চাঁদপুর । শুক্রবার ১৩ জুলাই ২০১৮ । ২৯ আষাঢ় ১৪২৫ । ২৮ শাওয়াল ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৯-সূরা আয্-যুমার

৭৫ আয়াত, ৮ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৪৪। বল, ‘সকল সুপারিশ আল্লাহরই ইখতিয়ারে, আকাশম-লী ও পৃথিবীর সর্বময় কর্তৃত্ব আল্লাহরই, অতঃপর তাঁহারই নিকট তোমরা প্রত্যানীত হইবে’।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


দুষ্ট লোকেরা তাদের গড়া নরকেই বাস করে।

 টমাস ফুলার।


যারা অতি অভাবগ্রস্ত, দীন-দরিদ্র, কেবল তারা ভিক্ষা করতে পারে।



                       


ফটো গ্যালারি
ফরিদগঞ্জে ৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ওয়াশবস্নক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম
এমকে মানিক পাঠান
১৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ফরিদগঞ্জে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আধুনিক ওয়াশবস্নক বা শৌচাগার নির্মাণে গুরুতর অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও বিদ্যালয়ের অভিভাবকদের বাধার মুখে বর্তমানে নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে ঠিকাদার। এ নিয়ে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও এসএমসির একজন সহ-সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।



জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে তৃতীয় প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প কর্মসূচি (পিডিপি-৩)'র আওতায় ৩৪ লাখ ৩৭ হাজার টাকা ব্যয়ে ফরিদগঞ্জে ৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ওয়াশবস্নক নির্মাণ করা হচ্ছে। স্কুলগুলো হচ্ছে ফরিদগঞ্জ সরকারি বালিকা প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড়ালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আনন্দবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বদিউজ্জামানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও চরমান্দারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। মেসার্স আবুল খায়ের এন্টারপ্রাইজের লাইসেন্সে ওয়াশবস্নক নির্মাণ কাজ করছেন ফখরুল হাসান নামে এক ঠিকাদার। প্রতিটি ওয়াশবস্নকের নির্মাণ ব্যয় প্রায় ৬ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা।



ফরিদগঞ্জ বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ওয়াশবস্নক নির্মাণের নকশায় সিএল থেকে পিএল সাড়ে ৫ ফুট হওয়ার নির্দেশনা থাকলেও স্কেল দিয়ে মেপে পাওয়া যায় ৩ ফুট ৩ ইঞ্চি। এছাড়া সিএল থেকে ৩০ ইঞ্চি ইটের সলিং দিয়ে ৩ ইঞ্চি ঢালাই দেয়ার পর ২৫ ইঞ্চি, ২০ ইঞ্চি, ১৫ ইঞ্চি ও সর্বশেষ সিএল পর্যন্ত ১০ ইঞ্চি ইটের গাঁথুনি দেয়ার নিয়ম থাকলেও তা করা হয়নি। ভেতরের ফ্লোর বালি ফিলিংয়ের পরে ইট দিয়ে সলিং করে ৩ ইঞ্চি ঢালাই দেয়ার কথা থাকলেও ঢালাই না দিয়ে শুধুমাত্র বালির উপরে পার্টিশন দেয়াল নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়া ওই পার্টিশন দেয়ালটি ভবনের ছাদ পর্যন্ত হওয়ার নির্দেশনা থাকলেও তাতে ১০ ইঞ্চি খালি রয়েছে। সেফটি ট্যাংকি নির্মাণেও হয়েছে ব্যাপক অনিয়ম।



এসএমসির সহ-সভাপতি মোশাররফ হোসেন নান্নু বলেন, শুরুতে ঠিকাদারের কাছে কাজের সিডিউল/ প্রাক্কলন চাইলে তিনি তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। সিডিউল মোতাবেক ওয়াশবস্নকটি নির্মাণ করা হয়নি। এছাড়া নির্মাণ শ্রমিকদের বার বার অনিয়মের কথা বলা সত্ত্বেও তারা ঠিকাদারের দোহাই দিয়ে কাজ চালিয়ে গেছে। ব্যাপক অনিয়ম ও নিম্নমানের কাজ হওয়ায় এখানে যে কোন মুহূর্তে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। নিম্ন মানের কাজের কারণে বিদ্যালেয়র ৪শ' ৫০ জন শিক্ষার্থী ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।



ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানী বলেন, অনিয়মের অভিযোগ থাকায় ওয়াশবস্নক নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে ঠিকাদারকে বাধ্য করেছে এলাকাবাসী। এছাড়া পুরাতন শৌচাগার ভেঙ্গে ফেলার কারণে ছাত্র-ছাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। দ্রুত নতুন ওয়াশবস্নকের কাজ শেষ করা জরুরি।



ঠিকাদার ফখরুল হাসান এ প্রতিনিধিকে বলেন, ওয়াশবস্নক নির্মাণ কাজটি ভালোভাবে বুঝে নেয়ার জন্যে আমি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতিকে বলেছি। কাজের কাছে আমি তো আর সব সময় থাকতে পারি না। লেবাররা যদি কোনো ভুল করে থাকে তা সংশোধন করে কীভাবে কাজটি শেষ করা যায় এ নিয়ে আমি বিদ্যালয়ের সভাপতির সাথে কথা বলেছি।



জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সফি মোঃ হাছান জানান, বিদ্যালয়ের শৌচাগার নির্মাণ কাজে যে অনিয়ম হয়েছে ঠিকাদারকে তা সংশোধন করতে বলেছি।



এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামানের বক্তব্য নেয়ার জন্যে তার মুঠফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।



উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচএম মাহফুজুর রহমান গত বুধবার জানান, ওয়াশবস্নক নির্মাণে প্রাপ্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে অনিয়ম তদন্তে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে তদন্ত রিপোর্ট আমার হাতে আসেনি।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২৩১৩৬৪
পুরোন সংখ্যা