ধরে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।



উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাবিব উল্লাহ মারুফের সভাপতিত্বে এবং সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ জহিরুল ইসলামের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হাসিনা আক্তার, পৌর মেয়র হাজী আঃ লতিফ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান মিন্টু, থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান, মেহের ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মিজানুর রহমান প্রমুখ।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১২২৬৬৭২
পুরোন সংখ্যা