চাঁদপুর । শুক্রবার ১৩ জুলাই ২০১৮ । ২৯ আষাঢ় ১৪২৫ । ২৮ শাওয়াল ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৯-সূরা আয্-যুমার

৭৫ আয়াত, ৮ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৪৪। বল, ‘সকল সুপারিশ আল্লাহরই ইখতিয়ারে, আকাশম-লী ও পৃথিবীর সর্বময় কর্তৃত্ব আল্লাহরই, অতঃপর তাঁহারই নিকট তোমরা প্রত্যানীত হইবে’।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


দুষ্ট লোকেরা তাদের গড়া নরকেই বাস করে।

 টমাস ফুলার।


যারা অতি অভাবগ্রস্ত, দীন-দরিদ্র, কেবল তারা ভিক্ষা করতে পারে।



                       


ফটো গ্যালারি
চোর চক্রের অভয়াশ্রম হাজীগঞ্জের চেঙ্গাতলী বাজার!
কামরুজ্জামান টুটুল
১৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চোর চক্রের অভয়াশ্রম হিসেবে স্থানীয়দের কাছে পরিচিতি লাভ করেছে হাজীগঞ্জের চেঙ্গাতলী বাজার! হাতেনাতে চোর ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়াসহ থানায় চোরের নামে অভিযোগ দায়ের করে ফলাফল না পাওয়া, একের পর এক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বছরের পর বছর ধরে চুরির ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে ব্যবসায়ীরা। চোর চক্রের পাশাপাশি জুয়াড়ী আর মাদকসেবীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে এই বাজার। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন খোদ স্থানীয় দ্বাদশগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম।



স্থানীয় পাটোয়ারী স্টোরের স্বত্বাধিকারী শাহ আলম পাটোয়ারী জানান, গত কয়েক বছর হাজীগঞ্জের দ্বাদশগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের আওতাধীন চেঙ্গাতলী বাজারে স্থানীয় একটি চক্র চুরির ঘটনা ঘটিয়ে আসছে। এ নিয়ে অনেক ব্যবসায়ী ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পথে বসার উপক্রম হয়েছে। বেশ কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে একে একে ৩ বার পর্যন্ত চুরির ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ গত জুনের শেষদিন আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পাটোয়ারী স্টোরে চুরি করতে গিয়ে আমার দোকানের সিসি ক্যামেরায় চিহ্নিত হয় চোর পার্শ্ববর্তী মতলব দক্ষিণ উপজেলার মনিগাঁও গ্রামের জহিরুল ইসলামের ছেলে এমরান হোসেন প্রধানীয়া। এ ঘটনায় আমি ১ জুলাই হাজীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দিলে আজ (১২ জুলাই) পর্যন্ত কোনো পুলিশ তদন্তে আসেনি। একইভাবে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ২০১৫ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি চুরির ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনায় চোর চক্র মতলব দক্ষিণ উপজেলার চর পয়ালী গ্রামের রিয়াদ, এমরান, লিটন, মনির, আরিফ, লিয়াকত, টুকুর নামে মামলা দায়ের করি। সেই ঘটনায় চোর আটক হয় ও পরে জামিনে আসে সেই আটককৃতরা। আবার মাঝে দিয়ে আারেক বার চুরির ঘটনা ঘটে, তবে চোর চিহ্নিত না হওয়ায় সেই ঘটনায় মামলা দায়ের করিনি।



ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী শাহ আলমের সুরে একই কথা বললেন বাজারে চোরের হাতে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী সুমন স্টোরের মালিক মৃত আঃ লতিফের ছেলে আবুল হোসেন, উত্তম স্টোরের মালিক মৃত মনমোহন দাসের ছেলে উত্তম কুমার দাস, বাচ্চু স্টোর এবং সৈয়দ স্টোরের মালিক বাচ্চু মিয়া, বিকাশের দোকানী সোহাগ।



স্থানীয় বয়োবৃদ্ধ ও সর্বজনশ্রদ্ধেয় সিরাজুল ইসলাম মিয়াজী বলেন, এখানে সংঘবদ্ধ চক্র চুরি করে আসছে। এ কারণে অনেক ব্যবসায়ী পথে বসার উপক্রম হয়েছে।



ইউপি চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম জানান, চোরকে সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে শনাক্ত করা হয়েছে, আর এ বিষয়ে আমি নিজে থানায় ফোন দিয়েছি। অথচ আজ পর্যন্ত কোনো পুলিশ তদন্তে আসেনি, এটা দুঃখজনক। পার্শ্ববর্তী এলাকার নারায়ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম মোস্তফা জানান, এই চক্র কোনোভাবে সুবিধার না। এরা বিভিন্ন স্থানে চুরি করতে গিয়ে ধরা খায় আর গণপিটুনির শিকার হয়।



হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জাবেদুল ইসলাম চাঁদপুর কণ্ঠকে জানান, ঐ বাজারের পাটোয়ারী স্টোরের সর্বশেষ ঘটনায় কোনো অপরাধ সংঘটিত হয়নি, আর ঐ এলাকায় রাতের বেলা আমাদের কিলোপার্টি নিয়মিত টহল দিয়ে থাকে। চোর চক্রের বিষয়ে মতলব থানার সাথে আমাদের যোগাযোগ হচ্ছে। অপর এক প্রশ্নে এই কর্মকর্তা বলেন, ব্যবসায়ীগণ তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি রোধে বাজারে নৈশ প্রহরী নিয়োগ দিলে ভালো হয়।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২৩১২৭১
পুরোন সংখ্যা