চাঁদপুর। বুধবার ১৫ আগস্ট ২০১৮। ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫। ৩ জিলহজ ১৪৩৯
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪০-সূরা আল মু’মিন

৮৫ আয়াত, ৯ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৪৫। অতঃপর আল্লাহ তাকে তাদের চক্রান্তের অনিষ্ট থেকে রক্ষা করলেন এবং ফেরাউন গোত্রকে শোচনীয় আযাব গ্রাস করলো।

৪৬। সকালে ও সন্ধ্যায় তাদেরকে আগুনের সামনে পেশ করা হয় এবং যেদিন কেয়ামত সংঘটিত হবে সেদিন আদেশ করা হবে, ফেরাউন গোত্রকে কঠিনতর আযাবে দাখিল কর।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন





 


কোনো মহৎ লোকের জীবনই বৃথা যায় না।

-ডব্লিউ এস ল্যান্ডার।


মজুরের গায়ের ঘাম শুকাবার আগেই তার মজুরি দিয়ে দাও।



 


ফটো গ্যালারি
হরিসভা এলাকার ভাঙ্গন কবলিত স্থান পরিদর্শনকালে ডাঃ দীপু মনি এমপি
পুরাণবাজার শহর রক্ষা বাঁধ রক্ষায় আমার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে
স্থায়ী বাঁধ নির্মাণসহ দ্রুতগামী গ্রীন লাইন লঞ্চ বন্ধের দাবি
স্টাফ রিপোর্টার
১৫ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার হরিসভা এলাকার ভাঙ্গন কবলিত শহর রক্ষা বাঁধের পরিস্থিতি দেখাসহ তা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণের লক্ষ্যে এক সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো পরিদর্শন করলেন চাঁদপুর-৩ আসনের এমপি সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি। তিনি গতকাল ১৪ আগস্ট সকাল ১১টায় ভাঙ্গনস্থলে আসবেন এ সংবাদ পেয়ে এলাকার শত শত নারী-পুরুষ তাকে অভিবাদন জানানোর জন্যে ঘটনাস্থলে ভিড় জমান। পৌর কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী মাঝি দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে ব্যাপকভাবে শোডাউনপূর্বক এলাকার ভাঙ্গন প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণের জোর দাবি জানান।



চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়সহ এলাকার নারী-পুরুষ ভাঙ্গন প্রতিরোধে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণসহ শহর রক্ষা বাঁধের পাড় ঘেঁষে চলাচলকারী দ্রুতগামী গ্রীন লাইন লঞ্চ বন্ধের জোর দাবি জানান ডাঃ দীপু মনি এমপির নিকট। তারা বলেন, শহর রক্ষা বাঁধে যে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে, তার বেশিরভাগ কারণ হলো দ্রুতগামী লঞ্চ গ্রীন লাইন। এ লঞ্চ যখন পাড় ঘেঁষে যাতায়াত করে তখন বড় বড় ঢেউয়ের কারণে নদীর পাড় রক্ষায় যে সকল বস্নক রয়েছে তা নড়ে উঠে এবং পাড় সংলগ্ন বস্নক ও জিও টেঙ্টাইল ব্যাগের তলদেশের মাটি সরে গিয়ে এ সকল বস্নক ও বালু ভর্তি ব্যাগ তলিয়ে যায়। ফলে নদীর পাড়ে ভাঙ্গন দেখা দেয়। তারা মনে করেন, স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করা না গেলে শুধুমাত্র আপদকালীন সময়ে কিছু বস্নক বা ব্যাগ ফেলে এ এলাকা রক্ষা করা যাবে না। ডাঃ দীপু মনি ধৈর্য সহকারে এলাকাবাসীর কথা শোনেন এবং এ এলাকার শহর রক্ষা বাঁধ রক্ষায় প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে আমি প্রধানমন্ত্রীসহ পানিসম্পদ মন্ত্রীর সাথে কথা বলেছি এবং কী করে এ বাঁধটিকে স্থায়ী করা যায় এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের সাথেও আমার সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে। তবে চলমান বর্ষা মৌসুমে বড় ধরনের কাজ করা যাবে না জানিয়ে তিনি বলেন, এখন যাতে আর নতুন করে কোনো ভাঙ্গন দেখা না দেয় সেদিকে লক্ষ্য রাখার জন্যে চাঁদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেয়া আছে। তারা সেই ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করেছেন এবং বালু ভর্তি জিও টেঙ্টাইল ব্যাগসহ সিসি বস্নক ভাঙ্গন কবলিত স্থানে ফেলা হচ্ছে। ভাঙ্গন কবলিত ৫০ মিটার এলাকা রক্ষায় আরো ২৫০ কেজি বালু ভর্তি ১৯৮০টি জিও ব্যাগ ও ৬১৫৬টি সিসি বস্নক জরুরি ভিত্তিতে ফেলা হবে। আপনারা ভয় পাবেন না। আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই-এ এলাকার প্রতি আমার লক্ষ্য রয়েছে। তিনি শহর রক্ষা বাঁধ রক্ষায় এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করে আরো বলেন, এ বাঁধের রক্ষণাবেক্ষণে আপনাদের লক্ষ্য রাখতে হবে। কেউ যাতে জিও ব্যাগের ক্ষতি করতে না পারে, পাইপ স্থাপনের নামে কেউ যাতে বস্নক সরাতে না পারে সে দিকে লক্ষ্য রাখবেন। তিনি বাঁধের উপর কোনো স্থাপনা নির্মাণ না করার জন্যেও এলাকাবাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। ডাঃ দীপু মনি ঘটনাস্থলে এসে পেঁৗছলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ নিজামুল হক ভূঁইয়া বাঁধের বর্তমান ক্ষয়ক্ষতি ও তা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণের চিত্র তুলে ধরেন। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল উপস্থিত ছিলেন। তিনিও এলাকা রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণের জন্যে ডাঃ দীপু মনির সুদৃষ্টি কামনা করেন। এছাড়াও অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আবু রায়হান, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাজিম দেওয়ান, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আইউব আলী বেপারী, শহর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাধা গোবিন্দ ঘোষ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান বাবুল, দপ্তর সম্পাদক এমরান হোসেন সেলিম, চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি তমাল কুমার ঘোষ, ডাঃ এস.এম. মোস্তাফিজুর রহমান, শহর যুবলীগের আহ্বায়ক আঃ মালেক শেখ, ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল খায়ের মিজি, আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের অন্য নেতৃবৃন্দসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৯২৪২৪২
পুরোন সংখ্যা